জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে খালেদা জিয়া : রিজভী

0
81

খবর ৭১: হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার অবস্থা এখন জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে বলে জানিয়েছেন দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।
তিনি বলেন, জরুরি ভিত্তিতে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠানো প্রয়োজন। অথচ পররাষ্ট্রমন্ত্রী কিছুদিন আগে বলেছেন বাংলাদেশে খালেদা জিয়ার চিকিৎসা হচ্ছে। কোনো প্রিজনারকে বিদেশে চিকিৎসা নেওয়ার সুযোগ নেই।
শুক্রবার (৮ সেপ্টেম্বর) বিকেলে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচতলায় জাতীয়তাবাদী যুবদলের উদ্যোগে খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনায় দোয়া মাহফিলে এসব কথা বলেন তিনি।
কারাবন্দি অবস্থায় বিদেশে উন্নত চিকিৎসা দেওয়ার সুযোগ বাংলাদেশসহ বিশ্বে অনেক নজির রয়েছে বলে উল্লেখ করেন রিজভী। তার দাবি, বর্তমান প্রধানমন্ত্রীও কারাবন্দি থাকা অবস্থায় বিদেশে চিকিৎসার সুযোগ পেয়েছেন।

তিনি আরও বলেন, আমি পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে বলতে চাই আমার নামে আপনি মানহানি মামলা দিলে দিতে পারেন, আপনার লেখাপড়ায় ঘাটতি আছে। আপনার জানাশোনার ঘাটতি আছে। যে নেত্রী আপনাকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বানিয়েছেন। আপনি যে অবৈধ সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। আপনার সেই সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ২০০৭ সালের জুন মাসে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। ২০০৮ সালের জুলাই মাসে কারাবন্দি থাকা অবস্থায় কারাগার থেকে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য যুক্তরাষ্ট্রে পাঠানো হয়েছিল। যদিও তখনকার তত্ত্বাবধায়ক সরকার বলেছিল শেখ হাসিনার কানের যে সমস্যা এটার চিকিৎসা বাংলাদেশের হতে পারে। কিন্তু শেখ হাসিনার চিকিৎসকরা যখন বললেন তার উন্নত চিকিৎসা দরকার তখন তাকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে পাঠানো হলো। কিন্তু খালেদা জিয়াকে পাঠানো হচ্ছে না কেন? তার চিকিৎসকরা তো প্রতিদিনই বলছে খালেদা জিয়া খুবই অসুস্থ তার চোখ, লিভার, হার্টে, ডায়াবেটিস ও কিডনির সমস্যা।
সরকারের নিপীড়ন নির্যাতনের কারণেই খালেদা জিয়ার ওপর এতগুলো অসুখ আক্রমণ করেছে বলেও মন্তব্য করেন রিজভী। বলেন, তিনি এখন জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে, গোটা জাতি উদ্বেগ উৎকণ্ঠায়, তার কেন উন্নত চিকিৎসা হবে না পররাষ্ট্রমন্ত্রী?
যুবদলের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম মিল্টনের পরিচালনায় আরও বক্তব্য রাখেন যুবদলের সভাপতি সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, সিনিয়র সহসভাপতি মামুন হাসান, সহ সভাপতি নুরুল ইসলাম নয়ন প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here