জাতিকে যে বার্তা দিলেন এরদোগান

0
101

খবর৭১: তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান বলেছেন, গত ৬ ফেব্রুয়ারির ভয়াবহ ভূমিকম্পের পর ক্ষতিগ্রস্তদের বাসস্থান ও জীবিকা নির্বাহের জন্য তুরস্ক তার সমস্ত সম্পদ ও উপায়-উপকরণ দিয়ে কাজ করছে।

মঙ্গলবার দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় ওসমানিয়ে প্রদেশে এক ব্রিফিংয়ে এরদোগান এ কথা বলেন।

তুর্কি নেতা জানান, আগামী এক বছরের মধ্যে ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত সমস্ত গ্রাম ও শহরকে পুনর্গঠন করা হবে। ক্ষতিগ্রস্ত গ্রামগুলোতে ৭০ হাজারের বেশি বাড়ি তৈরি করে তা সুবিধাভোগীদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

এরদোগান আরও বলেন, নতুন ভবনগুলোতে নিচতলা (সাম্প্রতিক সময়ে ভবনের নিচে গাড়ির গ্যারেজ করার জন্য নিচতলা ফাঁকা হয়, এতে ভবনের ভিত্তি অপেক্ষাকৃত কম শক্তিশালী হয়) থাকবে। তাছাড়া ভবনগুলো তিন বা চার তলার বেশি হবে না।

এর আগে সোমবার তুরস্কের প্রেসিডেন্ট জানান, ১১টি ক্ষতিগ্রস্ত প্রদেশে এক বছরের মধ্যে তুরস্ক প্রায় ২ লাখ স্থায়ী বাড়ি নির্মাণের কাজ শেষ করবে এবং সেগুলোতে সংশ্লিষ্ট নাগরিকদের স্থানান্তর করা হবে।

গত ৬ ফেব্রুয়ারি তুরস্ক ও সিরিয়ায় আঘাত হানে ৭ দশমিক ৮ মাত্রার ভূমিকম্প। এতে তুরস্কের ১০টি প্রদেশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়। প্রদেশগুলো হলো- হাতায়, গাজিয়ানটেপ, মালটিয়া, আদিয়ামান, আদানা, দিয়ারবাকির, কিলিস, ওসমানিয়ে, সানলিউরফা ও এলাজিগ।

এদিকে সর্বশেষ সরকারি পরিসংখ্যান অনুসারে ভূমিকম্পে তুরস্কে ৪২ হাজারের বেশি লোক নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও কয়েক হাজার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here