বসন্ত দিনে ভালোবাসার আভা

0
81

খবর৭১: পাতাঝরার গান আর কোকিলের কুহুতান শুরু হয়েছিল আরও কিছুদিন আগে। এবার সরে গেল শীতের চাদরখানি। চারিদিকে আলো ছড়াচ্ছে রৌদ্রোজ্জ্বল দিন। বাতাসে ভাসছে আনন্দ-আভা। এমন দিনে ভালোবাসার ডাক শুনে জেগে উঠেছে মনপ্রাণ। প্রকৃতি আর মানবকুলের জাগরণে আজ একাকার হবে ফাগুনের আগুন আর ভালোবাসার নিবিষ্টতা। আজ বসন্ত। আজ ভালোবাসার দিন। কবি শামসুর রাহমানের ভাষায়, ‘গাছের শাখায় ফুল হাওয়ার সংশ্রবে/যখন নীরবে দিব্যি সানন্দে দুলতে থাকে, পথচারী/অথবা জানালা-ধরে-থাকা যুবতীর চোখ পড়ে/কে জানে কী ছবি সব দোলে কিছুক্ষণ!/ বসন্তের মায়া রয়ে যায় বাস্তবিক নানাভাবে।’

আর প্রেমের কবি নির্মলেন্দু গুণ লিখেছেন, ‘তোমার হাতের মৃদু কড়া-নাড়ার শব্দ শুনবার জন্য/দরোজার সঙ্গে চুম্বকখণ্ডের মতো আমার কর্ণযুগলকে/গেঁথে রেখেছিলাম। কোনো নির্জন মধ্যরাতে তুমি এসে/ডেকে বলবে : এই যে ওঠো, আমি এসেছি, আ-মি।’

আজ বসন্ত-ভালোবাসায় একাকার হয়ে যাওয়ার দিন। বাতাসে ভেসে বেড়াবে এক রোমাঞ্চ। যার ছোঁয়ায় প্রেমিক মন হারিয়ে যাবে নতুন করে। প্রেমে পড়তে চাইবে নতুন করে। বাংলার বিস্তীর্ণ প্রান্তরে আজ পহেলা ফাগুনের দিনে হবে ভালোবাসার জয়গান। হৃদয়ে হৃদয় আর হাতে হাত রেখে আজ যুগলরা একে অপরকে ভালোবাসার উষ্ণ আলিঙ্গন জানিয়ে বলবে ‘হ্যাপি ভ্যালেন্টাইনস ডে’।

সোমবার থেকেই রাজধানীসহ দেশের নানা জায়গায় শুরু হয়েছে বসন্তের আবহ। বিশেষ করে কিশোর-কিশোরী আর তরুণ-তরুণীরা বসন্তের সাজে রাঙাতে শুরু করেছে রাজপথ। আজ হবে প্রকৃত অর্থেই পহেলা ফাল্গুন ও ভ্যালেন্টাইনস ডের উদযাপন। রাজধানীসহ সারা দেশ মেতে উঠবে ফাল্গুনী আমেজে। তরুণীরা বাসন্তী রঙের শাড়িতে খোঁপায় হলুদ গাঁদা আর মাথায় ফুলের টায়রার সুষমায় সাজাবে নিজেদের। তাদের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে তরুণরাও ধরা দেবে হলুদ পাঞ্জাবিসমেত একরাশ ফাল্গুনী সাজে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদ, টিএসসি, সোহরাওয়ার্দী উদ্যান, রবীন্দ্র সরোবর, হাতিরঝিল, রমনা পার্ক, চন্দ্রিমা উদ্যান-সর্বত্রই তারুণ্যের জোয়ারে ভাসবে। ঢাকার বাইরে জেলা শহর ও নানা জায়গায় বিশেষ করে ক্যাম্পাস ও বিনোদনকেন্দ্রগুলো থাকবে তরুণদের দখলে। বসন্ত আর ভালোবাসার দিনটিকে বরণ করে নিতে ফুলের দোকান আর মার্কেটের শাড়ি-পাঞ্জাবির দোকানগুলোয় কয়েকদিন ধরেই বেশ ভিড়।

দিনটিতে প্রেমিক-প্রেমিকারা পরস্পরের শুভেচ্ছায় সিক্ত হবে। ফুল, চকলেট বিনিময়ের পাশাপাশি কবিতা ও ছন্দমিশ্রিত খুদে বার্তায় ভরে যাবে মোবাইল ফোনের ইনবক্স। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও ছড়িয়ে যাবে পরানের গহিনের উষ্ণতা। চলছে অমর একুশে বইমেলা ২০২৩। আজকের বসন্ত ও ভালোবাসার দিনে তারুণ্যের জোয়ার থাকবে বইমেলার পুরো সময়।

প্রতিবছরের মতো এবারও জাতীয় বসন্ত উৎসব উদযাপন পরিদের উদ্যোগে পহেলা বসন্ত উদযাপিত হবে। আয়োজনটি শুরু হবে সকাল ৭টায়। পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মানজার চৌধুরী সুইট বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের বকুলতলায় আয়োজন শুরু হবে বেঙ্গল পরম্পরা সংগীত বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের উচ্চাঙ্গ সংগীত পরিবেশনায়। প্রাণ-প্রকৃতি নিয়ে গান, কবিতা ও নৃত্যের সঙ্গে থাকবে সাঁওতাল, মারমা ও গারো সম্প্রদায়ের নৃত্য পরিবেশনা। চারুকলা অনুষদে বিকাল ৩টায় শুরু হবে বসন্ত উৎসবের দ্বিতীয় পর্ব। গান, কবিতা ও নাচের আয়োজনটি চলবে রাত ৯টা পর্যন্ত। এছাড়া সকাল ৯টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কলাভবনের সামনে বটতলায় থাকছে একক ও সমবেত সংগীত, নৃতাত্ত্বিক জনগোষ্ঠী ও শিশু-কিশোরদের পরিবেশনা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here