লঞ্চভাড়া বাড়লো ৩০ শতাংশ

0
32

খবর৭১ঃ : জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির পরিপ্রেক্ষিতে লঞ্চভাড়া ৩০ শতাংশ বাড়ানো হয়েছে। একজন যাত্রীর লঞ্চভাড়া কম দূরত্বে প্রতি কিলোমিটারে ৭০ পয়সা ও বেশি দূরত্বে ৬০ পয়সা বেড়েছে। কম দূরত্বে লঞ্চভাড়া ৩০ দশমিক ৪৩ শতাংশ ও বেশি দূরত্বের ক্ষেত্রে ৩০ শতাংশ বাড়ানো হয়েছে।
মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) ভাড়া বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়। এতে বলা হয়, লঞ্চভাড়া ১০০ কিলোমিটার পর্যন্ত ২ টাকা ৩০ পয়সা থেকে বেড়ে ৩টা এবং ১০০ কিলোমিটারের বেশি দূরত্বের ক্ষেত্রে ভাড়া ২ টাকা থেকে বাড়িয়ে ২ টাকা ৬০ পয়সা নির্ধারণ করা হয়েছে। জনপ্রতি সর্বনিম্ন ভাড়া ২৫ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৩৩ টাকা করা হয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে আরও বলা হয়, বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন (নৌরুট, পারমিট, সময়সূচি ও ভাড়া নির্ধারণ) বিধিমালা, ২০১৯’ এর বিধি ২৭ অনুযায়ী সরকার নৌযানে যাত্রী পরিবহনের জন্য কিলোমিটার প্রতি সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন যাত্রী ভাড়া পুনর্নির্ধারণে গঠিত কমিটির সুপারিশের আলোকে বিআইডব্লিউটিএ’র প্রস্তাবের পরিপ্রেক্ষিতে নতুন ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে।

জনস্বার্থে নতুন ভাড়া মঙ্গলবার থেকেই কার্যকর হবে বলে প্রজ্ঞাপনে বলা হয়। এর আগে, গত ৮ আগস্ট সচিবালয়ে ‘জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির পরিপ্রেক্ষিতে নৌযানের যাত্রী ভাড়া সমন্বয়ের লক্ষ্যে সভা’ হয়। নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বিদেশ সফরে থাকায় নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোস্তফা কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ওই সভায় লঞ্চ মালিকসহ সংশ্লিষ্ট অন্যান্য দপ্তরের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

ওই সভায় জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এস এম ফেরদৌস আলমকে প্রধান করে একটি ওয়ার্কিং কমিটি গঠন করা হয়। কমিটিতে লঞ্চ মালিকসহ সংশ্লিষ্ট দপ্তরের প্রতিনিধিদের রাখা হয়। কমিটি দুপুর থেকে রাত পর্যন্ত হিসাব-নিকাশ ও মালিক পক্ষের সঙ্গে দেন-দরবার করে ১৯ থেকে ৫০ শতাংশ পর্যন্ত ভাড়া ভাড়ানোর প্রস্তাব দিয়েছিলো।

গত ৫ আগস্ট রাত ১২টার পর থেকে ডিজেল, পেট্রল, করোসিন, ও অকটেনের দাম বাড়িয়েছে সরকার। দাম বেড়েছে প্রতি লিটার ডিজেলে ৩৪ টাকা, কেরোসিনে ৩৪ টাকা, অকটেনে ৪৬ টাকা, পেট্রোলে ৪৪ টাকা। দাম বাড়ার পর প্রতি লিটার ডিজেল ১১৪ টাকা, কেরোসিন ১১৪ টাকা, অকটেন ১৩৫ টাকা ও প্রতি লিটার পেট্টোল ১৩০ টাকায় কিনতে হচ্ছে।

জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর পর ভাড়া বাড়ানোর বিষয়ে ধারণা দেয় বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়। জ্বালানি মন্ত্রণালয় জানিয়েছিলো, জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির পরিপ্রেক্ষিতে প্রতি কিলোমিটারে বাস ভাড়া ২৯ পয়সা ও লঞ্চ ভাড়া ৪২ পয়সা বাড়তে পারে।

কিন্তু লঞ্চ মালিকরা ভাড়া শতভাগ বাড়ানোর প্রস্তাব দেয়। তারা ১০০ কিলোমিটার দূরত্বের জন্য প্রতি কিলোমিটারে জনপ্রতি যাত্রী ভাড়া ২ টাকা ৩০ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ৪ টাকা ৬০ পয়সা এবং প্রথম ১০০ কিলোমিটারের বেশি দূরত্বের জন্য প্রতি কিলোমিটারে জনপ্রতি যাত্রী ভাড়া ২ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৪ টাকা করার প্রস্তাব দিয়েছিল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here