মসজিদে মসজিদে ইবাদতে মগ্ন মুসল্লিরা

0
31

পবিত্র লাইলাতুল কদর আজ। রমজানুল মুবারকের ২৬ তারিখ দিবাগত রাতটি আমাদের দেশে শবে কদর হিসেবে পালিত হয়ে থাকে।
লাইলাতুল কদরের মহিমাম্বিত রাতে মসজিদে মসজিদে সারা রাত জেগে মুসল্লিরা আল্লাহর ইবাদত-বন্দেগিতে মগ্ন রয়েছেন। জেগে নফল নামাজ, জিকির-আসগার, কোরআন তিলাওয়াত, তওবাহ-তাহলিল ও দ্বীনি আলোচনায় মশগুল থেকে পার করবেন পুরো রাত। চোখের পানি ফেলে রাব্বুল আলামিনের দরবারে ক্ষমা প্রার্থনা করছেন ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা।

শবে কদর উপলক্ষে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমসহ রাজধানী প্রায় প্রতিটি মসজিদেই মুসল্লিদের ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। এছাড়া সারাদেশের মসজিদগুলোতেই এদিন বাড়তি ভিড় থাকে। এশার আজানের আগ থেকেই মুসল্লিরা মসজিদে আসা শুরু করেন।
পবিত্র রমজানে যেসব মসজিদে খতমে তারাবি হচ্ছে সেগুলোতে কোরআনে পাকের খতম সম্পন্ন হয়। এরপর অনুষ্ঠিত হয় বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত।
হাজার মাসের ইবাদতের চেয়েও এই রাতের ইবাদত উত্তম বলে কোরআনে কারিমে আল্লাহ তায়ালা লাইলাতুল কদরকে অনন্য মর্যাদা দিয়েছেন।
লাইলাতুল কদর রাতে করুণাময় আল্লাহর অশেষ রহমত ও নেয়ামত বর্ষিত হয়। ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা সর্বশক্তিমান মহান আল্লাহর নৈকট্য লাভের আশায় ইবাদত-বন্দেগি করে থাকেন।
পবিত্র রমজান মাসের লাইলাতুল কদরে পবিত্র কোরআন নাজিল হয়। তাই মহান আল্লাহর প্রতি শুকরিয়া আদায়ে ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা বাসা-বাড়ি ও মসজিদে ইবাদত বন্দেগিতে মশগুল থাকেন।

সারাদেশের মুসলমানরা আজ নফল নামাজ আদায়, পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত, জিকির-আসকার, দোয়া ও মোনাজাতের মধ্য দিয়ে পবিত্র এই শবে কদরের রজনী কাটাবেন।
এদিকে পবিত্র লাইলাতুল কদর উপলক্ষে পৃথক বাণী দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
কদর উপলক্ষে বাংলাদেশ টেলিভিশন, বেসরকারি স্যাটেলাইট টেলিভিশন চ্যানেল, বাংলাদেশ বেতার ও বেসরকারি রেডিও বিশেষ অনুষ্ঠানমালা প্রচার করছে। শবে কদর উপলক্ষে রোববার সরকারি ছুটি থাকবে।
এদিকে পবিত্র শবে কদর ১৪৪৫ হিজরি উদযাপন উপলক্ষে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।
ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে সন্ধ্যা পৌনে ৭টায় (বাদ মাগরিব) ‘পবিত্র শবে কদরের ফজিলত ও তাৎপর্য’শীর্ষক এই আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সচিব মু. আ. হামিদ জমাদ্দার।
আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যাত্রাবাড়ীর কুতুবখালী জামেয়া ইসলামিয়া জামে মসজিদের মুফতি মাওলানা সাকিবুল ইসলাম। সভাপতিত্ব করেন ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) ড. মহা. বশিরুল আলম।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here