এমবাপ্পেকে নিয়ে করোনা-আতঙ্ক

0
242
এমবাপ্পেকে নিয়ে করোনা-আতঙ্ক
এমবাপ্পেকে নিয়ে করোনা-আতঙ্ক

খবর ৭১ঃ  দুদিন ধরে অসুস্থ পিএসজির তারকা স্ট্রাইকার কিলিয়ান এমবাপ্পে। জানা গিয়েছিল, গলায় ইনফেকশন হয়েছে এই ফরাসি তারকার, যা করোনাভাইরাস সংক্রমণের অন্যতম লক্ষণ। তবে আশার কথা, এমবাপ্পের করোনাভাইরাস হয়েছে কি না, এ নিয়ে শারীরিক পরীক্ষার ফলাফল ‘নেগেটিভ’ এসেছে। অর্থাৎ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হননি ২১ বছর বয়সী এই স্ট্রাইকার।

ম্যাচটা পিএসজির জন্য মহাগুরুত্বপূর্ণ। ডর্টমুন্ডের মাঠে এর আগে ২-১ গোলে হেরে আসা পিএসজিকে নিজেদের মাঠে এই ম্যাচটা অন্তত দুই গোলের ব্যবধানে জিততেই হবে, চ্যাম্পিয়নস লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে যেতে হলে। সে ম্যাচের আগে দলের অন্যতম প্রধান তারকা কিলিয়ান এমবাপ্পেকে নিয়ে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ল পিএসজি শিবিরে!

গলার ইনফেকশনের কারণে দুই দিন ধরে অনুশীলনে অংশ নেননি এমবাপ্পে। এমনিতেই করোনভাইরাস আঘাত হেনেছে ফ্রান্সে, সংক্রমণ ঠেকাতে পিএসজি-ডর্টমুন্ড ম্যাচটা আয়োজন করা হবে দর্শকহীন মাঠে। এর ওপর এমবাপ্পের অসুস্থতার খবর শুনে আশঙ্কা করা হলো, হয়তো করোনাভাইরাস সংক্রমিত হয়েছে এমবাপ্পের মধ্যে।

সে আশঙ্কায় শারীরিক পরীক্ষায়ও অংশ নিতে হয়েছে এই তারকাকে। তবে স্বস্তির সংবাদ, সেসব পরীক্ষার ফলাফল ‘নেগেটিভ’ এসেছে। অর্থাৎ, এমবাপ্পের মধ্যে করোনাভাইরাস সংক্রমিত হয়নি। হাঁফ ছেড়ে বেঁচেছে পিএসজি। যদিও এই ব্যাপারে আনুষ্ঠানিক কোনো বিবৃতি দেয়নি ফরাসি চ্যাম্পিয়নরা।

তবে অনুশীলনে অংশ না নেওয়ার কারণে ডর্টমুন্ডের বিপক্ষে এমবাপ্পে মাঠে নামবেন কি না, এখনো নিশ্চিত করেননি পিএসজির জার্মান কোচ টমাস টুখেল।

এই মৌসুমে এ পর্যন্ত সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ৩২ ম্যাচ খেলে ৩০ গোল করেছেন এমবাপ্পে। ডর্টমুন্ডের বিপক্ষে গোল করার জন্য নেইমারের পাশাপাশি এমবাপ্পের দিকেও তাকিয়ে থাকবে ফরাসি দলটা।

প্রথম লেগে নিজেদের মাঠ সিগনাল ইদুনা পার্কে নরওয়ের স্ট্রাইকার আর্লিং ব্রট হরলান্ডের জোড়া গোলে পিএসজিকে ২-১ গোলে হারিয়েছিল ডর্টমুন্ড। পিএসজির হয়ে সান্ত্বনাসূচক গোলটা করেছিলেন নেইমার। কোয়ার্টার ফাইনালে যেতে হলে দ্বিতীয় লেগে অন্তত দুই গোলের ব্যবধানে জিততে হবে পিএসজিকে। এক গোল দিলেও চলবে, তবে সে ক্ষেত্রে লক্ষ্য রাখতে হবে ডর্টমুন্ড যেন একটা গোলও না দিতে পারে। ম্যাচটা তাই পিএসজির জন্য এক রকম অগ্নিপরীক্ষাই।

সে অগ্নিপরীক্ষার আগে এমবাপ্পের খবরটা স্বস্তির সুবাতাস ছড়িয়ে দেবে পিএসজির ড্রেসিংরুমে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here