কিছুটা কমেছে ডেঙ্গুর প্রকোপ

0
39

খবর৭১ঃ করোনা মহামারির মধ্যে গত প্রায় দেড় মাস ধরে ডেঙ্গুর প্রকোপ বেড়েই চলছিল। তবে গত কয়েক দিন ধরে এডিস মশাবাহী রোগটির প্রকোপ কিছুটা কমে এসেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ১৬৩ জন। এর আগের দিন এই সংখ্যাটি ছিল ২৩৪ জন। গত পরশু দিন ডেঙ্গু আক্রান্ত হন ৩০৭ জন। এর আগে লাগাতার অনেক দিন ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা তিনশ’র কাছাকাছি ছিল।

শুক্রবার সারাদেশের পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের নিয়মিত ডেঙ্গু বিষয়ক প্রতিবেদনে জানানো হয়, গত এক দিনে নতুন করে ১৬৩ জন বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এর মধ্যে রাজধানী ঢাকার হাসপাতালগুলোতে ভর্তি হয়েছেন ১৪০ জন। ঢাকার বাইরের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ২৩ জন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, এ নিয়ে সারাদেশের হাসপাতালে ভর্তি মোট ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে এক হাজার ১৯১ জনে। এর মধ্যে ঢাকার হাসপাতালে ৯৮৮ ও বাইরের বিভিন্ন বিভাগে ২০৩ জন।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চলতি বছরের ১ জানুয়ারি থেকে আজ পর্যন্ত দেশে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা ১৫ হাজার ২২৮ জন। তাদের মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৩ হাজার ৯৮০ জন। ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৫৭ জন।

চলতি বছরের জানুয়ারিতে ৩২, ফেব্রুয়ারিতে ৯, মার্চে ১৩, এপ্রিলে ৩, মে মাসে ৪৩, জুনে ২৭২, জুলাইয়ে দুই হাজার ২৮৬, আগস্টে সাত হাজার ৬৯৮ এবং সেপ্টেম্বর ১৭ তারিখ পর্যন্ত চার হাজার ৮৭২ জন রোগী ভর্তি হন।

চলতি সেপ্টেম্বরে ডেঙ্গুর প্রকোপ বাড়তে পারে বলে আগেই সতর্ক করেছিলেন বিশেষজ্ঞরা। তারা জানিয়েছিলেন, এই বছর এপ্রিল ও মে মাস থেকেই বেশ বেশি বৃষ্টিপাত হচ্ছে। বৃষ্টিপাত, তাপমাত্রা এবং আর্দ্রতা, এই তিনটা এডিস মশার বংশবৃদ্ধির জন্য সহায়ক। ফলে জুন মাস থেকেই ডেঙ্গুর প্রকোপ বাড়তে থাকে। সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাব থাকতে পারে বলে ধারণা বিশেষজ্ঞদের। অক্টোবরে প্রকোপ কমে আসতে পারে বলে জানিয়েছেন তারা।

দেশের ইতিহাসে ২০১৯ সালে ডেঙ্গুর প্রকোপ ছিল সবচেয়ে বেশি। ওই বছর প্রথমবারের মতো ডেঙ্গু বিস্তৃত হয় ৬৪ জেলায়। সেসময় ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা লাখ ছাড়ায় এবং এই রোগে আক্রান্ত হয়ে ১৪৮ জনের মৃত্যুর খবর জানায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। যদিও ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জেলার হাসপাতাল ও চিকিৎসকদের কাছ থেকে আড়াইশর বেশি মানুষের এই রোগে মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়।

করোনা প্রাদুর্ভাবের বছর ২০২০ সালে ডেঙ্গু অনেকটা নিয়ন্ত্রণে ছিল। চলতি বছর ডেঙ্গুর প্রকোপ আবার বেড়েছে। অন্যদিকে মহামারি করোনাভাইরাসের ভয়াবহ চিত্রও দেখেছে দেশবাসী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here