শিক্ষার্থীদের ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানালো নীলফামারী ট্রাফিক বিভাগ

0
43

মিজানুর রহমান মিলন সৈয়দপুর :
করোনা মহামারির কারণে ৫৪৪ দিন বন্ধ ছিল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। সে সব বন্ধ প্রতিষ্ঠান চালু হয়েছে আজ রবিবার। এতে আনন্দিত শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকরা। দীর্ঘদিন পর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার আনন্দে প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে উপস্থিতি ছিল শতভাগের কাছাকাছি। শিক্ষকরা তাদের শিক্ষার্থীদের বরণ করে নিয়েছে আনন্দে। এর আগে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যাওয়ার আগে মাঝ পথে নীলফামারী ট্রাফিক বিভাগের পক্ষ থেকে হাতে ফুল পেয়ে উচ্ছ্বসিত সৈয়দপুরের শিক্ষার্থীরা। তাদের প্রত্যেকের হাতে তুলে দেয়া হয় একটি করে ফুল। এসময় বিতরণ করা হয় সার্জিক্যাল মাস্ক ও হ্যান্ড সেনিটাইজার। দীর্ঘদিন পর সড়কে শিক্ষার্থীদের দেখা মেলায় এমন উদ্যোগ নেয় নীলফামারী ট্রাফিক বিভাগের সৈয়দপুর ইউনিট। আজ রবিবার সকালে ট্রাফিক বিভাগের নেয়া এমন উদ্যোগের দৃশ্য চোখে পড়ে সৈয়দপুর শহরের পাঁচমাথা মোড়ে। ওইসময় স্কুল-কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের হাতে একটি করে গোলাপ ফুল তুলে দেন ট্রাফিক বিভাগের সদস্যরা। একইসাথে সার্জিক্যাল মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজারও বিতরণ করেন তারা। জানতে চাইলে নীলফামারী জেলা পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের শহর ও যানবাহন পরিদর্শক নাহিদ পারভেজ চৌধুরী সংগ্রাম বলেন, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের উৎসাহ দিতে এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এতে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে এ উদ্যোগ অনেক উৎসাহ দেবে। এ সময় নীলফামারী ট্রাফিক বিভাগের শহর ও যানবাহন পরিদর্শক জ্যোতির্ময় রায়, ট্রাফিক পুলিশ সার্জেন্ট মো. আশরাফ কোরাইশি উপস্থিত ছিলেন। ট্রাফিক বিভাগের এমন উদ্যোগ গোটা জেলায় সর্বমহলে ব্যাপক প্রশংসিত হয়েছে। তাদের উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন জানিয়েছেন শিক্ষক অভিভাবক ও সুধীজন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here