তালার জালালপুরে স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমার্থকদের উপর হামলা : আহত ৫

0
24

তালা (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি :
সাতক্ষীরার তালা উপজেলার জালালপুর ইউনিয়নে নৌকা প্রার্থীর সমর্থকদের বিরুদ্ধে আনারস প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকদের উপর হামলার অভিযোগ উঠেছে। এ হামলায় দোকান ঘর ভাঙচুরসহ ৫ জনকে পিটিয়ে আহত করা হয়েছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলার জালালপুর ইউনিয়নের আটুলিয়া বাজারে এঘটনা ঘটে। আহতরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
আহতরা হলেন, আটুলিয়া গ্রামের মশিয়ার সরদার (৩৬), দোহার গ্রামের সাইদ গোলদার (৪০) একই গ্রামের রবিউল ইসলাম সানা (৩৭), গোলদার আবু সাইদ (৪২)। এছাড়া আহত আটুলিয়া গ্রামের ময়নুর মোড়ল (৩০) প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়িতে রয়েছেন।
আহত মশিয়ার সরদার বলেন, সন্ধ্যায় রবিউলের দোকানে চা খেতে যান তিনি। এসময় মকবুল বেয়ারা, সাদেক ও মোশারফের নেতৃত্বে ২০/২৫ জন নৌকা প্রার্থীর কর্মী সমার্থক সংঘবদ্ধ হয়ে রবিউলের দোকানের সামনে রাস্তার উপর সমবেত হয়। এসময় তারা রাস্তার উপর ঝুলানো আনারস প্রতিকের ব্যানার ও পোষ্টার ছিড়ে ফেলে দেয়। পরে কোন কিছু বুঝে উঠার আগেই রবিউলের দোকানে হামলা করে। তারা রবিউলকে লোহার হাতুরি,রড দিয়ে বেধড়ক পিটাতে থাকে। তিনি দোকানি রবিউলকে ঠেকাতে গেলে তাকেও পিটিয়ে আহত করেন তারা। এ সময় বাজারে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।
দোকানদার রবিউল ইসলাম সানা জানান, তাকে পিটিয়ে আহত করে বাজারে দোহার গ্রামের সাইদ গোলদার, গোলদার আবু সাইদ ও আটুলিয়া গ্রামের ময়নুর মোড়লকে পিটিয়ে আহত করে তারা।
আনারস প্রতিকের স্বতন্ত্র প্রার্থী এম মফিদুল হক লিটু জানান, এলাকায় নৌকা মার্কার প্রার্থীর কোন জনসমার্থন নেই। গত নির্বাচনেও তিনি পরাজিত হয়েছিলেন। এবারও নিশ্চিত পরাজয় যেনে প্রার্থীর সন্ত্রাসী-ক্যাডাররা মঙ্গলবার সন্ধ্যায় আটুলিয়া বাজারে তার কর্মী সমর্থকদের উপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে ভাংচুর,লুটপাট ও আতঙ্ক ছড়িয়ে ত্রাস সৃষ্টি করে। এছাড়া রাতের আধারে তার পোষ্টার, ব্যানার ছিড়ে ফেলা হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি। এছাড়া প্রতিদিন ক্যাডার বাহিনী মটর সাইকেল মহড়া দিয়ে শান্ত এলাকাকে অশান্ত করে ত্রাস সৃষ্টি করছেন বলেও অভিযোগ করেন তিনি। সর্বশেষ ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে তিনি ঘটনায় জড়িতদের চিহ্নিতপূর্বক শাস্তির দাবি ও নির্বাচন পূর্ববর্তী এলাকায় শান্তি শৃংখলা বজায় রাখতে প্রশাসনের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।
এদিকে অভিযোগ অস্বীকার করে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও নৌকা মার্কার প্রার্থী রবিউল ইসলাম মুক্তি জানান, নিশ্চিত পরাজয় জেনে স্বতন্ত্র প্রার্থী এম মফিদুল হক লিটুর কর্মী সমার্থকরা নিজেরাই এহেন পরিস্থিতি সৃষ্টি করে নৌকার কর্মী-সমর্থদের উপর মিথ্যা দোষ চাপানোর অপচেষ্টা চালাচ্ছে। তার কর্মী-সমর্থকেরা শান্তি পূর্ণভাবে ভোটারদের কাছে ভোট প্রার্থনা করছে। তার কর্মী-সমর্থকরা মহড়া দেয়নি বা কারোর উপর কোন প্রকার হামলার সাথে জড়িত নয় বলেও দাবি তার।
তালা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মেহেদী রাসেল জানান, এঘটনার খবর শুনে থানা পুলিশ এলাকা পরিদর্শন করেছে এবং আইনশৃঙ্খলা স্বাভাবিক রাখা হয়েছে। তবে এখনো কোন অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলে তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here