সৈয়দপুর শিল্প সাহিত্য সংসদের উপ-নির্বাচন নিয়ে দুই পক্ষ মুখোমুখি অবস্থানে

0
48

মিজানুর রহমান মিলন সৈয়দপুর :
নীলফামারীর সৈয়দপুরে ঐতিহ্যবাহী শিল্প সাহিত্য সংসদের সাধারণ সম্পাদক পদে আগানিকালের (৩১মে) উপ-নির্বাচনকে কেন্দ্র করে মুখোমুখি অবস্থানে রয়েছে সংগঠণটির সদস্যদের দু’টি পক্ষ। একটি পক্ষ ওই উপ-নির্বাচন অগণতান্ত্রিক ও অবৈধ দাবি করে তা বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছে।

শিল্প সাহিত্য সংসদের সদস্যদের একাংশ আজ রবিবার বিকেলে শহরের শেরে বাংলা সড়কের সংগঠনের নিজস্ব কার্যালয়ের সামনে ওই কর্মসুচি পালন করে। সমাবেশে বক্তব্য বলেন সংগঠনটির সাবেক সভাপতি সাংবাদিক লায়ন আমিনুল হক, সদস্য ও সৈয়দপুর সরকারি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ অধ্যাপক মো. সাখাওয়াৎ হোসেন, রুহুল আলম মাষ্টার,আব্দুল খালেক ও গোলাম রুবায়েত মিন্টু প্রমূখ। ওই সমাবেশ থেকে কাল সোমবার অনুষ্ঠিতব্য সৈয়দপুর শিল্প সাহিত্য সংসদের উপ-নির্বাচন প্রতিরোধের ঘোষণা দেয়া হয়।
এর আগে ওই পক্ষটি আজ রবিবার বেলা দুইটায় নীলফামারী জেলা শহরের জোড়দরগায় আখতারুল হাবিব প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে সংবাদ সম্মেলন করে। এতে জানানো হয়, সৈয়দপুর শিল্প সাহিত্য সংসদটি একটি ঐতিহ্যবাহী ও প্রাচীনতম সংগঠন। এর সদস্য সংখ্যা ১১০জন। এখানে শহরের রাজনীতিবিদ, চিকিৎসক, সাংবাদিক,শিক্ষক কবি-সাহিত্যিক, শিল্পী, সুশীল সমাজের লোকজন সংগঠনটির সদস্য। তিন বছর মেয়াদী ১৮ সদস্যের কার্যকরী কমিটির মাধ্যমে পরিচালিত হয়ে আসছে সংগঠনটি। চলতি বছরের ১৪ জানুয়ারী এ সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক ও সৈয়দপুর পৌরসভার মেয়র আমজাদ হোসেন সরকারের মৃত্যুতে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদকের পদটি শূন্য হয়ে পড়ে। ফলে গঠনতন্ত্র মতে পদটি শূন্য হওয়ার ৪৫ দিনের মধ্যে উপ-নির্বাচন হওয়ার কথা। এতে ব্যর্থ হলে সংগঠনের সাধারণ সভার মাধ্যমে নির্বাচনের সময় বাড়াতে হবে। কিন্তু বর্তমানে সংগঠনের দায়িত্বপ্রাপ্তরা ব্যর্থ হয়েছেন তাতে। তারা সংগঠনের গঠনতন্ত্র মােতাবেক নির্বাচন করতে না পেরে সাড়ে চার মাস পর অগণতান্ত্রিক ও অবৈধ উপ-নির্বাচন ঘোষণা করেন। এতে সংগঠনের ১১০ জন সদস্যের মধ্যে ৬০ জন আপত্তি তুলেন। পরবর্তীতে এ সংক্রান্ত আদালতে মামলা দায়ের হলেও দায়িত্বপ্রাপ্তরা উপ নির্বাচন করা নিয়ে অটল থাকেন। সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, বর্তমানে প্রাণঘাতী মহামারি করোনাকালীন লকডাউন উপেক্ষা করে সোমবার উপ-নির্বাচনের ভোট গ্রহনের আয়োজন করা হয়েছে। সংবাদ সম্মেলন থেকে অগণতান্ত্রিক ও অবৈধ নির্বাচন বন্ধ রাখার দাবি জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠসহ সাংবাদিক বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন সংগঠনটির সাবেক সভাপতি সাংবাদিক লায়ন আমিনুল হক, সদস্য ও কামারপুকুর ডিগ্রি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ আব্দুল গফুর সরকার, সৈয়দপুর সরকারি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ অধ্যাপক সাখাওয়াৎ হোসেন খোকন, সৈয়দপুর পৌরসভার কাউন্সিলর জোবায়দুল ইসলাম মিন্টু, এম এ পারভেজ লিটন প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here