৬০% পোশাক কারখানার শ্রমিক বেতন পাননি

0
18

চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামীকাল বুধবার অথবা পরের দিন বৃহস্পতিবার পবিত্র ঈদুল ফিতর উদ্‌যাপিত হবে। তবে তৈরি পোশাক ও বস্ত্র খাতের ৬০ শতাংশ কারখানার শ্রমিকেরা গত মার্চ মাসের বেতন গতকাল সোমবার বিকেল পর্যন্ত পাননি। ঈদের উৎসব ভাতা বা বোনাস পাননি ১৪ শতাংশ কারখানার শ্রমিক।

শিল্প পুলিশ বলছে, সাভার-আশুলিয়া, গাজীপুর, চট্টগ্রাম, নারায়ণগঞ্জ, ময়মনসিংহ, খুলনা, কুমিল্লা ও সিলেটের তৈরি পোশাক ও বস্ত্র খাতের ২ হাজার ৫৩৪ কারখানার মধ্যে গতকাল পর্যন্ত ১ হাজার ৯টি মার্চের বেতন দিয়েছে। উৎসব ভাতা পরিশোধ করেছে ২ হাজার ১৮৩ কারখানা। যদিও কারখানার মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ, বিকেএমইএ ও বিটিএমএর শীর্ষ নেতাদের দাবি, বেতন ও উৎসব ভাতা নিয়ে বড় কোনো সমস্যা নেই। আজ মঙ্গলবারের মধ্যে সব কারখানা বেতন-ভাতা পরিশোধ করবে।

কয়েকজন শ্রমিকনেতা বলেন, কয়েক বছর আগেও পোশাক খাতের শ্রমিকদের বেতন ও উৎসব ভাতা পরিশোধের জন্য সময়সীমা বেঁধে দিত শ্রম মন্ত্রণালয়। তবে মালিকপক্ষের চাপে এখন আর সেটি করা হয় না। শুধু বলা হয়, ঈদের ছুটির আগে বেতন-ভাতা দিতে হবে। এতে শেষ মুহূর্তে বেতন-ভাতা নিয়ে কিছু কারখানায় জটিলতা হলেও কিছু করার থাকে না। তখন শ্রমিকদের কারও কারও ঈদ নিরানন্দ হয়।

শিল্প পুলিশ সাভার-আশুলিয়া, গাজীপুর, চট্টগ্রাম, নারায়ণগঞ্জ, ময়মনসিংহ, খুলনা, কুমিল্লা ও সিলেটের তৈরি পোশাক, বস্ত্রকল, পাটকলসহ বিভিন্ন খাতের ৯ হাজার ৪৬৯টি শিল্পকারখানা তদারক করে থাকে। তারা বলেছে, গতকাল বিকেল ৫টা পর্যন্ত ৪৯ শতাংশ কারখানা মার্চের বেতন পরিশোধ করেছে। আর উৎসব ভাতা পরিশোধ করেছে ৮১ শতাংশ কারখানা। বেতন-ভাতা দিয়ে গতকাল পর্যন্ত ২ হাজার ৯৮৪টি কারখানা ঈদের ছুটি দিয়েছে। সব মিলিয়ে এখন পর্যন্ত ৩ হাজার ৩৮১ কারখানায় ছুটি হয়েছে।

শিল্প পুলিশ জানায়, তাদের তদারকির মধ্যে থাকা বিজিএমইএর সদস্য ১ হাজার ৫৬১টি পোশাক কারখানার মধ্যে ৯২০টি বা ৫৯ শতাংশ গতকাল পর্যন্ত মার্চের বেতন পরিশোধ করেনি। আর উৎসব ভাতা দেয়নি ১৮১টি কারখানা।

রপ্তানিমুখী পোশাক কারখানার মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএর সভাপতি এস এম মান্নান বলেন, ‘যেসব কারখানায় বেতন-ভাতা পরিশোধ নিয়ে অনিশ্চয়তা সৃষ্টি হয়েছিল, সেগুলোর সমস্যা আমরা সমাধান করেছি। মিরপুরের একটি কারখানার মেশিন (যন্ত্রপাতি) বিক্রি করে আমরা শ্রমিকদের বেতন-ভাতা দিয়েছি।’ এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, যেসব কারখানা বেতন-ভাতা দেয়নি, তারা মঙ্গলবার পরিশোধ করবে।

নিট পোশাকশিল্পের মালিকদের সংগঠন বিকেএমইএর সদস্য ৬২৬ কারখানার মধ্যে ৬৯ শতাংশ গতকাল পর্যন্ত বেতন পরিশোধ করেনি বলে জানায় শিল্প পুলিশ। তারা বলেছে, এই সংগঠনের ১৪৪ কারখানা উৎসব ভাতা দেয়নি। বিকেএমইএর নির্বাহী সভাপতি মোহাম্মদ হাতেম গতকাল বিকেলে বলেন, মঙ্গলবারের মধ্যে সব কারখানা বেতন-ভাতা দিয়ে ছুটি দেবে।

পাটকলে চিত্র ভিন্ন। শিল্প পুলিশের তদারকির মধ্যে থাকা ৯২ পাটকলের মধ্যে ৮২টিতে গতকাল পর্যন্ত বেতন পরিশোধ করা হয়েছে।

বাংলাদেশ গার্মেন্টস অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক বাবুল আখতার বলেন, ঈদের আগে বেতন-ভাতা পরিশোধের বিষয়ে শ্রম আইন কিংবা বিধিমালায় স্পষ্ট কিছু নেই। এই আইনি জটিলতা ও কিছুসংখ্যক মালিকের খামখেয়ালিপনার কারণে শ্রমিকদের একধরনের অনিশ্চয়তার মধ্যে থাকতে হয়।-প্রথম আলো

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here