বেনাপোল বন্দর দিয়ে ভারতে গেলো ৭১.১ মে: টন ইলিশ

0
145

শেখ কাজিম উদ্দিন, বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি : বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে ভারতে গেলো ৭১.১ মে:টন ইলিশ। বন্ধু রাষ্ট্র ভারতের সনাতন ধর্মাবলম্বীদের আসন্ন দুর্গাপূজা উপলক্ষে বাংলাদেশ সরকারের অনুমোদন দেওয়া ৩৯৫০ মেট্রিক টন ইলিশের মধ্যে বুধবার বিকেলে ১২টি কাভার্ডভ্যানে রপ্তানি হলো ৭১.১ মেট্রিক টনের এই ইলিশের চালান। আগামী ২০ অক্টোবরের মধ্যে বাকি ইলিশের চালান পর্যায়ক্রমে ভারতে পৌঁছাবে। প্রতি কেজি ইলিশ ১০ ডলারে রপ্তানি করা হচ্ছে। যা বাংলাদেশী টাকায় ১১০১ টাকা। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বেনাপোল ফিসারীজ কোয়ারেন্টাইন স্টেশন কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান। এ বিষয়ে বানিজ্য মন্ত্রনালয়ের চিঠিতে বলা হয়েছে, আসন্ন দূর্গাপূজা উপলক্ষে ইলিশ মাছ রপ্তানির বিষয়ে পাওয়া আবেদনগুলো যাচাই-বাছাই করে শর্ত সাপেক্ষে ৭৯টি প্রতিষ্ঠানের প্রত্যেককে ৫০ মে:টন করে সর্বমোট ৩৯৫০ মে:টন ইলিশ রপ্তানির অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। তবে, রপ্তানির ক্ষেত্রে ৭টি শর্ত জুড়ে দেওয়া হয়েছে। ৭টি শর্তে- রপ্তানি নীতি ২০২১-২০২৪ বিধি বিধান অনুসরণ করতে হবে। শুল্ক কর্তৃক্ষের মাধ্যমে রপ্তানি অনুমতি পাওয়া পণ্যের কায়িক পরীক্ষা যথাযথভাবে করতে হবে। প্রতিটি চালান জাতিয়করণ শেষে রপ্তানি সংক্রান্ত সব কাগজপত্র ই-মেইল করতে হবে। অনুমোদিত পরিমানের চেয়ে বেশী রপ্তানি করা যাবে না। পণ্য চালান রপ্তানিকালে শুল্ক কর্তৃপক্ষ কাস্টম ডেটা সিস্টেম পরীক্ষা করে অনুমোদিত পরিমাণের অতিরিক্ত পণ্য রপ্তানি না করার বিষয়টি নিশ্চিত হবেন। এ অনুমতির মেয়াদ আগামী ২০ অক্টোবর পর্যন্ত কার্যকর থাকবে। তবে, সরকার মৎস আহরণ ও পরিবহণের ক্ষেত্রে কোনরুপ বিধি নিষেধ আরোপ করলে তা কার্যকর হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে এ অনুমতির মেয়াদ শেষ হবে। সরকার প্রয়োজনে যে কোনো ইলিশ রপ্তানি বন্ধ করতে পারবে। বেনাপোল ফিসারীজ কোয়ারেন্টাইন স্টেশন অফিসার মাহবুবুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, বুধবার থেকে ভারতে ৩৯৫০ মেট্রিক টন ইলিশ মাছ রপ্তানি’র অনুমোদন দিয়েছে সরকার। যার প্রথম চালানে ৭১.১ মেট্রিক টন ইলিশ ভারতে পাঠানো হয়েছে। বাকি ইলিশের চালান পর্যায়ক্রমে পৌঁছাতে থাকবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here