ফের বন্ধ রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র

0
89

খবর ৭১: আবারও বন্ধ হলো রামপাল তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্র। যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে শুক্রবার (১৫ সেপ্টেম্বর) রাত ১১ টার দিকে বিদ্যুৎকেন্দ্রটির উৎপাদন বন্ধ করে দেওয়া হয়। চালুর পর থেকে গত আট মাসে এ নিয়ে সাত বার বন্ধ করতে হলো বিদ্যুৎকেন্দ্রটি।
সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বিদ্যুৎকেন্দ্রটির ছাই নির্গমন প্রক্রিয়ায় ত্রুটির জন্য এবার এটি সাময়িক বন্ধ রাখা হয়েছে।
দেশের ক্রমবর্ধমান বিদ্যুতের চাহিদা মেটাতে যতগুলো বড় প্রকল্প নেওয়া হয়েছে তার মধ্যে বাগেরহাটের রামপালে এই তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্রটি অন্যতম। বাংলাদেশ- ভারত জয়েন্ট ভেঞ্চারে নির্মাণ করা ১৩২০ মেগাওয়াট উৎপাদন সক্ষমতার রামপাল তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্রের প্রথম ইউনিট উৎপাদন শুরু করে গত বছরের ১৫ আগস্ট থেকে। তখন পরীক্ষামূলক বিদ্যুৎ উৎপাদন শুরু করলেও এরপর ধাপে ধাপে বিভিন্ন লোডে ইউনিটটির উৎপাদনক্ষমতা পরীক্ষা করা হয়। গত বছরের ২৩ ডিসেম্বর থেকে প্রথম ইউনিটের বাণিজ্যিক উৎপাদন শুরু হয়।
উৎপাদনের পর থেকে কখনো কয়লা সংকট, কখনো কারিগরি ত্রুটি লেগেই আছে। জানা গেছে, এ নিয়ে গত আট মাসে সাত বার নানা কারণে সাময়িক বন্ধ রাখতে হয়েছে তাপবিদ্যুৎকেন্দ্রটি। চালুর পর গত ১৪ জানুয়ারি কয়লা সংকটের কারণে প্রথম সাময়িক বন্ধ ঘোষণা করা হয়। ওই সময় এক মাসের মতো বন্ধ রাখা হয়।

এর পর ২৩ এপ্রিল একই কারণে ১৫ দিন বন্ধ রাখা হয়, ৩০ জুলাই সাময়িক বন্ধ রাখা হয় ১৬ দিন। এভাবে প্রতি মাসে কখনো কয়লা সংকট, কখনো যান্ত্রিক ত্রুটিতে কোনো মাসে দুইবারও বন্ধ রাখতে হয়েছে। সবশেষও যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে ১৫ সেপ্টেম্বর রাত থেকে বন্ধ রাখা হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

এদিকে রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্রটির এমন বার বার বন্ধ রাখাকে স্বাভাবিক মনে করছে না বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি। প্রতিষ্ঠানটির এক কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে সারাবাংলাকে জানিয়েছেন, প্রতি মাসেই রানিং বিদুৎকেন্দ্র হঠাৎ বন্ধ ঘোষণা করতে হচ্ছে। এটা স্বাভাবিক হতে পারে না। কয়লা সংকট ভিন্ন বিষয়, কিন্তু চালুর পর থেকেই কারিগরি ত্রুটি কতবার হতে পারে?

তিনি বলেন, বিদ্যুৎকেন্দ্রটির প্রথম ইউনিটের যন্ত্রপাতিতে কিছু সমস্যা রয়েছে। সেজন্য এমন সমস্যায় পড়তে হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here