চিনির দাম আরেক দফা বাড়াল সরকার

0
100

খবর৭১ঃ

কিছু দিন ধরেই চিনির বাজারে চলছে অস্থিরতা। এর মধ্যে নিত্যপণ্যটির দাম আরেক দফা বাড়িয়েছে সরকার। প্রতি কেজিতে ১৬ টাকা বাড়িয়ে নতুন দাম অনুযায়ী খোলা চিনি বিক্রি হবে ১২০ টাকায়। আর পরিশোধিত প্যাকেটজাত চিনি বিক্রি হবে প্রতি কেজি ১২৫ টাকায়।

বৃহস্পতিবার বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম নিয়ন্ত্রক মোছা. শামীমা আকতার স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ সুগার রিফাইনার্স অ্যাসোসিয়েশনের আবেদন, এপ্রিল, ২০২৩ মাসের এলসি খোলা, ইনবন্ড মূল্য, আউটবন্ড মূল্য এবং অপরিশোধিত চিনির আন্তর্জাতিক বাজারদর বিবেচনায় নিয়ে অভিন্ন মূল্য নির্ধারণ পদ্ধতি অনুসরণ করা হয়। প্রাপ্ত বিশ্লেষণ ব্যবসায়ী নেতাদের উপস্থিতিতে অংশীজন সভায় উপস্থাপন করা হয়।

মন্ত্রণালয় বলছে, বাজারে চিনির নিরবচ্ছিন্ন সরবরাহ বজায় রাখা, সাধারণ ভোক্তার ক্রয়ক্ষমতা ও ব্যবসায়ীদের স্বার্থ বিবেচনায় বিটিটিসি কর্তৃক প্রতি কেজি পরিশোধিত চিনি (খোলা) মিলগেট মূল্য ১১৫ টাকা, পরিবেশক মূল্য ১১৭ টাকা এবং খুচরা মূল্য ১২০ টাকা এবং প্রতি কেজি পরিশোধিত চিনি (প্যাকেট) মিলগেট ১১৯ টাকা, পরিবেশক মূল্য ১২১ টাকা এবং খুচরা মূল্য ১২৫ টাকা নির্ধারণ করার বিষয়ে সুপারিশ করা হয়।

এর আগে বুধবার (১০ মে) বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে এক সভা শেষে বাণিজ্য সচিব (সিনিয়র সচিব) তপন কান্তি ঘোষ ট্যারিফ কমিশনের সুপারিশ অনুযায়ী চিনির দাম বাড়ানোর প্রস্তাবের কথা জানিয়েছিলেন।

তপন কান্তি ঘোষ বলেন, আন্তর্জাতিক বাজারে অপরিশোধিত চিনির দাম ও ডলারের মূল্য বৃদ্ধি পাওয়ায় চিনির আমদানি কমেছে। গত কয়েকদিন আগে বাংলাদেশ সুগার রিফাইনার্স অ্যাসোসিয়েশন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে চিঠি দিয়ে দাম সমন্বয় করার অনুরোধ জানালে বাংলাদেশ ট্রেড অ্যান্ড ট্যারিফ কমিশনকে এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিতে বলা হয়। এরপর ট্যারিফ কমিশনের সুপারিশ অনুযায়ী খোলা চিনি প্রতি কেজি ১২০ টাকা ও প্যাকেটজাত চিনি প্রতি কেজি ১২৫ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। এই দামে চিনি বিক্রির জন্য বাংলাদেশ সুগার রিফাইনার্স অ্যাসোসিয়েশনকে মন্ত্রণালয় থেকে চিঠি দিয়ে জানানো হয়েছে। তবে তারা আমাদেরকে এ বিষয়ে এখনো কিছু জানায়নি।

বাণিজ্য সচিব বলেন, চিনির জন্য শুল্কহার এখনো বলবৎ রয়েছে। এটা ৩১ মে শেষ হবে। চিনির জন্য শুল্কহার অব্যাহত রাখার জন্য আমরা জাতীয় রাজস্ব বোর্ড-এনবিআরকে চিঠি পাঠাবো। যেহেতু চিনির দাম বৃদ্ধি পেয়েছে, এজন্য আমরা শুল্কহার আরও কমানোর জন্য সুপারিশ করবো।

এর আগে চলতি বছরের ১৭ এপ্রিল ও ২ মে বাংলাদেশ সুগার রিফাইনার্স অ্যাসোসিয়েশন চিনির দাম বাড়াতে বিটিটিসিকে চিঠি দেয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here