বিজয় উৎসবে মাতোয়ারা আরব আমিরাতের প্রবাসীরা

0
88

খবর৭১ঃ সংযুক্ত আরব আমিরাতের শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বিজয় উৎসবে মেতেছিলেন বাংলাদেশি প্রবাসীসহ হাজার হাজার দর্শক। নাচে গানে ছন্দে মাতিয়ে তুলেছেন দুই বাংলার শিল্পীরা। বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী এবং মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে দুবাইয়ের বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল এর আয়োজনে এবং বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক বিষয়ক মন্ত্রণালয় ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় দেশের বাইরে স্মরণকালের সবচেয়ে বড় এই বিজয় উৎসব অনুষ্ঠিত হয়। শনিবার(১৮ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় বিজয় উৎসবে দুবাই কনস্যুলেটের কনসাল জেনারেল বিএম জামাল হোসেনের স্বাগতিক বক্তব্যের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়৷

দুপুর ৩ টার পরপরই প্রবাসী বাংলাদেশিরা দলে দলে আসতে শুরু করেন ঐতিহ্যবাহী শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে৷ বিকাল ৪ টায় স্টেডিয়ামের ফটক উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়৷ সন্ধ্যা হতে না হতেই কানায় কানায় পরিপূর্ণ হয়ে যায় পুরো স্টেডিয়ামের গ্যালারি ও মাঠের নির্ধারিত স্থান।

বিজয় জয় উৎসবে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।সংযুক্ত আরব আমিরাতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ আবু জাফর, ভার্সেটাইলো গ্রুপের চেয়ারম্যান ড. কামরুল আহসান, দুবাইয়ের শাসক পরিবারের পক্ষ থেকে ছিলেন ফুত্তাইম বিনত মাকতুম বিন রাশিদ আল মাকতুম, শারজার শাসক পরিবারের সদস্য শেখ আহমদ সাকর রাশিদ আহমদ আল কাসিমি, বাহরাইনের শাসক পরিবারের সদস্য শেখ আহমদ খলিফা বিন মোবারক আল খলিফা, মালয়েশিয়ার মেলাকা স্টেটের প্রধান ড. হাজি মুহাম্মদ আলি মুহাম্মদ রুস্তুম, সচিব কেএম আলি আযম, সচিব তপন কান্তি ঘোষ, উপ-সচিব সাবিনা পারভিন ও দুবাই কনস্যুলেটের ডেপুটি কনসাল শাহেদুল ইসলাম, ভার্সেটাইলো লন্ডন ডাব্লিউ এল এল এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক দিল আফরোজসহ আমিরাত সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, আমিরাতে নিযুক্ত বিভিন্ন দেশের দূতাবাস-কনস্যুলেটের রাষ্ট্রদূত,, কনসাল জেনারেল, কূটনীতিক, স্থানীয় সাংবাদিক ও প্রবাসী কমিউনিটির ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত হওয়ার কথা থাকলেও সাকিব আল হাসান অংশ নিতে পারেননি। তিনি টেলিকনফারেন্সের মাধ্যমে সবাইকে সালাম ও অভিনন্দন জানান।

ঢাকাইয়া চলচিত্রের জনপ্রিয় জুটি ফেরদৌস ও পূর্ণিমার উপস্থাপনায় দুই বাংলার শিল্পীরা একের পর এক মনমুগ্ধকর পরিবেশনায় মাতিয়ে রাখেন পুরো শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়াম। উপস্থাপনায় আরও ছিলেন জাবেদ, শান্তা ও সুবর্না। নাচে-গানে মাতিয়েছেন জনপ্রিয় ফোক শিল্পী ও সংসদ সদস্য মমতাজ বেগম। তার গানের সঙ্গে নেচেছেন উপস্থিত হাজার হাজার দর্শকও।

শুরুতেই দেশের প্রথম সারির মডেল ও নৃত্যশিল্পী সাদিয়া ইসলাম মৌ এবং শিল্পকলা একাডেমির ডিরেক্টর রাকিবুল ইসলাম রতনের নেতৃত্বে একঝাঁক নৃত্যশিল্পী দুইদেশের সংস্কৃতি ভিত্তিক নৃত্য দিয়ে শুরু করেন। তারপর একে একে গান পরিবেশন করেন বিয়ানসাব খ্যাত গানের শিল্পী প্রতীক হাসান, কলকাতার শিল্পী মৌসুমি, শিল্পী শিমু দে, দেশের জনপ্রিয় শিল্পী শমির বাউল

এক পর্যায়ে ভারতের জনপ্রিয় অভিনেত্রী শ্রীলখা মিত্র ও বাংলাদেশের অভিনেতা ফেরদৌস গানের সঙ্গে নাচ পরিবেশন করে ফেরদৌস।

বিজয় উৎবে বক্তারা বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সোনার বাংলা বিনির্মাণে প্রবাসীদের ভুমিকার কথা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সব সময় মনে রাখেন৷  প্রবাসীদের সঙ্গে বিজয়ের আনন্দ ভাগাভাগি করতেই শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এই আয়োজন।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here