বিশ্বের সবচেয়ে কঠিন’ পরীক্ষায় চীনের ১ কোটি ৩৪ লাখ শিক্ষার্থী

0
12

‘বিশ্বের সবচেয়ে কঠিন’ পরীক্ষা কোনটি? এ প্রশ্নের উত্তর আসলে খুব সহজ নয়। তবে অনেকের মতে, চীনে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষাই ‘বিশ্বের সবচেয়ে কঠিন’ পরীক্ষা।

‘গাওকাও’ নামে পরিচিত দুই দিনব্যাপী ন্যাশনাল কলেজ এনট্রান্স পরীক্ষাটিকেই ‘বিশ্বের বৃহত্তম একাডেমিক পরীক্ষা’ বলছে চীনা রাষ্ট্রীয় মিডিয়া। শুক্রবার (৭ মে) ছিল এ বছরের ‘গাওকাও’র প্রথম দিন।

এতে শিক্ষার্থীদের বিষয়ভিত্তিক প্রতিটি দুই ঘণ্টার পরীক্ষায় অংশ নিতে হয়। এর মধ্যে রয়েছে— চীনা সাহিত্য, গণিত, ইংরেজি, পদার্থবিদ্যা, রসায়ন, রাজনীতি, ইতিহাস প্রমুখ।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন বলছে, চীনের অর্থনীতির গতি কিছুটা মন্থর হওয়ায় দেশটিতে তরুণদের স্নাতক করার সুযোগ কমেছে। ফলে চলতি বছর রেকর্ড ১ কোটি ৩৪ লাখ শিক্ষার্থীকে অংশ নিতে হচ্ছে ভীষণ প্রতিযোগিতামূলক এই পরীক্ষায়, যার মাধ্যমে তাদের ভবিষ্যৎ নির্ধারিত হতে পারে। গত বছর এই পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিল ১ কোটি ২৯ লাখ শিক্ষার্থী।

একজন শিক্ষার্থী একবারই এই পরীক্ষায় অংশ নিতে পারে। এই পরীক্ষায় যত ভালো স্কোর পাওয়া যায় শীর্ষস্থানীয় বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ভর্তির সম্ভাবনা তত বেশি।

এই পরীক্ষার জন্য ভোর ৬টাতেই বেইজিংয়ের রাস্তায় ট্রাফিক পুলিশকে ব্যস্ত সময় পার করতে দেখা যায়।

আরেক বড় শহর সাংহাইয়ের ট্যাক্সিস্ট্যান্ডগুলোতে এক সপ্তাহ আগে থেকেই পরীক্ষার্থীদের জন্য বুকিং গ্রহণ শুরু হয়।

চীনা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোও ‘গাওকাও’ নিয়ে নানা বার্তায় ভরে গেছে। ‘এক্সে’ সবচেয়ে বেশি খোঁজা হচ্ছে ‘গাওকাও’।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here