ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত রাস্তার কাজ ঈদের আগে শেষ করার নির্দেশ

0
14

মফস্বলে ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত রাস্তার কাজ ঈদের সাত দিন আগে শেষ করার নির্দেশ দিয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।
বৃহস্পতিবার (৩০ মে) সকালে বনানীর বিআরটিএ’র সদর কার্যালয়ে পবিত্র ঈদ উল আযহা উপলক্ষে সড়ক পথে যাত্রা নির্বিঘ্ন ও নিরাপদ করতে আয়োজিত প্রস্তুতি সভায় তিনি এ নির্দেশনা দেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, শুধু যানজট আর দুর্ঘটনা এইটাই মূল সমালোচনা। এবারও আমার মনে হয় বেশ কিছু রাস্তা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। হাইওয়েতে কোন অসুবিধা নেই, মফস্বলে কিছু সমস্যা হয়েছে। সাত দিন আগে সংস্কার কাজ শেষ করতে হবে। এটা আবশ্যক। পশুর হাটের ব্যাপারে, পশুবাহী গাড়ির ব্যাপারে বাড়তি মনোযোগ দিতে হবে। ঈদুল আযহায় এটা দরকার পড়ে।
গাজীপুরে এখন আর বিআরটি প্রজেক্টের জন্য সমস্যা সৃষ্টি করে না জানিয়ে তিনি বলেন, এরমধ্যে সাতটা ফ্লাইওভার উম্মুক্ত করে দিয়েছি। যান চলাচল স্বাভাবিক। সমস্যা হয় গার্মেন্টস শ্রমিকরা ঘরমুখী হলে। চন্দ্রাতে সমস্যাটা বেশি হয়। যানবাহন প্রয়োজনের তুলনায় কম থাকে। হাজার হাজার শ্রমিক রাস্তায় হাটে। এই বিষয়টার ব্যাপারে বিশেষভাবে মনোযোগ দিতে হবে।

সেতুমন্ত্রী বলেন, সিএনজি স্টেশনগুলো ঈদের ৭ দিন আগে থেকে এবং ৫ দিন পর পর্যন্ত সারাদিন খোলা থাকবে। এ সময় নো হেলমেট, নো ফুয়েল। মন্ত্রী এমপির লোক বলেও যেন কেউ পার না পায়।
ওবায়দুল কাদের বলেন, রোজার ঈদের আগে তেমন কোন দুর্ঘটনা ঘটেনি, তবে ঈদের পর অনেক দুর্ঘটনা ঘটেছে। ঈদ পরবর্তী নজরদারি কমানোর কারণে সড়কে দুর্ঘটনা বেড়ে যায়। হেলপার যেন ড্রাইভার না হয় এই খেয়াল রাখতে হবে। বিশেষ করে দূরের যাত্রায়।

তিনি বলেন, গাড়ির ফিটনেস ঠিক রাখতে হবে। লক্কড় ঝক্কর গাড়িতে রং দিয়ে লাভ নেই। ঈদ যাত্রায় অতিরিক্ত ভাড়া না নিতে পারে এই বিষয়ে পরিবহন মালিকদের আহ্বান জানাই। মেয়র হানিফ ফ্লাইওভারে সব সময় যানজট লেগে থাকে, জনস্বার্থে তা সমাধান করতে হবে। ঈদে পোশাক কারখানা ছুটি দিলে যানজটের সৃষ্টি হয়, এ বিষয়ে বিশেষভাবে নজর দিতে হবে।
কাদের বলেন, এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের সাথে ঈদের কোন সম্পর্ক নেই। সহায়ক শক্তি মাত্র। যাত্রী কল্যাণ সমিতির কোন লাইসেন্স নেই। তারা যা দুর্ঘটনা হয় তার চেয়ে বেশি তিনগুণ তুলে ধরে। অফিসে অফিসে গিয়ে চাঁদা না পেলে তারা এসব কাজ করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here