হিজাব খুলতে বাধ্য করা মেডিকেলের সেই সহকারী অধ্যাপক ওএসডি

0
31

মানিকগঞ্জে কর্নেল মালেক মেডিকেল কলেজের গাইনি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. প্রতিমা রানী বিশ্বাসকে কলেজের একাডেমিক কার্যক্রম থেকে প্রত্যাহারের পর এবার ওএসডি করা হয়েছে।

তার বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীর হিজাব খুলতে বাধ্য করাসহ ইসলাম বিদ্বেষী মনোভাব নিয়ে ক্লাশে শিক্ষার্থীদের দাড়ি, টুপি-পাঞ্জাবি, বোরকা, হিজাব নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করার অভিযোগ রয়েছে।

স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবারকল্যাণ বিভাগ পারসোনাল-১ শাখার উপসচিব দূর-রে- শাহওয়াজ স্বাক্ষরিত এক পত্রে জানানো হয়েছে, বিসিএস স্বাস্থ্য ক্যাডারের কর্মকর্তা সহকারী অধ্যাপক ডা. প্রতিমা রানী বিশ্বাসকে ওএসডি করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে ন্যস্ত করা হয়েছে। গতকাল শনিবার এই আদেশ জারি করা হয়।

উপসচিব দূর-রে-শাহওয়াজ ওই পত্রে জানান, পদায়ন করা ওই কর্মকর্তা আগামী তিন কর্মদিবসের মধ্যে নতুন কর্মস্থলে যোগদান না করলে চতুর্থ কর্মদিবসে স্ট্যান্ড রিলিজ বলে গণ্য হবে।

এ সংক্রান্ত সংবাদ প্রকাশের পর মেডিকেল কলেজ কর্তৃপক্ষ জরুরি বৈঠক আহ্বান করে তাকে কলেজের একাডেমিক কার্যক্রম থেকে প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নেয়। এ ছাড়া অভিযুক্ত সহকারী অধ্যাপক ডা. প্রতিমা রানী বিশ্বাসের ওএসডির চিঠি শনিবার রাতেই তিনি পেয়েছেন বলে নিশ্চিত করেছেন কলেজটির অধ্যক্ষ ডা. জাকির হোসেন।

মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. জাকির হোসেন জানান, অভিযুক্ত সহকারী অধ্যাপক ডা. প্রতিমা রানী বিশ্বাসের ওএসডির চিঠি শনিবার রাতেই তিনি পেয়েছেন।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত ডা. প্রতিমা রানী বিশ্বাস ওএসডির বিষয়টি স্বীকার করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here