ঠাকুরগাঁওয়ে জমি ও গাছ জবরদখল কে কেন্দ্র করে একটি পরিবারকে মারপিটের অভিযোগ!

0
20

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি : ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার ১৩নং গড়েয়া ইউনিয়নের আরাজী মাটিগাড়া এলাকার এম,এস আব্দুর রহিম ও তার পরিবারের উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে। ঘটনার পর থেকে আতংকে রয়েছেন পরিবারটি।
এ বিষয়ে আব্দুর রহিম বাদী হয়ে ঠাকুরগাঁও বিজ্ঞ অতিরিক্ত চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলী আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা সুত্রে জানা যায়,আব্দুর রহিম দর্জি বিজ্ঞান কলেজের একজন ট্রেইলার। কাজের কারণে ঠাকুরগাঁও শহরে অবস্থান করেন তিনি। তার পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা গ্রামের বাড়ীতে থাকেন। সেই সুযোগে ঐ এলাকার আসামী ১.আইনুল হক(৩৫),২.মফিজ উদ্দীন (৬৫),আনারুল(৩০),৪,মোঃ মাসুম(২৫),৫.মোছাঃ চানু(৩০) আব্দুর রহিমের গ্রামের বাড়ীর জমি ও গাছপালা গায়ের জোড়ে দখল করার অপচেষ্টা করে। তারই সুত্র ধরে ঘটনার দিন অর্থাৎ গত ১৭/০২/২০২১ তারিখ বুবার সকাল ১০টা হতে বেলা ১টা পর্যন্ত সময় ধরে উপরোক্ত আসামীগন দলবদ্ধ হয়ে আব্দুর রহিমের ৬টি ইউক্লিপটাস গাছ কেটে ফেলে। এই ঘটনা আব্দুর রহিমের মা দেখার পরে প্রতিবাদ করতে গেলে তাকে মারপিট ও লান্চিত করা হয়। পরে আব্দুর রহিমের বোন কোনও উপায় না পেয়ে ৯৯৯ নাম্বারের মাধ্যমে পুলিশকে খবর দেন। পরে ঘটনা স্থলে পুলিশ আসার খবর পেয়ে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়।
একই ভাবে গত ৯/০৬/২০২১ তারিখে এ ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটে।

সুপারী গাছের চাড়া তুলাকে কেন্দ্র করে আব্দুর রহিমের ছেলে আতিক ফয়সাল (প্রতিবন্ধী) প্রতিবাদ করতে গেলে তাকে ধাক্কা দিয়ে মাটিতে ফেলে দেয়। সে সময় ফয়সালকে প্রাণনাশের হুমকি দেয় সন্ত্রাসীরা। তখন স্থাণীয়রা তাকে সেখান থেকে সরিয়ে নেয়। এ ঘটনায় আতিক ফয়সাল (২৩) কোন উপায় না পেয়ে বাদী হয়ে ঠাকুরগাঁও বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি মামলা দায়ের করে।

এ ঘটনায় ১৩নং গড়েয়া ইউপি চেয়ারম্যান রেজওয়ানুল ইসলাম বলেন, অভিযোগ পেলে বিষয়টি দেখব।
পরিবারের নিরাপত্তা ও মামলা সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে দোষিদের দৃষ্টান্ত মুলক স্বাস্তীর দাবি জানিয়েছেন আব্দুর রহিম ও তার পরিবার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here