বাগেরহাটে নেতাকর্মীদের হাতে জেলা বিএনপির আহবায়ক লাঞ্চিত

0
33
উপনির্বাচনে অংশ নেবে বিএনপি

বাগেরহাট প্রতিনিধি: জরুরীসভায় দাওয়াত না দেওয়ায় ক্ষুব্ধ নেতাকর্মীদের হাতে লাঞ্চিত হয়েছেন বাগেরহাট জেলা বিএনপির আহবায়ক এটিএম আকরাম হোসেন তালিম। সোমবার (৭ জুন) বিকেলে শহরের লোকাল বোড ঘাটস্থ জেলা বিএনপির আহবায়কের নিজ কার্যালয়ে এই অপ্রতিকর ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশের হস্তক্ষেপে নেতাকর্মীরা শান্ত হয়ে ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন।
বাগেরহাট পৌর বিএনপির সাবেক সভাপতি শাহেদ আলী রবি বলেন, বাগেরহাট জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটিতে ৩৪জন সদস্য রয়েছে। ২১ ডিসেম্বর এই কমিটি অনুমোদন হওয়ার পর থেকে আহবায়ক এটিএম আকরাম হোসেন তালিম দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করে যা-ইচ্ছে তাই করে বেড়াচ্ছেন। তার আচরণে বাগেরহাটে দলীয় শৃঙ্খলা ভেঙ্গে পড়েছে। জেলা কমিটির বিভিন্ন সভায় আহবায়ক এটিএম আকরাম হোসেন তালিম শুধুমাত্র তার নিজস্ব লোকজনকে নিয়ে সভা করেন। কোন সভায় আমাদের ডাকে না। শুধু আমরা নয় আহবায়ক কমিটির অন্তত ১৫জন সদস্যকে তিনি কখনও ডাকেন না।
তিনি আরও বলেন, সোমবার বিকেলে একটি জরুরীসভা ছিল। এই সভায় আমাদের কাউকে দাওয়াত দেয়নি সে। তাই আমরা অনেক নেতাকর্মী তালিম সাহেবের অফিসে যাই। দাওয়াত না দেওয়ার কারণ জানতে চাইলে তালিম সাহেব আমাদের সাথে খারাপ ব্যবহার করেন। এসব বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের ক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা তাকে ধাক্কা দেয়।
বাগেরহাট জেলা বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও আহবায়ক কমিটির সদস্য হাদিউজ্জামান হিরো বলেন, জিয়াউর রহমানের ৪০তম শাহাদাত বার্ষিকীসহ কোন সভায়ই আমাদের দাওয়াত দেওয়া হয়না। এমনকি আহবায়ক কমিটির যুগ্ন আহবায়ক নেয়ামুল নাছির আলাপ, সমশের আলী মোহনকেও দাওয়াত দেওয়া হয়না। আজকে (সোমবার) বিকেলের সভায়ও দাওয়াত দেওয়া হয়নি। কিন্তু নেতাকর্মীরা দলের টানে আকরাম হোসেন তালিমের কার্যালয়ে গেলে তিনি নেতাকর্মীদের উপর ক্ষেপে যায়। নেতাকর্মীরাও তার উপর চড়াও হয়। পরে ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
এসব বিষয়ে কথা বলার জন্য বাগেরহাট জেলা বিএনপির আহবায়ক এটিএম আকরাম হোসেন তালিমকে বারবার ফোন করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।
জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য সচিব মোজাফফর রহমান আলম বলেন, যেকোন সভায় কমিটির সকল সদস্যকে-ই দাওয়াত দেওয়া হয়। কিন্তু বেশিরভাগ সভায় তারা আসেননা। সোমবার বিকেলে হঠাৎকরে তারা একটি সভায় সকলে এসেছে। এসময় নিজেদের মধ্যে একটু ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে। তেমন কিছু হয়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here