মৃতের আঙুলের ছাপে পরিচয় শনাক্তের প্রযুক্তি আনল র‌্যাব

0
38

খবর৭১ঃ বেওয়ারিশ মরদেহ, অপরাধী কিংবা সন্দেহভাজন ব্যক্তিদের ‘আঙুলের ছাপ’ স্ক্যান করে পরিচয় নিশ্চিত করার প্রযুক্তি নিয়ে এসেছে এলিট ফোর্স র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)। ডিভাইসটিতে আঙুলের ছাপ দেয়া মাত্রই অনলাইনে সংযুক্ত সেই ডিভাইসের স্ক্রিনে পরিচয় নিশ্চিতে ছয় ধরনের তথ্যের অপশন আসবে। সেগুলোতে ক্লিক করলেই নির্দিষ্ট ব্যক্তির সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যাবে।

রবিবার সচিবালয়ে ‘অনলাইন আইডেনটিফিকেশন অ্যান্ড ভেরিফিকেশন সিস্টেম’ বা ওআইভিএস প্রযুক্তির উদ্বোধন করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

র‍্যাব বলছে, এই প্রযুক্তির মাধ্যমে সহজেই যেকোনো অপরাধীকে চিহ্নিত করা যাবে। র‌্যাবের টহল দলের কাছে এই প্রযুক্তি থাকবে।

অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, ‘এই প্রযুক্তির মাধ্যমে যে কাউকে শনাক্ত করা যাবে। এতে সহজেই পরিচয় নিশ্চিত করা যাবে। শুধু অপরাধী নয়, সাধারণের পরিচয়ও এর মাধ্যমে নিশ্চিত করা যাবে।’

জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব মোস্তাফা কামাল উদ্দীন বলেন, ‘অপরাধীরা তথ্য গোপন করে। এটি ফরেনসিক পরীক্ষার সর্বাধুনিক প্রযুক্তির ফলে সব ধরনের তথ্য সহজেই হাতের নাগালে পাওয়া যাবে। অপরাধীরা অপরাধ করতে পারবে; তবে লুকিয়ে রাখতে পারবে না। এর মাধ্যমে বেওয়ারিশ মরদেহের পরিচয় সহজেই চিহ্নিত করা সম্ভব হবে। ওআরভিএস হচ্ছে তথ্যপ্রযুক্তির সর্বোত্তম আইনসঙ্গত ব্যবহার।’

ওআইভিএসের সার্ভার সাপোর্ট করলে এটি পুলিশ বাহিনীর জন্য ব্যবহার করতে চান বলে অনুষ্ঠানে জানান পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বেনজীর আহমেদ।

র‍্যাবের মহাপরিচালক চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, ‘ওআইভিএস প্রযুক্তির মাধ্যমে পরিচয় নিশ্চিতের পাশাপাশি আইন-আদালতের কাজের প্রক্রিয়া সহজ হবে। এটি অপরাধ দমনে সফলভাবে ভূমিকা রাখবে।’

ট্রায়ালের সময় কয়েকজন মৃত ব্যক্তির পরিচয় এই ডিভাইসের মাধ্যমে উদ্ধার করা হয়েছে বলেও জানান র‍্যাবের প্রধান।

র‍্যাবের টিভিসি: ‘মৃত্যুঞ্জয়ী সাহসে মানুষের পাশে’

এ সময় র‍্যাবের শহীদ সদস্যদের আত্মত্যাগের স্মরণে ‘মৃত্যুঞ্জয়ী সাহসে মানুষের পাশে’ নামে একটি টিভিসি (বিজ্ঞাপন চিত্র) প্রকাশ করা হয়। এটি আজ থেকেই বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেলে সম্প্রচারিত হবে বলে র‌্যাবের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। এ পর্যন্ত ২৮ জন র‍্যাব সদস্য নিহত এবং ৫০০-এর বেশি সদস্য আহত হয়েছেন বলেও জানিয়েছে এলিট ফোর্সটি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here