আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় বললেন ধোনি

0
88
আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় বললেন ধোনি

খবর৭১ঃ

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দিলেন ভারতের সাবেক অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। শনিবার সন্ধ্যায় ইনস্টাগ্রাম পোস্টের মাধ্যমে ধোনি এই ঘোষণা দিয়েছেন। ইনস্টাগ্রামে ধোনি লিখেছেন, ‘ক্যারিয়ার জুড়ে আমাকে ভালোবাসা ও সমর্থন দেয়ার জন্য আপনাদের সকলকে ধন্যবাদ। ১৯ টা ২৯ মিনিট হতে আমাকে রিটায়ার্ড হিসেবে ধরে নিন।’

২০০৪ সালের ২৩ ডিসেম্বর চট্টগ্রামে বাংলাদেশের বিপক্ষে ওয়ানডে ম্যাচ খেলার মাধ্যমে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রবেশ করেছিলেন ধোনি। তিনি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সর্বশেষ ম্যাচ খেলেন গত বছরের জুলাইয়ে। বিশ্বকাপের ওই সেমিফাইনাল ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের কাছে হেরে বিদায় নিয়েছিল ভারত।

ধোনির অধিনায়কত্বে ২টি বিশ্বকাপ জিতেছে ভারত। একটি ২০০৭ সালে দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। অন্যটি, ২০১১ সালে বাংলাদেশ, ভারত ও শ্রীলঙ্কায় অনুষ্ঠিত ওয়ানডে বিশ্বকাপ। এছাড়া ২০১৩ সালে ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিও ধোনির অধিনায়কত্বে জিতেছিল ভারত। ধোনিই বিশ্বের একমাত্র অধিনায়ক যিনি আইসিসির তিন ধরনের শিরোপা জিতেছেন।

২০১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপের পর থেকেই ধোনিকে নিয়ে নিরন্তর জল্পনা। কবে তিনি অবসর গ্রহণ করবেন, তা নিয়ে প্রবল কৌতূহল। অথচ বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক নিজের অবসর নিয়ে একটি শব্দও খরচ করেননি এতদিন। হঠাৎ অবসর গ্রহণ করে সবাইকে চমকে দেবেন তিনি, তা ঘুণাক্ষরেও কেউ টের পাননি।

গত বছরের বিশ্বকাপের পর থেকেই শোনা যাচ্ছিল, ধোনি ২০২০ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলে অবসরে যেতে পারেন। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে বিশ্বকাপ পিছিয়ে গিয়েছে। আগামী বছর ভারতে হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। কিন্তু তার আগেই অবসরের ঘোষণা দিয়ে দিলেন ধোনি।

ধোনিকে শুধু ভারতীয় ক্রিকেটে নয়, বিশ্বের অন্যতম সেরা অধিনায়ক বলা হয়। ২০০৭ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে ধোনিকে অধিনায়ক করেছিল ভারত। ভারতীয় ক্রিকেটের ইতিহাসে ধোনিই সবচেয়ে বেশি ম্যাচে দলকে নেতৃত্ব দিয়েছেন। ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টিতে ধোনির অধীনেই সবচেয়ে বেশি ম্যাচ জিতেছে ভারত।

ওয়ানডেতে ২০০ ম্যাচে দলকে নেতৃত্ব দিয়েছেন ধোনি। এর মধ্যে তার দল ১১০ ম্যাচে জয় পেয়েছে। টি-টোয়েন্টিতে ধোনির অধিনায়কত্বে ৭২ ম্যাচ খেলে ৪১টিতে জিতেছে ভারত। অন্যদিকে, জয়ের দিক থেকে টেস্টে তিনি দ্বিতীয় সেরা অধিনায়ক। তার অধীনে ৬০ ম্যাচ খেলে ২৭টিতে জিতেছে ভারত। আর বর্তমান অধিনায়ক বিরাট কোহলির অধীনে ৫৫ ম্যাচ খেলে ভারত জিতেছে ৩৩টিতে।

প্রায় ১৫ বছরের আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে ধোনি ৯০টি টেস্ট ম্যাচ খেলে ৪৮৭৬ রান করেছেন। এই ফরম্যাটে তার ৬টি সেঞ্চুরি ও ৩৩টি হাফ সেঞ্চুরি রয়েছে। ওয়ানডেতে ৩৫০ ম্যাচ খেলে তিনি করেছেন ১০ হাজার ৭৭৩ রান। এই ফরম্যাটে তার ১০টি সেঞ্চুরি ও ৭৩টি হাফ সেঞ্চুরি রয়েছে। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ধোনি খেলেছেন ৯৮ ম্যাচ। এই ফরম্যাটে তার রান সংখ্যা ১৬১৭। টি-টোয়েন্টিতে তার কোনো সেঞ্চুরি না থাকলেও ২টি হাফ সেঞ্চুরি রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here