‘উন্নয়ন খরচ বেশি হওয়ার’ অযুহাতে প্লটের চড়া মূল্য ঝালকাঠিতে বিসিক প্লটে আগ্রহ নেই স্থানীয় উদ্যোক্তাদের

0
279
‘উন্নয়ন খরচ বেশি হওয়ার’ অযুহাতে প্লটের চড়া মূল্য ঝালকাঠিতে বিসিক প্লটে আগ্রহ নেই স্থানীয় উদ্যোক্তাদের
ছবিঃ রতন আচার্য্য, ঝালকাঠি প্রতিনিধি।

খবর৭১ঃ

রতন আচার্য্য, ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ ঝালকাঠিতে এক বছর আগে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলাসহ উদ্দোক্তাদের সহায়তার লক্ষে প্রায় ১৭কোটি টাকা ব্যায়ে বিসিক শিল্প নগরীর গড়ে উঠার পর দেড় বছর অতিবাহিত হলেও চড়া মূল্যের কারনে প্লট বরাদ্দের কার্যক্রম মুখ থুবড়ে পড়েছে।

জেলার ঢাপড় এলাকায় গড়ে তোলা শিল্প নগরীটি উদ্বোধনের পূর্বেই সীমাহীন দূর্নীতি-লুটপটের ঘটনায় প্রকল্প পরিচালক ও ঠিকাদারীদের নামে দুদক এর ৩টি দূর্নীতি মামলা মহতী এ প্রকল্পের গায়ে কালিমা লেপন করেছে। এখোন বিসিক কর্তৃপক্ষ ‘উন্নয়ন খরচ বেশি হওয়ার’ অযুহাতে প্লটগুলোর চড়া মূল্য নির্ধারন করায় স্থানীয় ব্যবসায়ী-উদ্যোক্তারা প্লট বরাদ্দ নেয়ার আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছে। যে কারনে বিসিক শিল্প নগরী প্রকল্পটি নির্মান সম্পন্ন হওয়ার পর প্রায় দু’বছর অতিবাহিত হলেও মাত্র একটি কম্পানী ছাড়া কোন ব্যবসায়ী বা উদ্দোক্তা প্লট বরাদ্দ নিতে আগ্রহ দেখায়নি। তবে এসব সমস্যা কাটিয়ে শীগ্রই সকল প্লট বরাদ্ধসহ ঝালকাঠি বিসিক শিল্প নগরীটি জমে উঠবে বলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ধারনা প্রকাশ করেছে । ঝালকাঠিশহরের প্রবেশ মুখেই ঝালকাঠি-বরিশাল আঞ্চলিক সড়কের পাশে ঢাপড় এলাকায় প্রায় ১২ একর জমিতে ২০১৪ সালে বিসিক শিল্প নগরী নির্মাণ কাজ শুরু হলে ভূমি উন্নয়নসহ বিভিন্ন কার্যক্রমে ব্যাপক দূর্নীতির অভিযোগ উঠে।

প্রায় ৪ বছর প্রকল্পের কাজ শেষ হলেও দূর্নীতি দমন কমিশন দুদক এর তদন্তে ব্যাপক দূর্নীতি-অনিয়মের বিষয় প্রমানিত হলে প্রকল্প পরিচালকসহ সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারদের বিরুদ্ধে ৩টি মামলাও হয়। পরবর্তীতে উন্নয়ন কাজ শেষে গত ২০১৯ সালের ৩ ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত ছিল পল্ট বরাদ্ধ নিতে আগ্রহীদের আবেদন জমার শেষ সময় ঘোষনা করলে মোট ৭৯টি প্লটের অনুকূলে মাত্র ১১টি আবেদন পড়ে। তার মধ্যে বাছাই পর্বে মাত্র ৬টি আবেদন টিকলেও জমির শতাংশ প্রতি ২লাখ ৬০হাজার টাকা নির্ধারন করায় মাত্র একটি প্রতিষ্ঠান তাদের অনুকুলে শিল্প ইউনিট প্লট বরাদ্ধ নেয়। বিসিক কর্তৃপক্ষ তিন শ্রেণির প্লটের প্রতি বর্গফুট ৬’শ টাকা হারে ৬ হাজার বর্গ ফুটের প্লটের মূল্য ৩৬ লাখ, ৪ হাজার ৫’শ বর্গফুট প্লটের মূল্য ২৭ লাখ ও ৩ হাজার ২’শ বর্গফুট প্লটের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ১৮ লাখ টাকা।

এ ঝালকাঠি বিসিক এর উপ-ব্যবস্থাপক শাফাউল করিম জানায়, জমির পরিমাণ কম সেই সাথে উন্নয়ন খরচ বেশি হওয়ায় প্লটের দামে প্রভাব পড়েছে। এখোন পর্যন্ত একটি কম্পানী প্লট বরাদ্দ নিয়েছে এবং আরো ৪টি আবেদন বিবেচনাধীন রয়েছে। তবে পদ্মা সেতু ও পায়রা বন্দর চালু হলে শিগ্রই বিসিক শিল্প নগরী জমে উঠবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here