নৈতিক মূল্যবোধের শিক্ষা জীবন ও জগতকে দেখার চোখ নির্মাণ করেঃ প্রফেসর ড. হাসানুজ্জামান চৌধুরী

0
384

খবর ৭১ঃ
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. হাসানুজ্জামান চৌধুরী বলেছেন, নৈতিক মূল্যবোধের শিক্ষা মানুষকে জীবন ও জগতকে দেখার চোখ নির্মাণ করে দেয়। আত্ম জিজ্ঞাসার মাধ্যমে নিজের মনুষ্যত্বকে জাগ্রত করে। একটি আলোকিত ও সুন্দর সমাজ গঠনে আলোকবর্তিকা হিসেবে কাজ করে। ‘টুওয়ার্ডস আউটস্ট্যান্ডিং টিচিং’ এবং ‘অন দ্য ওয়ে টু লার্নিং’ গ্রন্থদ্বয়ের মাধ্যমে লেখক শিক্ষাগ্রহণ এবং শিক্ষাদানের ক্ষেত্রে সার্বজনীন নৈতিকতা এবং পদ্ধতিগত দিক যেভাবে তুলে ধরেছেন, তা শিক্ষক সমাজকে সমৃদ্ধ করবে।
যুক্তরাজ্য প্রবাসী শিক্ষাবিদ, লেখক চৌধুরী বখতিয়ার এহিয়া (রেহেল)-এর ‘টুওয়ার্ডস আউটস্ট্যান্ডিং টিচিং’ এবং ‘অন দ্য ওয়ে টু লার্নিং’ গ্রন্থদ্বয়ের পাঠ পর্যালোচনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. নজরুল হক চৌধুরীর সভাপতিত্বে গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নগরীর নাইওরপুলস্থ একটি অভিজাত হোটেলের সম্মেলন কক্ষে এই পর্যালোচনা অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়।
অনুষ্ঠান উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব শাহেদ আহমদ চৌধুরীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে নির্ধারিত আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের প্রফেসর ড. হোসেন আল মামুন, পলিটিক্যাল স্টাডিজ বিভাগের প্রফেসর ড. মো. নজরুল ইসলাম এবং অনুভূতি ব্যক্ত করেন গ্রন্থদ্বয়ের লেখক যুক্তরাজ্য প্রবাসী শিক্ষাবিদ চৌধুরী বখতিয়ার এহিয়া(রেহেল)। এহিয়া ট্রাস্টের ট্রাস্টি মাহফুজ আহমদ চৌধুরী স্বাগত বক্তব্যের মাধ্যমে শুরু হওয়া অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন সিলেট ক্যাডেট কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ জাহাঙ্গীর আহমদ চৌধুরী, সাহিত্য সমালোচক অধ্যাপক কবি বাছিত ইবনে হাবীব, বিশ্বনাথ সরকারি কলেজের অধ্যাপক এনামুল হক, সিলেট জেলা বারের আইনজীবী এডভোকেট সফিকুল ইসলাম, আজাদ চৌধুরী একাডেমির প্রধান শিক্ষক মো. খায়রুল বাশার চৌধুরী এবং লেখকের সংক্ষিপ্ত জীবনী তুলে ধরেন রশিদ আহমদ। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন তামিম আহমদ। অনুষ্ঠানের শেষে প্রধান অতিথি এবং নির্ধারিত আলোচকবৃন্দের হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেওয়া হয়। অনুষ্ঠানে সিলেটের সাহিত্য-সংস্কৃতি বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানের শেষে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন গ্রন্থদ্বয়ের প্রকাশক, পা-ুলিপি প্রকাশনের চেয়ারম্যান লেখক-সংগঠক বায়েজীদ মাহমুদ ফয়সল।
নির্ধারিত আলোচকের বক্তব্যে শাবিপ্রবির ইংরেজি বিভাগের প্রফেসর ড. হোসেন আল মামুন বলেন, জীবনে উচ্চাকাঙ্খা মানুষকে বড় করে তুলে। লেখক চৌধুরী বখতিয়ার এহিয়া গ্রন্থদ্বয়ের মাধ্যমে মহান শিক্ষক হতে চেয়েছেন। এক্ষেত্রে তিনি সফলতা অর্জন করেছেন, বলা যায়। মানসম্মত শিক্ষাগ্রহণ এবং শিক্ষাদানের যে পদ্ধতি তিনি উপস্থাপন করেছেন তা প্রত্যেকের চিন্তা-চেতনাকে সুন্দরের দিকে পরিবর্তন করবে।
শাবিপ্রবির পলিটিক্যাল স্টাডিজ বিভাগের প্রফেসর ড. মো. নজরুল ইসলাম বলেন, ‘টুওয়ার্ডস আউটস্ট্যান্ডিং টিচিং’ এবং ‘অন দ্য ওয়ে টু লার্নিং’ গ্রন্থদ্বয়ের মাধ্যমে লেখক অসাধারণ বুদ্ধিবৃত্তিক কাজ করেছেন। শিক্ষাদান, শিক্ষাগ্রহণের নৈতিকগত পদ্ধতি যেভাবে তিনি অঙ্কন করেছেন, তা আলোকিত মানুষ ও সমাজ গঠনে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে। প্রকৃত শিক্ষার আলোকচটা জীবনকে বিনয়ী ও সহনশীল করে তুলবে।
অনুভূতি ব্যক্ত করে গ্রন্থদ্বয়ের লেখক চৌধুরী বখতিয়ার এহিয়া বলেন, ‘টুওয়ার্ডস আউটস্ট্যান্ডিং টিচিং’ এবং ‘অন দ্য ওয়ে টু লার্নিং’ গ্রন্থদুটি আমার দীর্ঘ জীবনের অভিজ্ঞতার ফসল। ইসলামী মূল্যবোধ ছাড়া নৈতিকতা অর্জন করা যায় না, শিক্ষাদান এবং শিক্ষাগ্রহণের ক্ষেত্রে সেই দৃষ্টিভঙ্গিই আমি উপস্থাপন করেছি। একজন পরিপূর্ণ মানুষ গঠনে গ্রন্থ দুটি যদি অভিষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছাতে অনুপ্রাণিত করে তবেই আমার শ্রম সার্থক হবে।
সভাপতির বক্তব্যে সিলেট সরকাারি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. নজরুল হক চৌধুরী বলেন, চৌধুরী বখতিয়ার এহিয়া একজন আপাদমস্তক শিক্ষক। তাঁর চিন্তা-চেতনা সেদিকেই প্রবাহিত। পরিপূর্ণ মানুষ তৈরীতে অঙ্গিকারবদ্ধ এহিয়া তাঁর গ্রন্থদ্বয়ের মাধ্যমে এর সুষ্পষ্ট ছাপ রেখেছেন। শিক্ষাদান এবং শিক্ষাগ্রহণের ক্ষেত্রে তাঁর সার্বজনীন মৌলিক দৃষ্টিভঙ্গি সত্যিকার মানুষ তৈরীতে সহায়ক হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here