জাতিসংঘে গাজায় যুদ্ধ বিরতির প্রস্তাব পাস

0
22

জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে প্রথমবারের মতো গাজায় ‘অতিদ্রুত যুদ্ধবিরতি’র প্রস্তাব পাস হয়েছে। নিরাপত্তা পরিষদের ১৫ সদস্যের মধ্যে ১৪টি প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দিয়েছে। ভোট দেওয়া থেকে বিরত ছিল একমাত্র যুক্তরাষ্ট্র। এর আগে নিরাপত্তা পরিষদে তোলা যুদ্ধবিরতির সব প্রস্তাবেই ভেটো দিয়েছিল দেশটি। প্রস্তাবে অতিদ্রুত ও সব জিম্মির নিঃশর্ত মুক্তি চাওয়া হয়েছে। খবর বিবিসির।

অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকার আল-শিফা হাসপাতালে ভয়াবহ তাণ্ডব চালাচ্ছে ইসরায়েলি সেনারা। সেখানে লাশের ওপর দিয়ে ট্যাঙ্ক চালিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। গাজার উত্তরাঞ্চলের সবচেয়ে বড় এই হাসপাতালে গত সপ্তাহ থেকেই সামরিক অভিযান ও হামলা চালাচ্ছে দখলদার বাহিনী।

ইসরায়েলি হায়েনারা সেখানে চিকিৎসা নিতে আসা শত শত রোগী এবং আশ্রয় গ্রহণকারী হাজার হাজার মানুষকে লক্ষ্য করে নির্বিচারে গুলি চালাচ্ছে। এক ফিলিস্তিনি নারী প্রত্যক্ষদর্শী বলেছেন, ইসরায়েলি সেনারা শিফা হাসপাতালে নারীদের হত্যা করার আগে ধর্ষণ করছে। এবার অভিযোগ উঠেছে, লাশের ওপর দিয়ে ট্যাঙ্ক চালিয়ে দেওয়ার। আল-শিফা থেকে পালিয়ে আসা ফিলিস্তিনিরা জানিয়েছেন, ইসরায়েলি ট্যাঙ্ক এবং সাঁজোয়া বুলডোজার কমপক্ষে চারটি মৃতদেহ এবং অ্যাম্বুলেন্সের ওপর দিয়েই চলে গেছে। সময়ের সঙ্গে ইসরায়েলিরা আরও হিংস্র হয়ে উঠছে।

ফিলিস্তিনি রেড ক্রিসেন্ট জানিয়েছে, তীব্র গোলাগুলির কারণে তাদের মেডিকেল টিমের সদস্যরা সেখানে আটকা পড়েছেন। হাসপাতাল থেকে প্রায় এক হাজার মানুষকে ধরে নিয়ে গেছে ইসরায়েলি সেনাবাহিনী। হাসপাতালটিতে আহত ব্যক্তিদের চিকিৎসাসেবা মারাত্মকভাবে ব্যাহত হচ্ছে।

চলমান সংঘাত অবসানের কোনো ইচ্ছাই নেই ইসরায়েলের। নানা কৌশলে যুদ্ধকে দীর্ঘায়িত করতে চাইছে দেশটি– এমনটাই দাবি করেছে হামাস। হামাসের রাজনৈতিক ব্যুরোর কর্মকর্তা বাসেম নাইম জানান, কাতারের রাজধানী দোহায় চলমান যুদ্ধবিরতির আলোচনা নিয়ে গণমাধ্যমে অনেক ‘বিভ্রান্তিকর তথ্য’ প্রকাশ করা হয়েছে। ইসরায়েল শুধু জিম্মিদের মুক্তি চায়, যুদ্ধের অবসান চায় না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here