গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে আন্দোলনে ঝাঁপিয়ে পড়ার প্রত্যয়ে সৈয়দপুরে যুবদলের ৪৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

0
190

মিজানুর রহমান মিলন, সৈয়দপুর :
বর্তমান সরকারের অন্যায় অত্যাচারের কবল থেকে জনগণকে মুক্ত করতে হলে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করতে হবে। এজন্য দলের সকল নেতাকর্মীকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে আন্দোলন সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত কেউ ঘরে ফিরে যাব না,এ প্রত্যেয়ে সৈয়দপুরে পালিত হলো যুবদলের ৪৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী।

গতকাল বুধবার দিবসটি উপলক্ষে দিনব্যাপী নানা কর্মসূচি পালন করা হয়। দলটির আয়োজনে এসব কর্মসূচির মধ্যে ছিল সকালে দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন, শহীদ জিয়ার প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ, দিনব্যাপী শহীদ জিয়ার ভাষণ প্রচার, মিলাদ ও বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সুস্থ্যতা কামনা করে দোয়া মাহফিল, আলোচনা সভা ও কেক কাটা অনুষ্ঠান।
সন্ধ্যায় দলটির সর্বস্তরের নেতাকর্মী ও সমর্থকদের অংশগ্রহণে শহরের শহীদ ডা. জিকরুল হক সড়কস্থ দলীয় কার্যালয়ে দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য বলেন, সাবেক জাতীয় সংসদ সদস্য বিএনপি নেতা আলহাজ্ব শওকত চৌধুরী। সৈয়দপুর রাজনৈতিক জেলা যুবদল সভাপতি মো. আনোয়ার হোসেন প্রামানিকের সভাপতিত্বে প্রধান ও বিশেষ বক্তার বক্তব্য বলেন যথাক্রমে জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সাবেক পৌর কাউন্সিলর মো. তারিক আজিজ,জেলা যুবদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি সৈয়দ নাদিম রেজা ও সহ-সভাপতি মো. আব্দুস সাত্তার বকুল। জেলা যুবদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব পারভেজ আলম গুড্ডুর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য বলেন সৈয়দপুর রাজনৈতিক জেলা বিএনপির আহবায়ক আলহাজ্ব আব্দুল গফুর সরকার, সদস্য সচিব ও পৌর কাউন্সিলর শাহীন আকতার শাহীন, বিএনপি নেতা মো.শামসুল আলম, প্রভাষক শওকত হায়াৎ শাহ, আব্দুল খালেক, শফিকুল ইসলাম জনি, হাফিজ খান, যুবদল নেতা ইবরার হোসেন কাল্লু, খালেদ হাবিব,আব্দুস সালাম, দেলোয়ার হোসেন, জুয়েল রেজা, নিয়াজ আহম্মদ বাবলু, আফতাব উদ্দিন, জেলা ছাত্রদল সভাপতি মো. রিজওয়ান আকতার পাপ্পু, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দল সভাপতি ও পৌর কাউন্সিলর এরশাদ হোসেন পাপ্পু, সাধারণ সম্পাদক এমএ পারভেজ লিটন প্রমুখ। আলোচনা শেষে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কেক কাটা হয়। এর আগে বিকেলে দলীয় কার্যারয়ে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। দোয়া মাহফিলে বিএনপি চেয়ারপারসন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার সুস্থ্যতা কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। দিবসের প্রতিটি অনুষ্ঠানে যুবদল ছাড়াও বিএনপি ও অঙ্গদলের সর্বস্তরের নেতাকর্মী অংশ নেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here