সৈয়দপুরে চলন্ত ট্রেনে পাথর নিক্ষেপরোধে পথসভা, লিফলেট বিতরণ

0
333

সৈয়দপুর প্রতিনিধি
চলন্ত ট্রেনে পাথর নিক্ষেপ রোধে সচেতনতামূলক কার্যক্রম শুরু করেছে সৈয়দপুরের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘আমাদের প্রিয় সৈয়দপুর’। আজ শনিবার সকালে সংগঠনটির পক্ষ্য থকে সচেতনতামূলক ওই প্রচারণা চালায় স্বেচ্ছাসেবী সদস্যরা।এ সময় তারা শহরের রেলওয়ে লাইনের ধারে বসবাসকরা নাী পুরুষের মাঝে লিফলেট বিতরণ করেন। পরে রেলওয়ে স্টেশন সংলগ্ন এলাকায় একটি বস্তির সামনে পথসভা করে সংগঠনটি। সচেতনতামুলক
পথসভায় বক্তারা বলেন চলন্ত ট্রেনে পাথর নিক্ষেপ করা মারাত্মক অপরাধ। পাথর নিক্ষেপের ফলে জানমালের মারাত্মক ক্ষতি হয়। এসময় পাথর নিক্ষেপ কারীদের বিরুদ্ধে আইনি বিধি-বিধানের বিষয়গুলো উপস্থাপন করা হয়। এসময় বক্তারা পাথর নিক্ষেপ কারীদের সমাজ ও দেশের শত্রু অাখ্যায়িত করে তাদেরকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে সোপর্দ করার জন্য সকলের সহায়তা কামনা করেন। সভায় মোবাইল ফোনে কথা বলতে বলতে রেললাইনে হাটা, শিশুদের রেললাইনের উপর খেলাধুলা করা রেললাইনের ওপরে না বসাসহ ও চলন্ত ট্রেনে সেলফি তোলা থেকে বিরত থাকতে বলা হয়। তারা এবিষয়ে অভিভাবকদের সচেতন হওয়ার আহবান জানান। পরে সংগঠনের সদস্যরা চলন্ত ট্রেনে পাথর নিক্ষেপের বিরুদ্ধে প্রচারাভিযান চালানো হয়।

গোলাহাট থেকে শুরু হয়ে সৈয়দপুর রেলওয়ে স্টেশন পর্যন্ত চলে ওই কার্যক্রম। বিভিন্ন এলাকায় প্রতি সপ্তাহে সচেতনতামূলক প্রচারাভিযান চালানো হবে বলে জানায় সংগঠনের সদস্যরা। পথসভা ও প্রচারাভিযানে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘আমাদের প্রিয় সৈয়দপুর’র নওশাদ আনসারী, সামিউল আলিম, অনলী রাজা, ইমরান, জয়, বাবু, সেরু, সুজন, সামির, মারুফসহ অন্যান্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। জানতে চাইলে স্বেচ্ছাসবী সামিউল আলিম বলেন, চলন্ত ট্রেনে পাথর নিক্ষেপ করা দণ্ডনীয় অপরাধ। এতে সর্বোচ্চ মৃত্যুদণ্ড ও সর্বনিম্ন ১০ বছর কারাদণ্ডের বিধান রয়েছে। আমরা এ বিষয়ে রেললাইনের ধারে থাকা বাসিন্দাদের মাঝে মাইকিং, লিফলেট বিতরণ ও পথসভা করছি। এই সচেনতামূলক কার্যক্রম প্রতি সপ্তাহে করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here