আ.লীগ ক্ষমতায় আছে বলে মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন হচ্ছে: শেখ হাসিনা

0
37

খবর৭১ঃ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আজকে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আছে বলে মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন হচ্ছে। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আছে বলে বাংলাদেশের মানুষের অন্ন, বস্ত্র, বাসস্থান, চিকিৎসা, শিক্ষার সুযোগ আছে। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় না থাকলে তারা আবার ভূলুণ্ঠিত হবে।

আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে বুধবার আয়োজিত আলোচনা সভায় বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি। গণভবনে থেকে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের মূল অনুষ্ঠানে যুক্ত হন তিনি।

করোনার কারণে দলের ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী সীমিত আয়োজনের মধ্যদিয়ে উদযাপন করেছে আওয়ামী লীগ।

বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা বলেন, সারা বাংলাদেশটাকে জাতির পিতা সুন্দরভাবে সাজাতে চেয়েছিলেন। তিনি তো পারেন নাই করতে, তাকে তো করতে দেওয়া হল না।

‘তার সেই অসমাপ্ত কাজ আমাদের সমাপ্ত করতে হবে। এবং তার জন্য আওয়ামী লীগকে সব সময় সচেতন থাকতে হবে, জনগণের পাশে থাকতে হবে, সুখে, দুঃখে সাথী হতে হবে। এবং জনগণের কল্যাণে কাজ করতে হবে।’

শেখ হাসিনা বলেন, এই আওয়ামী লীগ অনেক ঘাত-প্রতিঘাত সহ্য করেছে। অনেক চড়াই-উৎরাই পার করেছে। অনেক বন্ধুর পথ অতিক্রম করেছে।

দলকে তৃণমূল থেকে আরও শক্তিশালী করে গড়ে তোলার ওপর জোর দেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা। করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যে কাউন্সিলগুলো করতে না পারলেও সাংগঠনিক তৎপরতায় যাতে ঢিল না দেওয়া হয়, সেদিকে বিশেষ নজর রাখতে বলেন তিনি।

দলের ৭২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে নেতা-কর্মীদের অভিনন্দন জানিয়ে তিনি বলেন, ৭২ বছর আওয়ামী লীগের বয়স হলো। এই সাব কন্টিনেন্টের সব থেকে প্রবীণ পার্টি। এই দলই পারবে এদেশে জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তুলতে।

‘এই বাংলাদেশের মানুষের ভাগ্য নিয়ে আর যেন কখনো কেউ ছিনিমিনি খেলতে না পারে, সেজন্য অতন্দ্র প্রহরীর মতো বাংলাদেশের মানুষের পাশে থাকবে আওয়ামী লীগের প্রত্যেকটা নেতা-কর্মী, সেটাই আমি চাই। এদেশের মানুষের ভাগ্য যেন আমরা পরিবর্তন করে দিয়ে যেতে পারি, সেইভাবেই সবাই কাজ করবেন।’

আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয় প্রান্তে আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী, আব্দুর রাজ্জাক, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান, শাজাহান খান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ, হাছান মাহমুদ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here