গাজার দক্ষিণাঞ্চল থেকে সেনা প্রত্যাহার করেছে ইসরায়েল

0
20

গাজার দক্ষিণাঞ্চল থেকে সেনা প্রত্যাহার করেছে ইসরায়েল। মধ্য গাজার খান ইউনিস থেকেও সেনা প্রত্যাহার করা হয়েছে। যুদ্ধবিধ্বস্ত অঞ্চলটিতে এরই মধ্যে স্থানীয়রা ফিরতে শুরু করেছে। গতকাল রোববার ইসরায়েলি প্রতিরক্ষাবাহিনী বা আইডিএফ এক বিবৃতিতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

রোববার দেওয়া বিবৃতিতে আইডিএফ বলেছে, ‘আজ রোববার ৭ এপ্রিল আইডিএফের ৯৮ তম কমান্ডো ডিভিশন খান ইউনিসে মিশন শেষ করেছে। সেনাদের শারীরিক ক্লান্তি ও অসুস্থতা থেকে পুনরুদ্ধার করতে এবং ভবিষ্যৎ অভিযানের জন্য প্রস্তুত করতেই ডিভিশনটি গাজা উপত্যকা ত্যাগ করেছে।’

আইডিএফের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘আইডিএফের ১৬২ তম ডিভিশন ও নাহাল ব্রিগেডের নেতৃত্বে একটি উল্লেখযোগ্য বাহিনী গাজা উপত্যকায় কাজ করে চলেছে। এই দুটি ডিভিশন ও ব্রিগেড গাজায় সুনির্দিষ্ট গোয়েন্দা অভিযান পরিচালনা করবে।’

ইসরায়েলি সেনাবাহিনী বার্তা সংস্থাকে রয়টার্সকেও বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। তবে কোন কোন ব্রিগেড প্রত্যাহার করা হয়েছে তার বিস্তারিত বিবরণ না দিয়ে আইডিএফ জানিয়েছে, গাজায় এখনো ইসরায়েলি ব্রিগেড রয়ে গেছে। সাধারণত ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর একেকটি ব্রিগেড কয়েক হাজার সেনা নিয়ে গঠিত হয়।

এদিকে, দক্ষিণ গাজা থেকে সেনা প্রত্যাহার করলেও রাফাহে অভিযান চালানোর বিষয়ে বদ্ধপরিকর। এ বিষয়ে ইসরায়েলি প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইয়োভ গ্যালান্ত জানিয়েছেন, আইডিএফ রাফাহে অভিযান পরিচালনার বিষয়ে ভাবছে। তবে কবে নাগাদ এই অভিযান পরিচালনা করা হবে সে বিষয়ে বিস্তারিত কোনো তথ্য দেননি তিনি।

এক বিবৃতিতে গ্যালান্ত বলেছেন, ‘আমাদের বাহিনী পরবর্তী মিশনের জন্য প্রত্যাহার করা হয়েছে এবং তারা পরবর্তী অভিযানের প্রস্তুতি নিচ্ছে।’ এ সময় ইসরায়েলি সেনাদের অভিযান দক্ষতার প্রশংসা করে তিনি বলেন, ‘আমরা আল-শিফা হাসপাতালের অভিযানে তাদের দক্ষতার উদাহরণ দেখেছি যা রাফাহে তাদের আসন্ন মিশনের জন্য উদাহরণ হয়ে থাকবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here