নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশের ইতিহাস গড়া জয়

0
45

খবর৭১ঃ  টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ঠিক আগে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়ার পর নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দলকেও মাটিতে নামাল টাইগাররা। নিউজিল্যান্ডকে ৬০ রানে গুঁড়িয়ে দিয়ে ৭ উইকেটের সহজ জয় পায় টাইগাররা।

এর আগে অস্ট্রেলিয়াকে ৬২ রানে লজ্জা দেওয়া মাহমুদউউল্লাহ রিয়াদের নেতৃত্বাধীণ দলটি নিউজিল্যান্ডকেও তাদের সর্বনিম্ন ৬০ রানে গুঁড়িয়ে দেয় বাংলাদেশ। ৬১ রানের সহজ টার্গেট তাড়া করতে নেমে ১৪.৬ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে জয় নিশ্চিত করে বাংলাদেশ।

ইনিংস তাড়া করতে নেমে শুরুতে অবশ্য ২.৫ ওভারে মাত্র ৭ রানে দুই ওপেনার মোহাম্মদ নাঈম শেখ ও লিটন কুমার দাসের উইকেট হারায় বাংলাদেশ। এরপর মুশফিকুর রহিমের সঙ্গে ৩২ রানের জুটি গড়েন সাকিব আল হাসান। ৩৩ বলে ২৫ রান করে সাজঘরে এ অলরাউন্ডার। সাকিব আটউ হওয়ার পর অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে সঙ্গে নিয়ে দলের জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়েন মুশফিকুর রহিম।

১.১ ওভারে কোল ম্যাককলিনচের বলে হেনরি নিকোলসের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফেরেন ওপেনার মোহাম্মদ নাঈম শেখ। তার আগে ৬ বলে মাত্র ১ রান করার সুযোগ পান এ ওপেনার।

প্রথম উইকেটের এই ধকল সামলিয়ে ওঠার আগেই সাজঘরে ফেরেন আরেক ওপেনার লিটন দাস। নিউজিল্যান্ডের স্পিনার এজাজ প্যাটেলের বলটি ডাউন দ্য উইকেটে খেলতে গিয়ে স্টাম্পিং হন লিটন (১)। তার বিদায়ের মধ্য দিয়ে ২.৫ ওভারে মাত্র ৭ রানে বাংলাদেশ হারায় দুই ওপেনারকে।

এর আগে নিউজিল্যান্ডকে সর্বনিম্ন রানের রেকর্ড ‘উপহার’ দেয় বাংলাদেশ। গত মাসে অস্ট্রেলিয়ার মতো বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের এই মিরপুরেই ৬২ রানে গুঁড়িয়ে দিয়েছিল মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের নেতৃত্বাধীন দলটি।

তবে টি-টোয়েন্টিতে এর আগেও একবার ৬০ রানে অলআউট হওয়ার নজির আছে নিউজিল্যান্ডের। ২০১৪ সালে বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে শ্রীলংকার বিপক্ষে চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে ১২০ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে রঙ্গনা হেরাথের স্পিনে বিভ্রান্ত হয়ে ১৫.৩ ওভারে ৬০ রানে অলআউট হয় ব্রান্ডন ম্যাককালামের নেতৃত্বাধীন দলটি।

বুধবার নিউজিল্যান্ডকে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম খেলায় ৬০ রানে গুঁড়িয়ে দিল টাইগাররা। জয় দিয়ে সিরিজে শুভসূচনা করতে বাংলাদেশ দলকে করতে হবে মাত্র ৬১ রান।

বুধবার বিকাল ৪টায় ব্যাটিংয়ে নেমে টাইগার স্পিনার মেহেদি হাসান, সাকিব আল হাসান, নাসুম আহমেদের ঘূর্ণি বলে বিভ্রান্ত হয়ে মাত্র ৯ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে যায় নিউজিল্যান্ড। এরপর হেনরি নিকোলসকে সঙ্গে নিয়ে পঞ্চম উইকেটে দলকে খেলায় ফেরানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন অধিনায়ক টম লাথাম। পঞ্চম উইকেটে তারা সর্বোচ্চ ৩৪ রানের জুটি গড়েন।

৪ উইকেটে ৫৩ রান করা দলটি এরপর মাত্র ৭ রানের ব্যবধানে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৬.৫ ওভারে ৬০ রানে অলআউট হয়।

মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে ইনিংসের প্রথম ওভারের তৃতীয় বলেই সাফল্য পান স্পিনার মেহেদি হাসান। তার বলে তার হাতেই ক্যাচ তুলে দিয়ে সাজঘরে ফেরেন এই ম্যাচে অভিষেক হওয়া রাচিন রবিন্দ্র। প্রথম ওভারে ১ রানে নিউজিল্যান্ডের নেই এক উইকেট।

ইনিংসের তৃতীয় ওভারে বোলিংয়ে এসে সাকিব আল হাসান তুলে নেন ওয়ান ডাউনে ব্যাটিংয়ে নামা উইলি ইয়ংকে। ১১ বলে মাত্র ৫ রান করে সাকিবের বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন তিনি। এরপর ইনিংসের চতুর্থ ওভারের তৃতীয় বলে নাসুম আহমেদের বলে নাঈম শেখের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে সাজঘরে ফেরেন নিউজিল্যান্ডের তারকা ব্যাটসম্যান কলিন ডি গ্রান্ডহোম। ওই ওভারের শেষ বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন নিউজিল্যান্ডের আরেক ওপেনার টম বান্ডেল।

৪ ওভারে ৯ রানে ৪ উইকেট পতনের পর হেনরি নিকোলসকে সঙ্গে নিয়ে দলের হাল ধরার চেষ্টা করেন অধিনায়ক টম লাথাম। পরের ছয় ওভারে স্কোর বোর্ডে তারা যোগ করেন ৩১ রান। ১০ ওভার শেষে নিউজিল্যান্ডের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ৪০ রান। পঞ্চম উইকেটে হেনরি নিকোলসকে সঙ্গে নিয়ে ৩৪ রানের জুটি গড়েন অধিনায়ক টম লাথাম। ৪ উইকেটে ৪৩ রান করা কিউই দলটি এরপর ১১ রানের ব্যবধানে হারায় টম লাথাম, কোল ম্যাকনচি, হেনরি নিকোলস ও এজাজ প্যাটেলের উইকেট। নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক টম লাথামকে আউট করেন মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। সাকিবের দ্বিতীয় শিকার হয়ে ফেরেন কোল ম্যাকনচি।

দলীয় ৪৯ রানে সাইফউদ্দিনের দ্বিতীয় শিকার হন হেনরি নিকোলস। ১৪তম ওভারের শেষ বলে মোস্তাফিজুর রহমানের বলে বোল্ড হয়ে ফেরেন এজাজ প্যাটেল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here