ত্বকের যত্নে আম

0
34

খবর৭১ঃ বর্ষায় নিজেকে ভালো রাখতে গেলে একটু তো রূপচর্চার প্রয়োজন পড়ে। উজ্জ্বল ও মোলায়েম ত্বক সবার কাছে প্রিয়। করোনাকালে বাইরে পার্লারে না গিয়ে বাড়িতে ব্যবহৃত জিনিস দিয়েই ত্বকের যত্ন নেওয়া যায়। ভাবছেন কী দিয়ে রূপচর্চা করবেন। খুব সহজেই আম দিয়ে ত্বকের যত্ন নিতে পারেন।

গবেষণা প্রমাণ করেছে যে আম আপনার ত্বকের ব্যাক্টেরিয়াল, ফাংগাল এবং মাইক্রোবিয়াল আক্রমণ প্রতিরোধ করে। তবে আম খাওয়া ছাড়াও রূপচর্চার কাজেও লাগে। ত্বকের উজ্জ্বলতা ধরে রাখতে এবং বার্ধক্যের ছাপ দূর করতে আমের রস বেশ কার্যকর। আমে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি এবং স্বাভাবিক ফলের এসিড রয়েছে। তাই মৌসুমি এই ফলটি ত্বকের জন্য খুবই উপকারী।

ঘরোয়া উপায়ে আম দিয়ে তৈরি কয়েকটি ফেস প্যাকের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে, যা আপনার ত্বকের যত্ন-আত্তিতে খুবই প্রয়োজনীয়।

ত্বকের উজ্জ্বলতা ফেরাতে

অনেক সময় যত্নের অভাবে ত্বকের উজ্জ্বলতা হারিয়ে যায়। ত্বকের উজ্জ্বলতা ফেরাতে তঘরোয়া পদ্ধতিতে ব্যবহার করে দেখুন, উপকার পাবেন। ১ চামচ আমের পাল্প, ২ চামচ ময়দা, ১ চামচ মধু দিয়ে একটি প্যাক বানান। এরপর পুরো মুখের মধ্যে লাগান। ১৫ মিনিট মুখে লাগিয়ে রাখার পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

ত্বকের উজ্জ্বলতা ফেরাতে কাঁচা দুধ দাগ দূর করতে বিষ্ময়করভাবে কাজ করে। প্রতিদিন ব্যবহারে এক ফেইস মাস্কটি ত্বকের স্পট এবং দাগ দূর করে এবং আপনার মুখ আরো উজ্জ্বল এবং প্রাণবন্ত করে তুলে। ২ চা চামচ কাঁচা দুধ দুধ গরম করে নিন এবং এটিকে হালকা ঠান্ডা করে নিন। ১টি আম কেটে নিন এবং এটি পেস্ট করে নিন। আমের পেস্ট গরম দুধে মিশান। ফেইস প্যাকটি মুখে লাগান। ৩০ মিনিটের জন্য মুখে রেখে দিন এবং পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

ট্যান পড়ে যাওয়া ত্বক

আমের ফেস-প্যাক কিন্তু ট্যান তুলতে দারুণ কাজ দেয়। ১ চামচ আমের পাল্পের সঙ্গে ২ চামচ বেসন, ১ চামচ মধু মিশিয়ে একটি প্যাক বানিয়ে নিন। অন্তত ১৫ মিনিট মুখে লাগিয়ে রাখার পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

মৃত কোষ দূর করতে

অনেক সময়ে আমাদের যত্নের অভাবে ত্বকের মধ্যে ধুলো, ময়লা জমতে থাকে এবং মুখের মধ্যে মৃত কোষগুলো থেকে যায়। ত্বকের যত্ন নিতে অনায়াসে আম ব্যবহার করতে পারেন। আমের পাল্পের মধ্যে ১ চামচ মধু, ১ চামচ দুধ মিশিয়ে একটি স্ক্র্যাবার বানিয়ে নিন। এর পরে মুখে ১০ মিনিট লাগিয়ে রাখুন। এর পর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে নিন।

ওটমিল ও আমের ফেসপ্যাক দিয়েও ত্বকের মৃতকোষ দূর করা যায় সহজেই। ওটমিল ও আম ত্বকের প্রাকৃতিক স্ক্রাবার হিসেবে কাজ করে। এজন্য পাকা আম চটকে দুধের সঙ্গে মিশিয়ে নিন। এর সঙ্গে ওটমিলের গুঁড়ো মিশিয়ে ত্বকে ব্যবহার করুন ১৫ মিনিট। এরপর স্ক্রাবিং করে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। মহূর্তেই ত্বকে উজ্জ্বলতা ধরা দেবে।

নরম ও কোমল ত্বক

যদি নরম ও কোমল ত্বক রাখতে চান তা হলে ২ চামচ আমের পাল্প, ১ চামচ ওটস, ২ চামচ দুধ মিশিয়ে স্ক্র্যাবার বানিয়ে নিন। এরপর ১৫ মিনিট মুখে লাগিয়ে রাখুন। স্ক্র্যাবারটি মুখে শুকিয়ে গেলে পানি দিয়ে ধুয়ে নিন।

ব্রণ থেকে মুক্তি

ব্রণ থেকে মুক্তি দিতে পারে আম। ১ চামচ আমের পাল্প, ২ চামচ টক দই ও ২ চামচ মধু দিয়ে প্যাকটি বানিয়ে নিন। ১৫ মিনিট মুখে লাগিয়ে রাখুন। এর পরে পানি দিয়ে ধুয়ে নিন।

বলিরেখা এবং বয়সের ছাপ দূর করতে

ডিমের সাদা অংশ আপনার ত্বককে টান টান করতে সাহায্য করে। আম আপনার ত্বককে শুষ্ক হয়ে যাওয়া থেকে রক্ষা করে। ডিমের সাদা অংশ ত্বকের লোমকূপ পরিষ্কার করে এবং আপনার ত্বককে দৃঢ় করে। এটি বলিরেখা এবং বয়সের ছাপ পরার অন্যান্য সমস্যা দূর করে। ১টি ডিমের সাদা অংশ ভালোভাবে ঘুটে নিন এবং ২ টেবিল চামচ পাঁকা আমের পেস্ট মিশিয়ে নিন। ভালোভাবে মিশান এবং একটি মসৃণ পেস্ট বানিয়ে নিন। ফেইস প্যাকটি লাগান। শুকাতে দিন। ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here