বাগমারায় পরকিয়ার জেরে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার অনশন

0
147

বাগমারা(রাজশাহী)প্রতিনিধিঃ
রাজশাহী বাগমারা উপজেলার আউচপাড়া ইউনিয়নের কোন্দা গ্রামের জৈনক ব্যক্তির পুত্র প্রেমিক দুলালের বাড়িতে বিয়ের দাবিতে এক রাত একদিন ধরে গৃহবধু প্রেমিকার অনশন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযোগ সূত্রে ও সরেজমিনে এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, গত (১৭ইজুন) বৃহস্পতিবার রাতে
উপজেলার কোন্দা গ্রামের মান্তর ছেলে(বিবাহিত) দুলাল (৩০) সাথে একই গ্রামের বিদ্যুতের স্ত্রী (গৃহবধু) পারভিন(৪২) সাথে দীর্ঘ দুই বছর ধরে পরকিয়ার সম্পর্ক গড়ে উঠে।এক পর্যায়ে সম্পর্কের মাঝপথে ঘটনা জানাজানি হলে গৃহবধু পারভিন লোকসমাজে তাদের পরকিয়ার কথা অস্বীকার করে প্রেমিক প্রেমিকার পরকিয়ার সম্পর্ক গোপন রাখে সম্পর্কে চালিয়ে যায়। এবং গত কয়েক বছর ধরে তাদের দুইজনের পরকীয়ার সম্পর্কটা কাগজের চিঠির মাধ্যমে টিকিয়ে রাখে বলে প্রেমিকা গৃহবধু পারভিন জানান।
এ বিষয়ে স্থানীয় এলাকাবাসী জানায়,গৃহবধু পারভিন পরকিয়ার সম্পর্কের জেরে দুলালের সাথে বিয়ের দাবিতে দুলালের বাড়িতে অনশন শুরু করতেই দুলাল এবং দুলালের স্ত্রী পারভিনকে বাড়ি থেকে বের করে দেয়। পরে বিষয়টা হাটগাঙ্গোপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে জানালে তাৎক্ষনিকভাবে ইনচার্জ মো: রফিকুল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্হল তদন্ত করেন এবং অনশন কারি পারভিনের বক্তব্য রেকর্ড করেন। পরে অনশনকারি প্রেমিকা পারভীনকে তার নিরাপত্তার জন্য পাশের বাড়িতে ওয়ার্ডের মেম্বার আলমকে নির্দেশ করেন। সেই সাথে সুবিচারের জন্য পরের দিন পারভিনকে বাগমারা থানায় নিয়ে যাওয়ার সুপরামর্শ প্রদান করেন। পরের দিন বৃহস্পতিবার পারভিন ক্ষান্ত না হয়ে দুলালকে বিয়ে করার জন্য মরিয়া হয়ে উঠে। দুলাল তাকে বিয়ে না করলে আত্বহত্যা করবে বলে গনমাধ্যম সহ স্হানীয় লোকজনকে জানায় পারভিন। পারভিন এর দুই ছেলে এক মেয়ে এবং স্বামী সংসার থাকায় সামাজিকভাবে মিমাংসার প্রস্তাব দিলে পারভিন আবারো আত্বহত্যার হুমকি দিয়ে সতর্ক করেন।
পারভিন জানায়, আইনের আশ্রয় নেওয়ার মত আমার কাছে একমাত্র কাগজের চিঠি ছাড়া কোন ডকুমেন্টস নাই। দুলাল আমাকে বিয়ে করার প্রতিশ্রতি দিয়ে ভুলিয়ে ভালিয়ে আমার কাছ থেকে অনেক টাকা পয়সা নিয়েছে। কিছুদিন পূর্বে চিঠির মাধ্যমে বিয়ে করার অঙ্গিকার করলে আমি দুলালের বাড়িতে আসি। দুলাল আমাকে প্রত্যাখান করলে আত্বহত্যা ছাড়া আর কোন পথ থাকবেনা।
দুলালের পরিবার সূত্রে জানা যায়, পূর্বে পারভিনের সাথে এরকম গুজবের কারনে পারিবারিকভাবে অনেক লাঞ্ছিত হতে হয়েছে বিষয়টি সামাজিকভাবে মিমাংসাও করা হয়েছে। পরে দুলালকে অন্যথায় বিয়ের পর এরকম কোন ঘটনায় ঘটেনি। আজ নতুন করে পরিকল্পিতভাবে দুলাল কে ফাঁসানো হচ্ছে বলে দুলালের পরিবার সূত্র জানান।
উল্লেখিত বিষয়ে হাটগাঙ্গোপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে যোগাযোগ করা হলে পুলিশ পরিদর্শক মো: রফিকুল ইসলাম জানান, গৃহবধু পারভিন কে বাদি করে দুলালকে আসামী করে বাগমারা থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। আসামী দুলাল পলাতক থাকায় দুলালকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি, তবে গ্রেফতারের জোর প্রক্রিয়া চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here