স্বর্ণের গুনগত মান যাচাইয়ে সৈয়দপুরে গোল্ড হলমার্ক সেন্টারের উদ্বোধন

0
76

মিজানুর রহমান মিলন সৈয়দপুর থেকে : নীলফামারীর সৈয়দপুরে “মানসম্পন্ন অলংকার, স্বর্ণশিল্পের অহংকার” শ্লোগানকে সামনে রেখে সৈয়দপুর গোল্ড হলমার্ক সেন্টারের উদ্বোধন করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার সকালে শহরের শেরে বাংলা সড়কে বাবু আলী কমপ্লেক্সে ওই সেন্টারের উদ্বোধন করা হয়। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন সৈয়দপুর উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) মো. রমিজ আলম। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন সৈয়দপুর পৌরসভা ৫ নম্বর ওয়ার্ড মো. নজরুল ইসলাম রয়েল। স্বর্ণের গুনগত মান যাচাই প্রতিষ্ঠান সৈয়দপুর গোল্ড হলমার্ক সেন্টারের সভাপতি মো. হায়দার আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে গোল্ড হলমার্ক সেন্টারের মূল উদ্যোক্তা মো. ওবায়দুল ইসলাম, মো. হানিফ, নীলফামারী জুয়েলার্স সমিতির সভাপতি মো. সামসুল হক, সৈয়দপুর জুৃয়েলার্স সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. মিজান, সৈয়দপুর উপজেলা স্বর্ণশিল্প কারিগর পরিষদের সভাপতি মো. নুরুজ্জামান রাজু, সহ- -সভাপতি মো. আশিক হোসেনসহ জুয়েলার্স ব্যবসায়ী ও কারিগররা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানের শুরুতেই ফুলেল শুভেচ্ছায় অতিথিদের অভিনন্দন জানানো হয়। পরে ফিতা কেটে সৈয়দপুর গোল্ড হলমার্ক সেন্টারের উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) মো. রমিজ আলম। উদ্বোধনের পর কেক কেটে অতিথিদের আপ্যায়ণ করা হয়। এর আগে অতিথিরা স্বর্ণের গুনগত যাচাই ও পরিশুদ্ধকরণে সৈয়দপুর গোল্ড হলমার্ক সেন্টারে স্থাপিত আমেরিকান তৈরি মূল্যবান মেশিনপত্রের কার্যক্রম প্রত্যক্ষ করেন। সৈয়দপুর গোল্ড হলমার্ক সেন্টারের উদ্যোক্তারা জানান, হলমার্ক স্বর্ণালংকার বিশ্বব্যাপী সমাদৃত ও গ্রহনযোগ্য। কয়েক বছর আগে আমাদের দেশেও এর প্রচলণ শুরু হয়েছে। বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতির পৃষ্ঠপোষকতায় সনাতন পদ্ধতির স্বর্ণালংকার পিছনে ফেলে দেশব্যাপী আজ হলমার্ককৃত স্বর্ণালংকার জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। কারণ স্বর্ণের ১৮, ২১ ও ২২ ক্যারেটের অলঙ্কার তৈরিতে নিদির্ষ্টমান ও মাপের সোনা, রূপা ও তামার সংমিশ্রণ অত্যাবশ্যক। ফলশ্রুতিতে এখন থেকে বাণিজ্যিক শহর সৈয়দপুরেও গোল্ড হলমার্ক সেন্টারের যাত্রা শুরু হলো। বিশ্বসেরা প্রযুক্তির সমন্বয়ে এই হলমার্ক সেন্টারটি একটি মানসম্পন্ন প্রতিষ্ঠানে পরিণিত হবে। প্রতিষ্ঠানটি এলাকার জুয়েলারী ব্যবসায়ী, স্বর্ণশিল্পী ও স্বর্ণালংকার গ্রাহকদের অত্যন্ত অল্প খরচে মূল্যবান স্বর্ণালংকারের সঠিক মান যাচাই অগ্রণী ভূমিকা রাখবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here