যেমন চলছে এমডি বিহীন ব্যাংকগুলো

0
52
ব্যাংক

খবর ৭১:  বর্তমানে এমডি ছাড়াই চলছে দেশের তিনটি ব্যাংক। এর মধ্যে রয়েছে ন্যাশনাল, পূবালী ও ট্রাস্ট ব্যাংক। অন্যদিকে বাংলাদেশ ইন্ডাস্ট্রিয়াল ফাইন্যান্স কোম্পানি লিমিটেড (বিআইএফসি), ফার্স্ট ফাইন্যান্স, মেরিডিয়ান ফাইন্যান্স, ইন্টারন্যাশনাল লিজিং ও আইডিএলসি ফাইন্যান্স লিমিটেড নামের আার্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর এমডি পদ এখনও খালি রয়েছে।

সূত্র জানায়, দীর্ঘ সময় পর ২০১৮ সালের ৩০ জানুয়ারি ন্যাশনাল ব্যাংকের এমডি হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন চৌধুরী মোসতাক আহমেদ। তিন বছর মেয়াদ শেষ হয়েছে ২০২০ সালের জানুয়ারি মাসে। এর পর থেকে ফাঁকাই রয়েছে এমডির পদ। বেসিক ব্যাংকের এমডির মেয়াদ শেষ হয়েছে চলতি বছরের ২ ফেব্রুয়ারি। এখন এমডি ছাড়াই চলছে ব্যাংকটি। পূবালী ব্যাংকও চলছে ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালকের মাধ্যমে। তিন মাস পদ খালি থাকলেও গত ১৩ মার্চ প্রাইম ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের দায়িত্ব নিয়েছেন হাসান ও. রশীদ। ৮ ডিসেম্বর রাহেল আহমেদের পদত্যাগের পর থেকেই ফাঁকাই ছিল পদটি।

পূবালী ব্যাংকের চেয়্যারম্যান মনজুরুর রহমান বলেন, ব্যাংকিং কার্যক্রম পরিচালনায় আমাদের ব্যাংকের কোনো সমস্যা নেই। ভারপ্রাপ্ত ব্যক্তিই এখন ব্যবস্থাপনা পরিচালকের দায়িত্ব পালন করছেন। তাছাড়া এমডি নিয়োগের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। অনেকগুলো আবেদন পড়েছে। যাচাই-বাছাইয়ের কাজ চলছে। আইন অনুযায়ী তিন মাসের মধ্যেই যোগ্য ব্যক্তিকে এই ব্যাংকের এমডি হিসেবে নিয়োগ দিতে পারবেন বলে আশা ব্যক্ত করেন তিনি।

এ বিষয়ে একজন সাবেক ব্যাংকার বলেন, ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের এমডিদের সময়মতো নিয়োগ দেয়া উচিত। প্রত্যেক দেশে এমডি অবসরে যাওয়ার দুই থেকে তিন মাস আগেই নতুন এমডি নিয়োগ দেয়া হয়। এক্ষেত্রে একজন থাকেন ডেজিগনেট এমডি, আর অন্যজন হচ্ছেন এমডি। যখন এমডি অবসর গ্রহণ করেন, তখন ডেজিগনেট এমডি কাজ বুঝে নেন। আমাদের দেশে এসব কালচার নেই।

ব্যাংক কোম্পানি আইনের ১৫ক ধারার ২ উপধারায় বলা হয়েছে, কোনো ব্যাংকের এমডি পদ একাধারে তিন মাসের বেশি শূন্য রাখা যাবে না। ৩ উপধারায় বলা হয়েছে, এ সময়ের মধ্যে এমডি পদ পূরণ না হলে বাংলাদেশ ব্যাংক প্রশাসক নিয়োগ দিতে পারে, যিনি ব্যাংকের এমডির দায়িত্ব পালন করবেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত ২০ জানুয়ারি পদত্যাগ করেন ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস লিমিটেডের (আইএলএফএসএল) ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) আবদুল খালেক খান। এর পর থেকে এমডি ছাড়াই চলছে ইন্টারন্যাশনাল লিজিং। ব্যাংকবহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে নামকরা প্রতিষ্ঠান আইডিএলসি ফাইন্যান্স। এই প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক আরিফ খানও চলতি মাসের ১ তারিখে পদত্যাগ করেছেন। ফাঁকা রয়েছে পদটি।

জানতে চাইলে ইন্টারন্যাশনাল লিজিংয়ের চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম খান বলেন, ‘এরই মধ্যে আমরা বিজ্ঞাপন দিয়েছি। বোর্ডও গঠন করা হয়েছে। কিছু আবেদন পড়েছে। তবে চাহিদা অনুযায়ী এমডি খুঁজে পাচ্ছি না। ডিএমডি নিয়োগের জন্যও অ্যাড দেয়া হয়েছে। প্রাথমিক সিলেকশন হয়ে গেছে। এমডি ছাড়া আর্থিক কার্যক্রম পরিচালনায় সমস্যা হচ্ছে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, সমস্যা তো হচ্ছেই। তবে প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে যে সময় লাগে তা তো দিতে হবে। তাছাড়া বাংলাদেশ ব্যাংকেও অনুরোধ করা হয়েছে, যাতে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রতিনিধি নিয়োগ দেয়া হয়। এর মাধ্যমে সংকটকালের কাজগুলো করা যায়।

ব্যাংক বা আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে দীর্ঘদিন এমডিহীন থাকা প্রসঙ্গে বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. সালেহ উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘আমাদের এখানে যেদিন এমডি অবসরে যাবেন, সেদিন কিংবা তার পরে নতুন এমডি নিয়োগ দেয়া হয়। এটা ভুল চর্চা। এর ফলে প্রতিষ্ঠানের ব্যবসায়িক ধারাবাহিকতা থাকে না। আগের জনের ধারণার সঙ্গে পরের জনের চিন্তা-ভাবনার মিলও থাকে না। তাই এমডি নিয়োগ দেয়ার ক্ষেত্রে এসব বিবেচনা করে অবসরের কয়েক মাস আগেই নতুন এমডি নিয়োগের বিষয়ে নজর দেয়া উচিত।’

তিনি আরও বলেন, ব্যবস্থাপনা পরিচালকের পদ খালি হওয়ার পর তিন মাস সময় দেয়ার কোনো যুক্তি নেই। এই সময় আরও কমানো উচিত। কারণ একটি ব্যাংক বা আর্থিক প্রতিষ্ঠান এমডি ছাড়া চলতে পারে না। ভারপ্রাপ্ত এমডি সব ক্ষেত্রে ব্যাংকের দায়িত্ব পালন করতে পারেন না। তাই যত দ্রুত সম্ভব নিয়োগ কার্যক্রম সম্পন্ন করা উচিত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here