তাহিরপুরে সংবাদ প্রকাশের জেড়; বিজিবির মামলার সাংবাদিক মোজাম্মেল আটক

0
66
তাহিরপুরে সংবাদ প্রকাশের জেড়; বিজিবির মামলার সাংবাদিক মোজাম্মেল আটক
সাংবাদিক মোজাম্মেল আলম ভূঁইয়া।

খবর৭১ঃ

জাহাঙ্গীর আলম ভূঁইয়া, সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সরকারের রাজস্ব বঞ্চিত করে সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলা সীমান্তের বিভিন্ন চোরাই পথে আসে কয়লা ও চুনাপাথর। এছারাও যুবসমাজ ধংশকারী বিভিন্ন মাদকসহ চুরাই পথে আসা মালামালের সংবাদ প্রকাশের কারনে সাংবাদিক মোজাম্মেল আলম ভূঁইয়ার বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার(২৭,১১,২০২০) দুপুরে আইসিটি আইনে একটি মামলা দায়ের করে বিজিবি।

মোজাম্মেল আলম ভূঁইয়া কে আসামী করে সীমান্তের চোরাচালানীরা সুনামগঞ্জ ২৮ বিজিবি অধিনায়ক মাকসুদুল আলমকে প্রভাবিত করে একটি কুচক্রী মহল সুনামগঞ্জ ২৮ বিজিবির রাসেল নামে এক নায়েককে দিয়ে মামলা দায়ের করায় বলে জানাযায়। মামলা দায়েরের পর তাহিরপুর থানা পুলিশ উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নের বাজারের কামাড়পট্রি থেকে সন্ধ্যায় সাংবাদিক মোজাম্মেল কে আটক করে। তিনি সাংবাদিক জাহাঙ্গীর আলম ভূঁইয়ার বড় ভাই। এঘটনায় জেলা ও উপজেলায় কর্মরত সাংবাদিকদের মাঝে চরম ক্ষোব বিরাজ করছে। আটকের নিন্দা জানিয়েছে সচেতন মহল ও সকল সাংবাদিকগন এই মামলা প্রত্যাহারেরও দাবী জানিয়েছে। আমির উদ্দিন, শফিক মিয়াসহ জেলা ও উপজেলার সচেতন মহল জানান, সাংবাদিক মোজাম্মেল আলম ভূঁইয়া দেশের স্বার্থে, উঠতি বয়সী যুব সমাজ রক্ষায় ও সরকারের রাজস্ব বৃদ্ধির জন্য সংবাদ প্রকাশ করেছে।

কোন প্রতিষ্ঠান বা ব্যক্তিকে হেয়প্রতিপন্ন করেন নি। কিন্তু বিজিবি কেন এমন মামলা দায়ের করল বুজে আসছে না। এটা পরিকল্পিত মামলা তা বুজা যায়। আটক সাংবাদিক মোজাম্মেল আলম ভূঁইয়া দৈনিক আলোকিত সকাল ও প্রতিদিন বাংলাদেশ পত্রিকায় সাংবাদিক কতার পাশাপাশি বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির সহকারী পরিচালক হিসাবে কাজ করছেন জানি। তিনি এর পাশাপাশি নাটক ও মডেলিং করেছেন। রয়েছে একটি ইউটিউব চ্যানেল। তাহিরপুর উপজেলা সীমান্তের বসবাসকারী মানুষ জানায়, উপজেলা সীমান্তের মাদক, অস্ত্র, কয়লা, পাথর চোরাকারবারি, গাড়ি চোর চক্র, জাদুকাটা নদীর বালু-পাথর চোর চক্রসহ চাঁদাবাজসহ নানা অপরাধীর সঙ্গে গোপন সখ্য গড়ে তুলে নগদ ও বিকাশে অর্থ আয় ও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে-ইমেইলে প্রশাসন, পুলিশ, বিজিবি, র‍্যাবসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, সাধারণ মানুষ, সাংবাদিক, শিক্ষক, ব্যবসায়ী, সুশীল সমাজসহ নানা শ্রেণি-পেশার লোকজনের বিরুদ্ধে গুজব, কুৎসা রটনা করে আসছিল সরকার বিরোধী একটি শক্তিশালী সিন্ডিকেট।

এছাড়া ঐ সিন্ডিকেট বিভিন্ন অনলাইনে ভুয়া, মিথ্যা সংবাদ প্রকাশের পর ২৫ হতে ৩০টি ফেসবুক আইডিতে পোস্ট করে আসছিল যাদের নামে রয়েছে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী মন্ত্রী শেখহাসিনা ও সজিব ওয়াজেদ জয়ের পোষ্টার পুরানো মামলা, হিন্দু সম্প্রদায় মূর্তি ভাংচুর,চাদাঁবাজি মামলাসহ বিভিন্ন মামলা। তাদের বিরুদ্ধে সাংবাদিক মোজাম্মেল আলম ভূঁইয়া সত্যতার সাথে অনিয়ম গুলো তুলে ধরেন তখনেই একের পর এক পরিকল্পিত মামলা দায়ের করে চাঁদাবাজি মামলা ও চোরাচালানী মামলার আসামীসহ সরকার বিরোধী ও তথ্য সন্ত্রাসীরা। বন্ধ করে দেয় তার কলম। এর পরেই ঐসব তথ্য সন্ত্রাসী ও সরকার বিরোধীরা নানান কল্প কাহিনী সাজিয়ে মনগড়া সংবাদ প্রকাশ করে।

এছাড়াও তাহিরপুর উপজেলার সৎ ও সাহসী সাংবাদিকতার জন্য ইতিপূর্বে একাধিক বার সীমান্তের চোরাচালানীদের হামলা মিথ্যা মামলার শিকার হয়েছেন মোজাম্মেল। বিচার প্রার্থী হলেও কোন বিচারপাননি। Hide quoted text আইসিটি আইনে মামলা দায়েরের বিষয়ে সাংবাদিক জাহাঙ্গীর আলম ভূঁইয়া জানান,এই মামলাটি সম্পুর্ন উদ্দেশ্য প্রনোদিত। তাহিরপুর উপজেলা সীমান্তে সরকার রাজস্ব বঞ্চিত হওয়া ও যুবসমাজ রক্ষায় চোরাচালানীদের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে। মামলা করলে ত যেসব চোরাচালানীদের নাম উল্লেখ্য করে সংবাদ হয়েছে তারা মামলা করত বিজিবি কেন বাদি হয়ে মামলা করল তা বিজিবিই ভাল যানে। আমি আশা করব আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর উধর্বতন কতৃপক্ষ সহ গোয়েন্দা সংস্থা দায়িত্বশীল লোকজন সুনজর দিবেন।

সেই সাথে আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার সুদৃষ্ট কামনা করছি আইসিটি আইনে মামলার বিষয়ে তাহিরপুর থানার ওসি মোঃ আব্দুল লতিফ তরফদার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সুনামগঞ্জ ২৮ বিজিবির নায়েক রাসেল আইসিটি আইনে মোজাম্মেল আলম ভূঁইয়া কে আসামি করে তাহিরপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলার প্রেক্ষিতে পুলিশ থাকে গ্রেপ্তার করেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here