ট্রেনের সঙ্গে ট্রাকের সংঘর্ষ: ৭ ঘণ্টা পর রেলযোগাযোগ স্বাভাবিক

0
50
ট্রেনের সঙ্গে ট্রাকের সংঘর্ষ: ৭ ঘণ্টা পর রেলযোগাযোগ স্বাভাবিক

খবর৭১ঃ ট্রেনের সঙ্গে ট্রাকের সংঘর্ষের ঘটনার ৭ ঘণ্টা পর খুলনার সঙ্গে সারা দেশের ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে।

শনিবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে রিলিফ ট্রেন রেললাইনের ওপর থেকে ট্রাকটি সরানোর কাজ শেষ করলে রেল চলাচল শুরু হয়।

এর আগে সন্ধ্যা ৭টা ১০ মিনিটের দিকে খুলনা-বেনাপোল মহাসড়কের মুড়লি রেলক্রসিংয়ে ট্রেনের সঙ্গে ট্রাকের সংঘর্ষে ট্রাকচালক নিহত ও হেলপার আহত হন। এর পরই খুলনা অঞ্চলের সঙ্গে রেলযোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়।

জানা যায়, ৭টা ১০ মিনিটের দিকে কয়লাবোঝাই একটি ট্রাক রেললাইনের ওপর উঠে পড়ে। এ সময় রাজশাহী থেকে ছেড়ে আসা খুলনাগামী কপোতাক্ষ এক্সপ্রেস ট্রেনটি ট্রাকটিকে ধাক্কা দিয়ে প্রায় ৩০০ গজ ঠেলে নিয়ে যায়।

দুর্ঘটনায় ট্রাকচালক ঘটনাস্থলেই নিহত হন। হেলপার আহত হন। তাকে গুরুতর অবস্থায় যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

যশোর রেলস্টেশনের স্টেশনমাস্টার আয়নাল হাসান জানান, দুর্ঘটনার পর চারটি ট্রেন চলাচল বন্ধ ছিল। এতে খুলনার সঙ্গে সারা দেশের ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পরে খুলনা থেকে রিলিফ ট্রেন এনে রেললাইনের ওপর থেকে ট্রাকটি সরানোর কাজ শুরু হয়। রাত আড়াইটার দিকে ট্রাকটি সরানোর কাজ শেষ হয়। এর পর ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়।

যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি মনিরুজ্জামান জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে- ক্রসিংয়ের প্রতিবন্ধক দণ্ড নামানো না থাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। তবে গার্ডের দাবি, তিনি দণ্ড নামিয়েছেন।

যশোর রেলওয়ে জংশনের স্টেশনমাস্টার সাইদুজ্জামান জানান, দুর্ঘটনায় ট্রেনের ইঞ্জিন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ট্রাকটি রেললাইনের ওপর আটকে থাকায় রেলযোগাযোগ বন্ধ থাকে।

রেলওয়ের সহকারী নির্বাহী প্রকৌশলী ওয়ালিউল হক জানান, রেলক্রসিংয়ের গার্ড বিকাশ প্রথমে ট্রেন যাওয়ার জন্য সবুজ সংকেত দিয়েছেন। প্রতিবন্ধক দণ্ড না নামিয়ে এ সংকেত দেয়ার কথা নয়। আবার প্রতিবন্ধক দণ্ড নামানো থাকলে ট্রাকটি রেললাইনে ওঠার কথা নয়। বিষয়টি তদন্তসাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here