মদনের ইউএনও পদোন্নতি পেয়ে শেরপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক

0
345
মদনের ইউএনও পদোন্নতি পেয়ে শেরপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক

আব্দুল আওয়ালঃ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইজবুক পেইজে বিশ্ব মহামারি করোনাভাইরাস মোকাবেলার সচেতনতার প্রশংসায় ভাসা মদন উপজেলার ইউএনও (র‌্যাবের আইন কর্মকর্তা হিসেবে বদলীর আদেশাধীন) মো. ওয়ালীউল হাসান পদোন্নতি পেয়ে শেরপুর জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক হলেন। বৃহস্পতিবার (৪ জুন) রাষ্ট্রপতির আদেশ ক্রমে সিনিয়র সহকারী সচিব শেখ রাসেল হাসানের স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে এ আদেশ দেয়া হয়।

প্রত্যন্ত এ হাওরাঞ্চলে সাধারণ মানুষকে সচেতনতা বিষয়ে বুঝাতে রীতিমত হিমশিম খাচ্ছেন এ কর্মকর্তা। এ উপজেলায় নেই কোন ভালো চিকিৎসা ব্যবস্থা তবুও জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মানবতার কল্যাণে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ওয়ালীউল হাসান একটি পৌর শহর ও ৮টি ইউনিয়নের বিভিন্ন হাটবাজারে গ্রাম-মহল্লায় জনসাধারণকে সচেতন করার লক্ষ্যে জনসচেতনমূলক কাজ করে যাচ্ছেন।

গৃহবন্দি, নিম্নবিত্ত, রিক্সা ও ভ্যান চালক, দরিদ্র ও হতদরিদ্র অসহায় পরিবারের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণের কাজে ছুটে যাচ্ছেন বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদ , গ্রাম- মহল্লায় ও বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দিচ্ছেন খাদ্য সামগ্রী। মনিটরিং করছেন বিভিন্ন হাটবাজারের নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্য বাজার নিয়ন্ত্রণ।

সাধারণ মানুষের দ্বার প্রান্তে জনসেবা পৌঁছে দিতে জমি-জমা সংক্রান্ত বিরোধ মিটাতে সরকারি ভূমি রক্ষার স্বার্থে ছুটে যান উপজেলার বিভিন্ন স্থানে। কর্মদক্ষতা ও সততার মাধ্যমে জায়গা করে নিয়েছে গরীব দুঃখী ও শ্রমজীবী বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের অন্তরে। অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন উপজেলাবাসীর জন্য। তবুও নেই কোন ক্লান্তি। ন্যায় ও নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করছেন তিনি।

ফলে একের পর এক সামাজিক ও মানবিক উদ্যোগ গ্রহণ করায় এবং অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক হিসেবে পদোন্নতি পাওয়ায় এলাকার সাধারণ মানুষসহ বীর মুক্তিযোদ্ধা ফেইজবুক পেইজেও প্রশংসিত হচ্ছেন তিনি।

পৌরমুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সামছুল হক খসরু তার ফেইজবুক পেইজে লিখেছেন, সুযোগ্য উপজেলা নির্বাহী অফিসার মদন, নেত্রকোণা। আমার সুযোগ হয়েছিল স্যারের সাথে বিভিন্ন সময় মুক্তিযোদ্ধাদের বিষয়ে আলোচনায় অংশ নেয়ার। উপজেলা কমান্ড বিলুপ্ত হবার পর দায়িত্ব পালন করে সকলের আস্থা ও বিশ্বাস অর্জনে সমর্থ হয়েছেন। করোনা প্রাদুর্ভাবের পর থেকে মাঠে থেকে ভূমিকা রাখছেন, আল্লাহ আপনাকে মানব সেবায় অগ্রণী ভূমিকা রাখায় জনগণের দৃষ্টি আকর্ষণে সমর্থ হয়েছেন, আল্লাহ আপনাকে ভাল রাখুন, আমিন।

তার পদোন্নতির খবর শুনে আরেক জন সমাজকর্মী লিখেছেন, একজন মানুষ আমাদের নিরাপদ রাখতে দিন রাত নিরলস পরিশ্রম কর যাচ্ছেন। আপনার সুস্থতা ও দীর্ঘায়ু কামনা করি স্যার। কোন দিন আপনাকে আমরা ভুলব না স্যার। বিপদেই বন্ধুর পরিচয় মিলে। আপনি মদনবাসীর বন্ধু হয়ে চিরকাল মদনবাসীর হৃদয়ে থাকবেন।

একজন সমাজকর্মী তার ফেইজবুক পেইজে লিখেছেন অসহায় মানুষকে খুবই ভালোবাসেন।উনার কাছে ছিল সবাই সমান। তিনি কখনো কাউকে রাগান্বিত হয়ে কথা বলেননি।

কর্মজীবনে প্রথমেই সহকারী কমিশনার (ভূমি) ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলা থেকে বদলি হয়ে ২০১৭ সালের ৯ মার্চ মদন উপজেলায় প্রথম উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিসেবে যোগদান করেন। যোগদানের পরেই এ হাওরাঞ্চলে আগাম বন্যা আসে। তলিয়ে যায় কাচা, পাকা ও আধা পাকা ধান। হাওরের কৃষকদের সহযোগিতা করতে গ্রামে গ্রামে ছোটে চলেছেন। যোগদানের পর থেকেই সততা, নিষ্ঠার আর আন্তরিকতার সাথে দায়িত্ব পালন করছেন। বর্তমান পরিস্থিতি করোনা প্রতিরোধে অনন্য উদারণ সৃষ্টি করেছেন তিনি। ইতোমধ্যে জনগণের নিরাপত্তায় নিয়োজিত থেকে করোনা মোকাবেলায় জনগণকে সচেতন ও জনসমাগম থেকে মানুষকে দূরে রাখতে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here