প্রতারণা ও ভন্ডামির রাজনীতি করে দেশের মানুষকে ভুলপথে পরিচালিত করছে আ’লীগ : সৈয়দপুরে মির্জা ফখরুল

0
70

মিজানুর রহমান মিলন, সৈয়দপুর থেকে :
বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন,বর্তমানে আওয়ামী লীগের কারণ দেশে একটি ভয়াবহ রাজনৈতিক সংকট সৃষ্টি হয়েছে। বর্তমান সরকার আমাদের সব অর্জনকে ধ্বংস করে দিয়েছে। তারা (আওয়ামীলীগ) সবসময় মিথ্যা কথা বলে, প্রতারনা ও ভন্ডামির রাজনীতি করে এ দেশের মানুষকে ভূল পথে পরিচালিত করছে। মুখে গণতন্ত্রের কথা বললেও তারা স্বৈরাচারী আচরণ করছে প্রতিনিয়ত। সোমবার (২০ মার্চ) দুপুরে সৈয়দপুর পৌর কমিউনিটি সেন্টারের হলরুমে সৈয়দপুর রাজনৈতিক জেলা বিএনপির শাখার দ্বিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান বক্তা হিসেবে তিনি এসব কথা বলেন। উৎসবের আমেজে দীর্ঘ ৭ বছর পর অনুষ্ঠিত এ সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক অ্যাডভোকেট এস এম ওবায়দুর রহমান। তিনি আরো বলেন, রাজনৈতিক সংকটকালে শেখ হাসিনা সরকারের অধীনে কোনও নির্বাচনে বিএনপি যাবে না। ২০১৪ সালে নির্বাচন করেছে, কিন্তু কোনো নির্বাচনই হয়নি। ওই নির্বাচনে ১৫৪ জনকে বিনা প্রতিন্দ্বিতায় নির্বাচিত করেছে। ২০১৮ সালের নির্বাচনে আগের রাতে নির্বাচিতদের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। এ সরকার ক্ষমতায় আসার পরে রাষ্ট্রের সব প্রতিষ্ঠানকে একে একে ধ্বংস করেছে।’ মির্জা ফখরুল বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার সম্পূর্ণভাবে জুডিশিয়ারিকে নিয়ন্ত্রণ করছে। তারা সংসদকে ধ্বংস করে দিয়েছে। সেখানে কোন জবাবদিহিতা নাই, বির্তক হয়না, দেশ সম্পর্কে কোন আলোচনা হয়না। আওয়ামীলীগ দূর্নীতি ও সন্ত্রাস করতে ভালো জানে। আবারও নতুন করে একতরফা নির্বাচনের পাঁয়তারা শুরু করেছে জানিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, দেশের স্বার্থে জনগনকে সাথে নিয়ে এ নির্বাচনকে আমাদের অবশ্যই প্রতিহত করতে হবে। সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন, বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক (রংপুর বিভাগ) সাবেক উপমন্ত্রী অধ্যক্ষ আসাদুল হাবিব দুলু, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুল খালেক ও সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম। এ ছাড়াও সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে প্রধান অতিথি হিসেবে ভার্চুয়ালি বক্তব্য রাখার কথা রয়েছে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা ফরহাদ হোসেন আজাদ, সাবেক সংসদ সদস্য শওকত চৌধুরীসহ রংপুর বিভাগের বিভিন্ন জেলার নেতৃবৃন্দ। এদিকে সম্মেলনের প্রথম অধিবেশন শেষে নেতৃত্ব নির্বাচনে কাউন্সিলরা সভাপতি,সাধারন সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদক পদে ভোট প্রদান করেন। সভাপতি পদে লড়াইয়ে অবতীর্ন হন জেলা বিএনপির সাবেক আহবায়ক অধ্যক্ষ আব্দুল গফুর সরকার ও শহর বিএনপির সাবেক সাধারন সম্পাদক প্রভাষক শওকত হায়াত শাহ,সাধারন সম্পাদক পদে জেলা বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক শাহিন আকতার ও জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম আহবায়ক আব্দুল খালেক ও সাংগঠনিক সম্পাদক পদে আনোয়ার হোসেন প্রামাণিক, এম এ পারভেজ লিটন ও মনোয়ার হোসেন মন্টু। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ভোট গননা চলছিল। বিএনপির সূত্রে জানা যায়, সর্বশেষ সৈয়দপুর সাংগঠনিক জেলা বিএনপির দ্বিবার্ষিক সম্মেলন হয় ২০১৬ সালে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here