যে কোনো সময় ইমরান খান গ্রেফতার

0
24

খবর৭১ঃ পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) চেয়ারম্যান এবং দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানসহ তার দলের শীর্ষ ১৫০ নেতার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।
সংবাদমাধ্যম ডন, এক্সপ্রেস ট্রিবিউন ও জিও নিউজের খবরে বলা হয়, রোববার (০১ মে) মুহাম্মদ নাইম নামে ফয়সালাবাদের এক বাসিন্দা ব্লাসফেমি আইনে এ মামলা দায়ের করেন।
মামলায় ইমরান খান ছাড়াও নাম আছে পাকিস্তানের সাবেক তথ্যমন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী, সাবেক ডেপুটি স্পিকার কাসিম সুরি, শেহবাজ গিল, সাহিবজাদা জাহাঙ্গীর, অনীল মুসাররাত ও সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ রশিদ আহমেদের। রশিদ আহমেদের ভাতিজা শেখ রশিদ শফিকের নামও মামলার এজাহারে রয়েছে।

ইমরান খান ও তার দলের শীর্ষ নেতাদের বিরুদ্ধে দায়ের করা এ মামলার একটি কপি হাতে পেয়েছে পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম ডন। এর বরাতে ডন জানিয়েছে, পাকিস্তানের দণ্ডবিধির ২৯৫ (ধর্মীয় স্থাপনার পবিত্রতা নষ্ট এবং ক্ষতিসাধন), ২৯৫-এ ও ১০৯ ধারায় মামলাটি করা হয়েছে।

গত শুক্রবার (২৯ এপ্রিল) নিজের প্রতিনিধি দলের সঙ্গে মদিনার মসজিদে নববিতে নামাজ পড়তে যান পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ। এ সময় তিনি ও তার দলের সদস্যরা পাকিস্তানি অনেক হজযাত্রীর তোপের মুখে পড়েন। ওই হজযাত্রীরা শাহবাজ শরিফের উদ্দেশে ‘চোর, চোর’ স্লোগান দেওয়া শুরু করেন।

অভিযোগে বলা হয়, মসজিদে নববির ঘটনা ‘পুরোপুরি সুপরিকল্পিত এবং ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে’ করা হয়েছিল। বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেল ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করা ভিডিওগুলোতে এ ঘটনার প্রমাণ রয়েছে বলে দাবি অভিযোগকারীর।

এদিকে, শাহবাজ শরিফ এবং তার প্রতিনিধি দলের বিরুদ্ধে ‘গুণ্ডামি এবং স্লোগান’ দেওয়ার মামলায় ইমরান খানকে গ্রেফতার করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রানা সানাউল্লাহ।

রোববার (০১ মে) এক বিবৃতিতে ইমরান খানকে ‘ফিতনা’ আখ্যা দিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তারা (ইমরান ও তার দলের নেতারা) যা করেছে, এর জন্য তাদের কিছুতেই ক্ষমা করা হবে না। ইমরান খান নিশ্চিতভাবে গ্রেফতার হবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here