নারায়ণগঞ্জ নির্বাচনের প্রচারণা শেষ হচ্ছে মধ্যরাতে

0
11

খবর৭১ঃ নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণা শেষ হচ্ছে আজ। নির্বাচন কমিশনের ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী আগামী রবিবার সকাল আটটা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হবে। তার আগে নির্বাচনী আচরণবিধি অনুযায়ী আজ শুক্রবার দিবাগত রাত ১২টা থেকে সব ধরনের নির্বাচনী প্রাচার-প্রচারণা বন্ধ থাকবে।

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচনে এবার পাঁচ লাখ ১৭ হাজারের মতো ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। ভোট সুষ্ঠু করতে নির্বাচন কমিশন বন্ধপরিকর বলে জানিয়েছে।

প্রচার-প্রচারণার শেষ দিন আজ শুক্রবার ভোর থেকেই প্রধান দুই প্রার্থী নগরীজুড়ে ব্যাপক প্রচারণা চালাচ্ছেন। প্রার্থীদের পদচারণায় নগরী মুখর হয়ে উঠেছে। ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোট চাচ্ছেন তারা।

নির্বাচনী পরিবেশ সুষ্ঠু থাকলে জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী প্রধান দুই প্রতিদ্বন্দ্বী।

কে হচ্ছেন নারায়ণগঞ্জ সিটির নতুন মেয়র তা নিয়ে চলছে নানা জল্পনা-কল্পনা। ভোট নিয়ে চলছে শেষ মুহূর্তের নানা সমীকরণ। নির্বাচনে মেয়র পদে জয়-পরাজয়ে নিয়ামক বা ফ্যাক্টর কারা হবেন, তা নিয়ে চলছে চুলচেরা বিশ্লেষণ। ভোট কেমন হবে তা নিয়েও শেষ মুহূর্তে অনেকের মধ্যে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা আর সংশয় বিরাজ করছে।

জয়ের জন্য প্রতিনিয়ত নিজেদের মতো করে কৌশল নিয়ে এগোচ্ছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী সেলিনা হায়াৎ আইভী ও স্বতন্ত্র প্রার্থী তৈমূর আলম খন্দকার। তারা ভোটারদের মন জয়ে দিচ্ছেন নানা প্রতিশ্রুতি।

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করতে ৯টি সংস্থার ৪২ পর্যবেক্ষককে অনুমতি দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। নির্বাচন কমিশনের জনসংযোগ পরিচালক এস এম আসাদুজ্জামান গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সংস্থাগুলো হলো- জাতীয় নির্বাচন পর্যবেক্ষণ পরিষদ (জানিপপ), সার্ক মানবাধিক ফাউন্ডেশন, আইন সহায়তা কেন্দ্র (আসক) ফাউন্ডেশন, সমাজ উন্নয়ন প্রয়াস, তৃণমূল উন্নয়ন সংস্থা, তালতলা যুব উন্নয়ন সংগঠন, রিহাফ ফাউন্ডেশন, বিবি আছিয়া ফাউন্ডেশন এবং মানবাধিকার ও সমাজ উন্নয়ন সংস্থা-মওসুস।

তবে পর্যবেক্ষক হিসেবে কাজ করতে নির্বাচন পর্যবেক্ষণ নীতিমালা মানার পাশাপাশি এসব সংস্থাকে ভোট শেষ হওয়ার এক সপ্তাহের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিলের শর্ত দিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

আগামী রবিবার অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া নারায়ণগঞ্জ সিটির তৃতীয় নির্বাচনে মেয়র পদে নৌকার প্রার্থী সেলিনা হায়াৎ আইভী ও স্বতন্ত্র প্রার্থী তৈমূর আলম ছাড়াও আরও পাঁচজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১৪৮ জন ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে রয়েছেন ৩২ জন।

প্রায় ২০ লাখ মানুষের এ সিটিতে ভোটার ৫ লাখ ১৭ হাজার ৩৫৭ জন। নারী ভোটার-২ লাখ ৫৭ হাজার ৫১৯ আর পুরুষ ভোটার-২ লাখ ৫৯ হাজার ৮৩৪ জন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here