বাগেরহাটে নির্বাচন পরবর্তী আবারো সংঘর্ষ,আহত-১০

0
48

বাগেরহাট প্রতিনিধি: বাগেরহাট সদর উপজেলার বিষ্ণুপুর ইউনিয়নে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতা দিন দিন প্রকট আকার ধারন করছে। বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের ৯ নং শেখরা গ্রামে সাবেক ইউপি সদস্য আঃ লতিফ এবং বর্তমান ইউপি সদস্য মোঃ আনিসুর রহমানের সাথে নির্বাচন এর পরদিন থেকে শুরু করে এখনও পর্যন্ত দফায় দফায় হামলা,বাড়ীঘর ভাংচুর,লুটপাট চলছে। রবিবার (৩১ অক্টোবর) রাতের হামলায় আবারো উভয় পক্ষের স্কুল ছাত্র,নারীসহ দশ জন আহত হয়েছে। হামলায় আহতরা খুলনা ও বাগেরহাট সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে।
হামলায় আহতরা হলেন, শেখরা গ্রামের নুর মহম্মদ খন্দকারের দুই ছেলে হাচান খন্দকার ও আছর খন্দকার, হৃদয় মোশাইদ, রেজাউল এর ছেলে নাসিমুল,বাবর আলী শেখ এর ছেলে মাকফুর শেখ, মুলঘর গ্রামের জামাল মল্লিকের ছেলে আলতাব মল্লিক,বেশর গাতী গ্রামের খোকা শেখ এর ছেলে আজরুল শেখ এবং শেকরা গ্রামের মোঃ ইয়াকুব আলী ফকিরের স্ত্রী মোস্যাঃ আমেনা বেগম প্রতিপক্ষের হামলায় আহত হয়েছেন। এর মধ্যে আলতাব মল্লিক ও আজরুল শেখ কে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করা হয়েছে।
এ বিষয়ে সাবেক ইউপি সদস্য আঃ লতিফ বলেন, সদ্য নির্বাচিত ইউপি সদস্য মোঃ আনিসুর রহমান শপথ গ্রহনের পর থেকে এলাকার যারা তাকে ভোট দেয়নি বা তার পক্ষে কাজ করেনি তাদেরকে চিহ্নিত করে নবনির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যানের ইন্দনে এই সন্ত্রাসী কার্যক্রম চালিয়েছে ও আমার নেতা কর্মীদের পিঠিয়ে গুরুত্বর জখমসহ ঘর বাড়ি লুটপাট করেছে। তিনি অনতিবিলম্বে এই সব সন্ত্রাসী কার্যক্রম থেকে বাঁচতে মাননীয় এমপি সহ প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।
এ বিষয়ে নির্বাচিত ইউপি সদস্য আনিুচুর রহমান বলেন, নির্বাচনে পরাজিত হয়ে প্রতিশোধ নিতে এলাকায় আমার নিরীহ কর্মী সমর্থদের উপর হামলা মারপিট সহ তাদের বাড়ী ঘর ভাংচুর করছে।
গত ২০ সেপ্টেম্বর প্রথম দফা ইউপি নির্বাচনের পর ৩১ অক্টোবর রাতে এই দুই গ্রুপের মধ্যে প্রথম দফা হামলার ঘটনা ঘটেছিল।
এ বিষয়ে বাগেরহাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ আজিজুল ইসলাম বলেন, নির্বাচনের পর একাধিক বার হামলার ঘটনা ঘটেছে। গত রবিবার আবারো দুই গ্রুপের মধ্যে হামলার ঘটনা ঘটলে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্তিতি স্বাভাবিক করে ও ঘটনাস্তলে পুলিশ মোতায়েন রাখা হয়। তিনি জানান, হামলার সাথে জড়িত প্রকৃত দোষীদের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here