সৈয়দপুর থেকে কক্সবাজার সরাসরি বিমানের ফ্লাইট চলাচলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রেলপথ মন্ত্রী

0
52

মিজানুর রহমান মিলন সৈয়দপুর :
রেলপথ মন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, একটি দেশের উন্নয়ন জন্য প্রয়োজন ভারসাম্যপূর্ণ যোগাযোগ ব্যবস্থা। যে দেশের যোগযোগ ব্যবস্থা যত উন্নত, সেই দেশও তত উন্নত। তাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতীয় সংসদে সৈয়দপুর বিমানবন্দরকে আন্তর্জাতিক
মানের বিমানবন্দরে উন্নীত করার ঘোষণা দিয়েছিলেন। এক সময় ঢাকা থেকে রাজশাহী ও সৈয়দপুর হয়ে বিমানের ফ্লাইট চলাচল করতো। বিমানের যাত্রী সংখ্যা ছিল হাতেগোনা কয়েকজন। তখন দেশের মানুষের বিমানে উঠার সামর্থ্য ছিল না। মানুষের অর্থনৈতিক অবস্থা একেবারে খারাপ ছিল। কিন্তু বর্তমানে মানুষের আর্থিক সক্ষমতা বেড়েছে। এখন প্রতিদিন সৈয়দপুর-ঢাকা রুটে ১৬টি ফ্লাইট উঠানামা করছে। এছাড়াও সৈয়দপুর বিমানবন্দর পার্শ্ববর্তী দেশ ভূটান, নেপাল ও ভারতের উত্তরাঞ্চল ব্যবহার করলে আমরা অর্থনৈতিকভাবে লাভবান হবো। সৈয়দপুর বিমানবন্দর থেকে শুধু বিমান যাত্রী পরিবহন নয়, বিমানের কার্গো ফ্লাইট চলাচলের সম্ভাবণা রয়েছে। এতে আমাদের পর্যটন শিল্পেরও সম্ভাবনা আরো উজ্জ্বল ও লাভবান হবে। তিনি আজ বৃহস্পতিবার সৈয়দপুর-কক্সবাজার রুটে সরাসরি বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট চলাচলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথাগুলো বলেন।

বিমানবন্দরের টার্মিনালের বহির্গমন লাউঞ্জের সামনে সৈয়দপুর – কক্সবাজার রুটে ফ্লাইট চলাচলের ওই বর্ণাঢ্য
উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হয়। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে রেলপথ মন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বে দেশ আজ ব্যাপক উন্নয়নের পথে এগিয়ে চলছে। অথচ সরকারের বিরোধী অপশক্তি বিএনপি ও জামায়াতের মাধ্যমে সরকারের বিরুদ্ধে নানারকম যড়যন্ত্র লিপ্ত রয়েছে। তিনি সরকার বিরোধী শক্তিকে প্রতিহত করতে দলমত নির্বিশেষে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহবান জানান। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি মন্ত্রী সুজন আগামি বছরের ডিসেম্বর মাসের মধ্যে বিমানের মত নীলফামারী কক্সবাজার রুটে সরাসরি ট্রেন চলবে জানিয়ে বলেন যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন হলে দেশের অর্থনৈতিক উন্নতি হতে থাকে। মন্ত্রী বলেন রেলের উন্নয়নে ২০১১ সালে মানবতার মা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রেলপথ মন্ত্রণালয় গঠন করে রেলওয়ে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার কাজ শুরু করেন। সেই ধারাবাহিকতায় আজ রেল এগিয়ে যাচ্ছে। তিনি বলেন রেলওয়ের বহু সম্পত্তি বেদখল হয়ে গেছে। অনেকে বাসাবাড়ি, বহুতল মার্কেট করে অর্থ উপার্জন করছে একটি অসাধু মহল। অথচ রেলওয়েকে একটি টাকাও তারা দিচ্ছে না। এটা হতে পারেনা উল্লেখ করে তিনি বলেন আপনারা রেলওয়ের জায়গায় আছেন, কামাই করে খাচ্ছেন খান। কিন্তু রেলওয়েকে রাজস্ব দিতে হবে। এজন্য একটা যথাযথ ব্যবস্থাপনায় নিয়মের মধ্যে আসতে হবে।

অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি ছিলেন বিশিষ্ট অভিনেতা ও নাট্যব্যক্তিত্ব সাবেক সংস্কৃতি মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর এমপি।এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য বলেন বিমান পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সাবেক সিনিয়র সচিব সাজ্জাদুল হাসান, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোকাম্মেল হোসেন ও রংপুর বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল ওয়াহাব মিঞা।
বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী এমপি’র সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য বলেন বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও ড. আবু সালেহ মো. মোস্তফা কামাল।এতে অন্যদের মধ্যে নীলফামারী -৪ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মো. আদেলুর রহমান আদেল, সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য রাবেয়া আলীম, নীলফামারী জেলা প্রশাসক মো. হাফিজুর রহমান চৌধুরী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোক্তারুজ্জামান, রেলপথ মন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজনের সহধর্মিনী শাম্মী আখতার প্রমূখ বক্তব্য রাখেন । পরে প্রধান অতিথি মন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন বিমানবন্দরের এ্যাপ্রোনে ফিতা কেটে সৈয়দপুর – কক্সবাজার রুটে ফ্লাইট বিজি – ৫৯২ চলাচলের উদ্বোধন করেন। অনুষ্ঠানে সৈয়দপুর উপজেলা চেয়ারম্যান মো. মোখছেদুল মোমিন, নীলফামারী উপজেলা চেয়ারম্যান শাহিদ মাহমুদ, সৈয়দপুর উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান আজমল হোসেন, সৈয়দপুর পৌর মেয়র রাফিকা আকতার জাহান, সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানার বিভাগীয় তত্ত্বাবধায়ক (ডিএস) মো. জয়দুল ইসলাম, আমন্ত্রিত অতিথি, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স লিমিটেড ও সিভিল এভিয়েশনের কর্মকর্তারা জনপ্রতিনিধি, আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ,ব্যবসায়ী,সুধীজন ও সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স লিমিটেডের নীলফামারীর সৈয়দপুর জেলা ব্যবস্থাপক মো. হারুন অর রশীদ জানান, সৈয়দপুর-

-কক্সবাজার রুটে ফ্লাইট চলাচলের প্রথম দিনে আজ বৃহস্পতিবার ৬৬ জন যাত্রী নিয়ে সৈয়দপুর থেকে কক্সবাজারের উদ্দেশ্যে ছেড়ে গেছে। তিনি জানান, সপ্তাহের প্রতি বৃহস্পতিবার সকাল ৯ টা ২০ মিনিটে ফ্লাইট বিজি-৫৯২ সৈয়দপুর থেকে কক্সবাজারের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাবে। আর ৯ অক্টোবর থেকে প্রতি শনিবার দুপুর ১টা ২৫ মিনিটে বিমান বিজি- ৫৩৮ কক্সবাজার থেকে সৈয়দপুর বিমানবন্দরের উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here