রাস্তার গর্ত ভরাট কাজে নিজেই নামলেন রাজনৈতিক এ নেতা!

0
32

অ আ আবীর আকাশ, লক্ষ্মীপুরঃ
এলাকার মানুষের দুঃখ-দুর্দশা ও যাতায়াতে অবর্ণনীয় দুর্ভোগের কথা চিন্তা করে গর্ত খানাখন্দে ভরা রাস্তায় স্ব উদ্যোগে মোঃ মঈন উদ্দিন মানিক প্রকাশ ডাক্তার মানিক ইট ফেলে ভরাট করেন। মঈন উদ্দিন মানিক আদর্শগতভাবে নিজ খরচে এলাকার নানামুখী উন্নয়নে নিজেকে সম্পৃক্ত রেখেছেন।

সমাজ সামাজিকতা ও রাজনৈতিক অঙ্গনে মঈন উদ্দিন মানিক ব্যাপক পরিচিত সজ্জন। তিনি রাজনীতি করতে গিয়ে বিএনপি’র রোষানলে পড়ে মামলা হামলার শিকার হন। প্রতিহিংসামূলক ভাবে তাকে ও তার রাজনৈতিক সহকর্মীদের হত্যা মামলাসহ নানা ইস্যু তৈরি করে ৮টি মামলা দিয়ে হয়রানি করেন। এতে মইনুদ্দিন মানিকের চাকরি চলে যায়। পরবর্তীতে সম্পন্ন মামলার খরচ তিনি একাই বহন করেন। তাতে তার পৈত্রিক সম্পত্তি থেকে ৫০ শতাংশ বিক্রি করতে হয়।

মঈন উদ্দিন মানিক ১৯৮১ সালে সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী দেওয়ান সুলতান আহমেদের বদরপুর এজেন্ট, ১৯৯৬ সালে এমপি প্রার্থী শফিকুল ইসলামের নির্বাচনী প্রধান এজেন্ট, ২০০১ সালে এমপি প্রার্থী শাহজাহান এজেন্টের দায়িত্ব পালন করেন। উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী মনির হোসেন ও ভাইস-চেয়ারম্যান প্রার্থী রুহুল আমিনের এজেন্টের দায়িত্ব পালনকালে বিরোধীদলীয় সন্ত্রাসীদের হাতে নির্মম নির্যাতনের শিকার হন। ২০২১ সালে ড.আনোয়ার হোসেনের নির্বাচনে কেন্দ্রের সার্বিক দায়িত্ব পালন করেন।

মঈন উদ্দিন মানিক বাংলাদেশ কৃষক লীগের রামগঞ্জ উপজেলা সাধারণ সম্পাদক, ১৯৯৬ থেকে-২০০৩ পর্যন্ত ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি, ৬ বারের অভিভাবক সদস্য নন্দীগ্রাম বদরপুর উচ্চ বিদ্যালয়, সভাপতির দক্ষিণ বদরপুর তোরাব আলী জামে মসজিদ, সভাপতির দক্ষিণ বদরপুর ঈদগাহ কমিটি, সহ-সভাপতি দক্ষিণ বদরপুর খামার বাড়ী জামে মসজিদ, দাতা ও সভাপতি বদরপুর কমিউনিটি ক্লিনিকসহ নানা সেবামূলক কর্মকান্ডে নিজেকে জড়িত রেখেছেন।

তিনি পৈত্রিক সম্পত্তি থেকে কমিউনিটি ক্লিনিক এর জন্য মূল্যবান জমি দান করেছেন। সমাজ সেবামূলক কর্মকান্ডে তিনি যথেষ্ট আন্তরিক বলে স্থানীয়রা জানান। এই আপাদমস্তক সমাজসেবী মইনুদ্দিন মানিক আসন্ন করপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here