বর্ষায় চুল পড়া রোধে করণীয়

0
25

খবর৭১ঃ মানুষের চেহারা ফুটিয়ে তোলে স্বাস্থ্যকর সুন্দর চুল। বিশেষ করে মেয়েরা নিজের সৌন্দর্য বাড়াতে বহু যত্ন আত্তি করে চুল বড় করতে আগ্রহী হন। কিন্তু চুলের যত্ন ঠিকমতো না করলে অকালে চুল পড়ে যেতে পারে। তবে বর্ষা মৌসুমে চুলের বিভিন্ন সমস্যা দেখা দেয়। বিশেষ করে বর্ষার পানি চুলে পড়লে হতে হবে সতর্ক। বৃষ্টির পানি চুলের জন্য ক্ষতিকর কারণ বৃষ্টির পানিতে অ্যাসিড আর প্রচুল ময়লা থাকে। যা স্কাল্পে চুলকানিসহ খুশকির সৃষ্টি করে। সঠিক পুষ্টির অভাব চুল যেমন রুক্ষ করে দিতে পারে তেমনি চুলের বৃদ্ধি থেকে শুরু করে চুল পড়া, আগা ফাটা, খুশকির সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই ঘরোয়া যত্নে আপনার চুল ফিরে পেতে পারে প্রাণ। সুতরাং চুলের যত্ন নিতে হবে। বর্ষায় চুলের যত্ন নেওয়ার জন্য সময় থাকছে হাতে। খুব সহজ পদ্ধতিতে চুলের যত্ন নিন।

চুল পড়ার সমস্যা কমাতে রোজ পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি এবং পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ খাবার খাবেন। সঙ্গে অবশ্যই প্রয়োজন চুলে যত্ন। বর্ষায় বিশেষ করে খেয়াল রাখবেন বৃষ্টির পানি যেন মাথায় বসে না যায়। বৃষ্টিতে ভিজে গেলে বাড়িতে ফিরে চুলে শ্যাম্পু করে নিন। যদি আপনার চুল তৈলাক্ত হয়, তা হলে এক দিন অন্তর শ্যাম্পু অবশ্যই করবেন। যদি কোঁকড়া চুল হয়, তা হলে বর্ষার আর্দ্রতায় চুল আরও উসকো খুশকো হয়ে যাবে। তাই ভাল কন্ডিশনার এবং সিরাম লাগানো প্রয়োজন।

তবে শুধু শ্যাম্পু-কন্ডিশনার দিয়েই বর্ষার চুলের যত্ন সারা যায় না। এই সময়ে প্রয়োজন নিয়মিত তেল লাগানো। সপ্তাহে অন্তত দু থেকে তিন দিন যদি তেল লাগিয়ে ভাল করে ম্যাসাজ করতে পারেন, তা হলে চুলের স্বাস্থ্য ভাল থাকবে। মাথার তালুতে রক্ত চলাচল বাড়বে এবং চুল পড়াও অনেকটা কমবে।

নারিকেল তেল ব্যবহার করুন

কোন ধরনের তেল লাগাতে চুলের গোড়া শক্ত হবে এবং চুল পড়া কমবে? ভাববেন না যে অনেক অর্থ ব্যয় করতে হবে তার জন্য। রান্নাঘরেই পেয়ে যাবেন এর সমাধান। ভাল মানের নারিকেল তেল কিনে আনুন। মেথি আর কালো জিরে রোদে দিয়ে একদম শুকনো করে নেবেন। তারপর সেটা মিক্সিতে গুঁড়িয়ে নিন। গুঁড়া করা হয়ে গেলে সেটা নারিকেল তেলে মিশিয়ে ফুটিয়ে নিন কিছুক্ষণ। এই তেল একটি কাচের শিশিতে রাখবেন। ১০ থেকে ১২ দিন সহজেই রাখতে পারবেন। সপ্তাহে তিন দিন লাগানো পর কোনও মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

মাথায় তেল দিন সপ্তাহে ২দিন

অলিভ অয়েল (জলপাইয়ের তেল) চুলের পুষ্টির জন্য খুবই উপকারি। এই তেল সপ্তাহে অন্তত দুদিন ব্যবহার করলে চুলের গোড়া যেমন মজবুত হবে, তেমনি চুলের উজ্জ্বলতাও বাড়বে।

অ্যালোভেরা ব্যবহার করুন

অ্যালোভেরা যেমন ত্বকের জন্যও কার্যকরী তেমনই চুলের জন্যও। অ্যালোভেরার মধ্যে থাকে ভিটামিন-ই। যা স্কাল্পের পরিচর্চার জন্য আদর্শ।

মধু ও ডিমের ব্যবহার

ঘরোয়া পদ্ধতিতে চুল পড়ে যাওয়ার যুগান্তকারী ওষুধ মধু ও ডিম। এই দুইয়ের দ্রবণ ৩০ মিনিট করে মাথায় লাগিয়ে ধুয়ে ফেলার পর চুল অনেকটা ভালো থাকে। উজ্জ্বলতাও বাড়ে। এটুকু করলেই এই বর্ষাতেই আপনার চুলের ঝড়ে যাওয়া আটকাতে পারবেন।

হেনার ব্যবহার

তেলের সঙ্গে হেনা মিশিয়ে তা মাথায় লাগালে চুলের জন্য উপকার পাওয়া যায়। তবে হেনা ব্যবহার করার সময় অবশ্যই একটা কথা মাথায় রাখবেন, ৩০ মিনিটের বেশি কখনই হেনা মাথায় রেখে দেওয়া উচিত নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here