কাবুল বিমানবন্দরে আরও হামলার আশঙ্কা যুক্তরাষ্ট্রের

0
39

খবর৭১ঃ কাবুল বিমানবন্দরে জোড়া বিস্ফোরণের পর আরও হামলা হতে পারে বলে জানিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন সেন্ট্রাল কমান্ডের প্রধান জেনারেল ম্যাকেঞ্জি এই আশঙ্কার কথা জানিয়েছেন।

ম্যাকেঞ্জি জানান, তারা আশঙ্কা করছেন এরপর বিমানবন্দরে রকেট হামলা হতে পারে বা গাড়িবোমা বিস্ফোরণের চেষ্টা হতে পারে। সম্ভাব্য এসব আক্রমণের জন্য মার্কিন সেনা সতর্ক। তিনি বলেন, ‘সম্ভাব্য আক্রমণ ঠেকানোর জন্য আমরা যথাসাধ্য চেষ্টা করছি।’ খবর এএফপির

ইসলামিক স্টেট খোরাসান (আইএস-কে) যে বিমানবন্দর আক্রমণ করতে পারে তার আগাম সতর্কবার্তা দিয়েছিল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। জি-৭ বৈঠকেও প্রেসিডেন্ট বাইডেন এই সম্ভাব্য আক্রমণ নিয়ে সকলকে সতর্ক করে দিয়েছিলেন। যুক্তরাষ্ট্র এবং পশ্চিমা দেশগুলি এরপর নিরাপত্তা সতর্কতা জারি করেছিল। কিন্তু বৃহস্পতিবারের আক্রমণ তারা ঠেকাতে পারেনি। এরপর আরও আক্রমণের সম্ভাবনার কথা জানিয়েছে তারা।

বিমানবন্দরে এখনো পাঁচ হাজারের বেশি মার্কিন সেনা আছে। বৃহস্পতিবারের আত্মঘাতী বিস্ফোরণের পর যুক্তরাষ্ট্র আরও দ্রুত তাদের দেশের নাগরিকদের ফিরিয়ে নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে বিস্ফোরণের পর নরওয়ে তাদের দেশের নাগরিক ও আফগানদের দেশে ফেরানোর কাজ বন্ধ রেখেছে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ঘটা ওই বিস্ফোরণে মৃত্যু হয়েছে শতাধিক। এর মধ্যে রয়েছে ১৩ জন মার্কিন নৌবাহিনীর সেনা রয়েছেন। এরই মধ্যে বিস্ফোরণের দায় স্বীকার করেছে জঙ্গি সংগঠন আইএস। নিজস্ব বার্তা সংস্থা আমাক-এর এক প্রতিবেদনে হামলার দায় স্বীকার করে তারা।

আমাকের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, আইএস এর এক আত্মঘাতী বোমা হামলাকারী কাবুল বিমানবন্দরের কাছে ‘ব্যারন ক্যাম্প’ এ মার্কিন সেনাবাহিনী ও তাদের হয়ে কাজ করা আফগান এবং দোভাষীদের ভিড়ে ঢুকে যেতে সক্ষম হয়েছে। এরপরই বিস্ফোরক বেল্টের বিস্ফোরণ ঘটায় সে।

আইএস’র বিরুদ্ধে অভিযান চালানোর নির্দেশ দিয়ে বাইডেন বলেছেন, ‘আমাদের বাহিনী সঠিক জায়গা এবং সঠিক সময়মত এর জবাব দেবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here