সৈয়দপুরে পৌর বিএনপির আহবায়ক আটক: মুক্তি দাবি

0
284

মিজানুর রহমান মিলন,সৈয়দপুর থেকে :
নীলফামারীর সৈয়দপুর পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপির নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্য ও পৌর বিএনপির আহবায়ক শেখ বাবলুকে সাদা পোশাকে পুলিশ পরিচয়ে আটক করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে স্থানীয় বিএনপি।  শুক্রবার( ২৬ ফেব্রুয়ারি) সকালে শহরের শহীদ ডা. জিকরুল হক সড়কে সৈয়দপুর রাজনৈতিক জেলা বিএনপির কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করা হয়। এতে বক্তব্য বলেন জেলা বিএনপির আহবায়ক অধ্যক্ষ আব্দুল গফুর সরকার, বিএনপি সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক এ্যাড. এস এম ওবায়দুর রহমান, সদস্য সচিব পৌর কাউন্সিলর শাহিন আকতার ও মেয়র প্রার্থী বিএনপি নেতা আলহাজ্ব রশিদুল হক সরকার। বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, বৃহস্পতিবার গভীর রাতে শহরের নয়াটোলা এলাকায় তার শ্বশুর বাড়ি থেকে আটক করা হয় পৌর বিএনপির আহবায়ক শেখ বাবলুকে। কিন্তু তার নামে স্থানীয় থানায় বা আদালতে কোন মামলা নেই। আগামি ২৮ ফেব্রুয়ারী সৈয়দপুর পৌরসভা নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশকে নষ্ট ও ভোটারদের মাঝে ভীতিকর পরিবেশ সৃষ্টি করার লক্ষ্যে তাঁকে আটক করা হয়েছে। এছাড়া গতকাল শুক্রবার ভোরে শহরের কাজীহাট এলাকায় তাঁতীদলের সভাপতি সাবেক পৌর কাউন্সিলর আনিছ আনসারীর বাড়িতে গিয়ে অপরিচিত লোকজন বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে ভয়ভীতি প্রদর্শন করেছে বলে সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করেন তারা। নেতৃবৃন্দ বলেন ভোটাররা যাতে ভয়ে ভোট কেন্দ্রে না যায়, সে জন্যই বিভিন্ন ধরনের কথাবার্তা বলছে ক্ষমতাসীনরা। যা নির্বাচন আচরণ বিধি লঙ্ঘনের সামিল।
বক্তারা বলেন, আমরা নির্বাচনের শুরু থেকে আচরণবিধি মেনে প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে আসছি। কিন্তু নৌকা মার্কার প্রচার-প্রচারণা মানা হচ্ছে না কোন আচরন বিধি। মধ্যরাত পর্যন্ত ৮-১০টি মাইক এক সাথে ব্যবহার করে পথসভা করছে। পথসভা থেকে বিভিন্ন ধরনের উস্কানিমূলক বক্তব্য দেয়া হচ্ছে। এ ব্যাপারে রিটার্নিং কর্মকর্তাদের কাছে অভিযোগ করলেও কোন পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে না বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়। এক প্রশ্নের জবাবে নেতৃবৃন্দ বলেন শেষ পর্যন্ত ভোটের লড়াইয়ে বিএনপি থাকবে।
বিএনপি নেতাকে আটকের বিষয়ে জানতে চাইলে সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল হাসনাত খান জানান, শহরের গোলাহাটে নির্বাচন প্রচারে আ’লীগ-জাপার মধ্যে সংঘর্ষের মামলায় বিএনপির ওই নেতাকে আটক করা হয়েছে। এদিকে বিএনপি নেতা শেখ বাবলুকে আটকের পর বিএনপি নেতাকর্মী ও সমর্থকদের মাঝে অজানা আতঙ্ক বিরাজ করছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here