দেশের ৯০ ভাগ মানুষ আধাপেট খেয়ে দিন পার করছে: জিএম কাদের

0
26

বিরোধীদলীয় নেতা ও জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান জিএম কাদের বলেছেন, দেশের ৯০ ভাগ মানুষ আধাপেট খেয়ে দিন পার করছে। সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয় দাম বেশি হলেও বেচাকেনা তো হচ্ছে।

রোববার (১৬ মার্চ) রাজধানীর পল্লবী ২ নম্বর ওয়ার্ড কমিউনিটি সেন্টারে জাতীয় পার্টি ঢাকা মহানগর উত্তর আয়োজিত ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এমন মন্তব্য করেন।

জিএম কাদের বলেন, একশ্রেণির মানুষ ভোগ বিলাসে দিন কাটাচ্ছে। সরকারের আশপাশের লোকজন হাজার হাজার কোটি টাকা লুটপাট করছে, তাদের দিকে তাকিয়ে দেশের মানুষের কথা বিবেচনা করলে হবে না। বাজারের চাকচিক্য প্রমাণ করে বৈষম্য।

তিনি বলেন, গরিব মানুষদের বাঁচাতে সরকারের কোন আশ্বাস বাস্তবায়ন হয়নি। সহায়তার নামে নিজেদের দলীয় কিছু মানুষকে সাহায্য করা হচ্ছে। ন্যায় বিচারক বঞ্চিত এই মানুষদের পাশে আমাদের দাঁড়াতে হবে। মানুষ আমাদের দায়িত্ব দিয়েছেন, আমরা তাদের পাশে দাঁড়াবো। আমরা সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়াতে সরকারকে বাধ্য করবো।

তিনি আরও বলেন, রমজানে দেশের মানুষ ভালো নেই। রমজানে দ্রব্যমূল্য নাগালের বাইরে। আয় দিয়ে তারা জীবিকা নির্বাহ করতে পারছে না। নিত্যপণ্যের দাম বাড়ছে প্রতি সপ্তাহে। রমজানে মুনাফাখোরা কয়েক গুণ দাম বাড়িয়ে দিয়েছে। মাহে রমজান আমাদের বৈষম্যের বিরোধিতার শিক্ষা দেয়। ইসলাম আমাদের সামাজিক ন্যায় বিচারক প্রতিষ্ঠার শিক্ষা দেয়। বৈষম্যের শিকার মানুষদের বাঁচাতে হবে।

জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান বলেন, আমাদের দেশের কলকারখানা বন্ধ হয়ে যাচ্ছে, কাঁচামালের অভাবে। ডলার সংকটে অর্থনীতিতে সংকট সৃষ্টি হয়েছে। সরকার প্রতিটি কাজ ধুমধামে করছে, তাতে মনে হয় না দেশে অর্থনৈতিক সংকট আছে। সাধারণ মানুষকে কষ্ট দিয়ে সাধারণ মানুষের টাকায় চাকচিক্য দেখানো হচ্ছে। ভালো থাকলে আমরা সবাই ভালো থাকতে চাই। বেশির ভাগ মানুষ কষ্ট করবে আর কিছু মানুষ রাজা-বাদশার মত জীবন কাটাবে তা হতে পারে না।

অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ ও জাতীয় পার্টি মহাসচিব মো. মুজিবুল হক চুন্নু। উপস্থিত ছিলেন প্রেসিডিয়াম সদস্য শেরীফা কাদের, চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা খলিলুর রহমান, ঢাকা মহানগর উত্তরের সদস্য সচিব সুলতান আহমেদ সেলিম, ভাইস চেয়ারম্যান মো. জসিম উদ্দিন, শামসুল হক, যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল খায়ের প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here