শক্তিধর দেশের রাষ্ট্রনায়করা শেখ হাসিনার প্রশংসা করেছেন: কাদের

0
86

খবর ৭১: ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টসহ শক্তিধর দেশের রাষ্ট্রনায়করা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রশংসা করেছেন বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। বুধবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এ কথা জানান।
বিবৃতিতে ওবায়দুল কাদের বলেন, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ বিএনপি নেতারা ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের বাংলাদেশ সফর এবং জি-২০ ও ব্রিকস সম্মেলনে বাংলাদেশের কূটনৈতিক সফলতা নিয়ে মিথ্যাচারে লিপ্ত রয়েছেন। তারা মিলিয়ন-বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করে লবিস্ট ফার্ম নিয়োগের মাধ্যমে দেশের বিরুদ্ধে কুৎসা ও মিথ্যাচার করছেন।
বিএনপি বাংলাদেশকে বিশ্ব থেকে বিচ্ছিন্ন করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফলতার কারণে বিএনপির সে চক্রান্ত ব্যর্থতায় পর্যবসিত হওয়ায় তাদের গাত্রদাহ সৃষ্টি হয়েছে।
তিনি আরও বলেন, সম্প্রতি দক্ষিণ আফ্রিকায় ব্রিকস সম্মেলন এবং ভারতে জি-২০ সম্মেলনে অংশগ্রহণ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশের জন্য গৌরব ও মর্যাদা বয়ে এনেছেন। এই সম্মেলনগুলোতে প্রধানমন্ত্রীর সরব উপস্থিতি বিশ্বনেতাদের বিশেষ মনোযোগ আকর্ষণ করেছে।
ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁসহ শক্তিধর দেশের রাষ্ট্রনায়করা বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে বাংলাদেশে গণতন্ত্রের বিকাশ এবং অসাধারণ অগ্রগতি ও সাফল্য অর্জিত হচ্ছে। বাংলাদেশের উন্নয়ন সহযোগী হিসেবে বিশ্বনেতারা যখন বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ককে আরও সুপ্রসারিত করছেন, ঠিক তখন বিএনপি-জামায়াত দেশবিরোধী গভীর ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে অপপ্রচার চালাচ্ছে।
বিবৃতিতে দেশের উন্নয়নের কথা তুলে ধরেন সেতুমন্ত্রী। তিনি বলেন, বাংলাদেশের মানুষের আকাঙ্ক্ষা ও স্বপ্নের মেগা প্রকল্পসমূহ বাস্তবায়িত হচ্ছে। এরমধ্যে পদ্মা সেতু, মেট্রোরেল, এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের সুবিধা ভোগ করছে জনগণ। জনগণের স্বপ্নের এসব প্রকল্পেও বিএনপির গাত্রদাহ!
বিএনপির সমালোচনা করে মন্ত্রী আরও বলেন, দেশবাসী ভুলে যায়নি, খালেদা জিয়া আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম ওয়াশিংটন টাইমসে দেশবিরোধী কলাম লিখে পদ্মা সেতু প্রকল্পের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করেছিলেন। বিএনপি দীর্ঘদিন রাষ্ট্রক্ষমতায় ছিল অথচ তারা উল্লেখযোগ্য কোনো উন্নয়ন করতে পারেনি, বরং দুর্নীতি ও লুটপাটতন্ত্র কায়েম করেছিল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here