বধ্যভুমির শহর’ নাটকে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃতির প্রতিবাদে সৈয়দপুরে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা

0
47

সৈয়দপুর প্রতিনিধি :
সরকারী অর্থায়নে নির্মিত ‘বধ্যভুমির শহর’ নাটকে সৈয়দপুর শহরের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃতির অভিযোগে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১১ টায় শহরের শহীদ ডা. জিকরুল হক সড়কস্থ সৈয়দপুর প্রেসক্লাবের সামনে ওইসব কর্মসূচী পালন করে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও শহীদ পরিবারের সন্তানদের সংগঠন প্রজন্ম ৭১।সৈয়দপুর পৌর আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রফিকুল ইসলাম বাবু’র সভাপতিত্বে ঘন্টাব্যাপী অনুষ্ঠিত মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য বলেন সৈয়দপুর উপজেলা আওয়ামীলীগ ও প্রজন্ম ৭১’র সাধারণ সম্পাদক মহসিনুল হক মহসিন, প্রজন্ম ৭১’র সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রকৌশলী মোনায়মুল হক, শহীদ বুদ্ধিজীবী পরিবারের সন্তান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতা অধ্যক্ষ শাখাওয়াৎ হোসেন খোকন, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা ইউনুছ আলী, শহীদ পরিবারের সন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধা সালাউদ্দিন বেগ, সৈয়দপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি আমিনুল হক,
আওয়ামীলীগ নেতা সরকার কবির উদ্দিন ইউনুস,যুবলীগ নেতা ও নাট্যকর্মী স.ম. সাঈদ রেজা, ও কাজী রাশেদ ও প্রমুখ। সমাবেশে বক্তারা বলেন, গত ১৯ ডিসেম্বর রাতে সৈয়দপুর শহরের গোলাহাট বধ্যভূমিতে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির আয়োজনে পরিবেশ থিয়েটারের পরিবেশনায় মঞ্চায়িত ‘বধ্যভূমির শহর’ নাটকটিতে সৈয়দপুরের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃত করা হয়েছে। নাটকের চরিত্রে মুক্তিযুদ্ধে নেতৃত্বদানকারী শহীদদের প্রাধান্য দেয়া হয়নি। কুখ্যাত রাজাকার নঈম গুন্ডাসহ চিহ্নিত রাজাকারদের চরিত্র নাটকের মধ্যে ছিল না। ফলে নাটক মঞ্চায়ন শেষে সৈয়দপুরে শহীদ পরিবারের সন্তান ও আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দসহ বিভিন্ন জন আয়োজকদের কাছে ন্যক্কারজনক এ ঘটনার প্রতিবাদ করেন। বক্তারা আরো বলেন, সৈয়দপুরের ইতিহাস বিকৃত করার কাজে দৈনিক প্রথম আলোর সৈয়দপুর প্রতিনিধি এম আর আলম ঝন্টু প্রত্যক্ষভাবে সহযোগিতা করেছেন। ওই সাংবাদিকের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে নাটকটির রচনা করা হয়েছে বলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নির্দেশক দেবাশীষ ঘোষ। তাই সৈয়দপুরের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃতির মূলহোতা ওই সাংবাদিক।

মানববন্ধনে বক্তারা নাটকটির কাহিনী ও চিত্রনাট্য সংশোধন করে পূনরায় মঞ্চায়নের দাবি জানিয়ে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃতিকারী সাংবাদিক এম আর আলম ঝন্টুকে অবাঞ্চিত ঘোষণা করা হয়।

উল্লেখ্য, গত ১৯ ডিসেম্বর রাতে শহরের গোলাহাট বধ্যভূমিতে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির আয়োজনে পরিবেশ থিয়েটারের পরিবেশনায় মঞ্চায়িত হয় ‘বধ্যভূমির শহর’ নাটকটি। এদিন সাবেক সংস্কৃতি মন্ত্রী, আসাদুজ্জামান নূর এমপি, বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকি, জেলা প্রশাসক মো. হাফিজুর রহমান চৌধুরী, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোখলেছুর রহমান, উপজেলা চেয়ারম্যান মো. মোখছেদুল মোমিন, পৌর মেয়র রাফিকা আকতার জাহান বেবী, স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশ নেয়া বীর মুক্তিযোদ্ধা, শহীদ পরিবারের সন্তানরাসহ কয়েক হাজার দর্শক উপস্থিত ছিলেন। নাটকে স্থানীয় বিভিন্ন নাট্য সংগঠনের নাট্যকর্মী ও বিভিন্ন শিক্ষার্থীরা অভিনয় করেন। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনায় ছিলেন বিনোদন পত্রিকা পাক্ষিক আনন্দ আলোর পত্রিকার সম্পাদক রেজানুর রহমান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here