দাঁত চকচকে করার ঘরোয়া উপায়

0
44

খবর ৭১: আপনি চাইলে ঘরোয়া উপায়ে চকচকে দাঁত পেতে পারেন।

কলার খোসা

কলা একটি পুষ্টিকর ফল হিসাবে বিবেচিত যাতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে পুষ্টি উপাদান। তবে আপনি কি জানেন যে কলার খোসাও দাঁত সাদা করার এক দুর্দান্ত উত্স। তাই পরের বার মুক্তার বা চকচকে সাদা দাঁত পেতে সেই কলার খোসাটি সংরক্ষণ করুন। আপনার দাঁতে খোসাটি প্রতিদিন প্রায় এক বা দুই মিনিটের জন্য ঘষুন। পটাসিয়াম, ম্যাঙ্গানিজ এবং ম্যাগনেসিয়ামের মতো কলাগুলির খনিজগুলি আপনার দাঁতে শোষিত হয়, যা আপনার মুক্তোর মত সাদা দাঁতগুলোকে সর্বোত্তম উপায়ে ভালো রাখে। কমলার খোসাও দাঁত সাদা করার এক দুর্দান্ত উত্স হিসাবে বিবেচিত হয়।

স্ট্রবেরি

আপনি কি জানেন লাল স্ট্রবেরি দাঁত সাদা করার এক দুর্দান্ত উত্স? এখন আপনাকে যা করতে হবে তা হলো এক বা দুটি স্ট্রবেরি নিন, এগুলো ম্যাশ করে ফেলুন এবং দাঁতে ২ থেকে ৩ মিনিটের জন্য প্রয়োগ করুন। এই পদ্ধতির পরে সঠিকভাবে ধুয়ে ফেলুন বা আপনি দাঁত ব্রাশ করতে পারেন। স্ট্রবেরি ম্যালিক অ্যাসিড হিসাবে পরিচিত প্রাকৃতিক এনজাইমের একটি সমৃদ্ধ উত্স, যা দাঁত সাদা করতে সহায়তা করে, অন্যদিকে স্ট্রবেরিগুলিতে পাওয়া ফাইবার একটি প্রাকৃতিক ক্লিনজার হিসাবে কাজ করে যা বিশেষত মুখ এবং দাঁত থেকে ব্যাকটিরিয়া অপসারণে সহায়তা করে।

ক্রাঞ্চি গাজর

যখনি আপনি ক্রঞ্চযুক্ত গাজর দেখবেন, কেবল সেগুলি ভালভাবে ধুয়ে ফেলুন এবং কাঁচা খান। কাঁচা গাজর আপনার দাঁত থেকে ফলক সরিয়ে ফেলার ক্ষেত্রে খুব উপকারী এবং এটি প্রাকৃতিক ক্লিনার হিসাবেও পরিচিত। এছাড়াও আপনার দাঁতে কাঁচা গাজরের লাঠি ঘষলে তা উজ্জ্বল হবে। আপনাকে স্বাস্থ্যকর মাড়ি এবং শুভ্র দাঁত দেওয়ার সময় এগুলি ব্যাকটিরিয়াকে মেরে ফেলে। গাজর ছাড়াও আপেল এবং সেলারিও দাঁত সাদা করার ক্ষেত্রে সমান গুরুত্বপূর্ণ উত্স হিসাবে বিবেচিত হয়। যা মাড়ির রোগ এবং জিঞ্জিভাইটিস প্রতিরোধ করে এবং গন্ধজনিত ব্যাকটিরিয়াকে মেরে ফেলে।

ধূমপান ত্যাগ করুন

অবশ্যই এটি বলা খুব সহচ কিন্তু এটি ছেড়ে দেয়া সহজ নয়। তবে, সবই বলে , ধূমপান ছেড়ে দেওয়া বেশ সুবিধা রয়েছে। ধূমপান, আপনার দাঁতগুলি পাশাপাশি আপনাকে অন্যান্য মারাত্মক রোগের সংক্রমণ দেয়। সুতরাং আপনি যদি সাদা মুক্তোর মত চকচকে দাঁত ফিরিয়ে আনতে চান তবে আপনাকে অবশ্যই ধূমপান ছেড়ে দিতে হবে।

স্ট্র ব্যবহার করুন

অত্যন্ত গরম বা ঠান্ডা যে কোনও কিছু আপনার দাঁতগুলির পক্ষে ভাল নয়। যতদূর সম্ভব আপনার চা বা ঠাণ্ডা কফিকে একটি স্ট্র দিয়ে খাওয়ার চেষ্টা করুন। কারণ এটি আপনার দাঁতকে ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here